ঢাকা, বুধবার, ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ৩:২২:২৫

Ekushey Television Ltd.

নির্বাচনী কাজে বাধা দেওয়ার তথ্য নেই: সিইসি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:২৩ পিএম, ৩ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার | আপডেট: ১১:২৩ পিএম, ৩ মে ২০১৮ বৃহস্পতিবার

খুলনা ও গাজীপুর সিটি করপোরেশন নির্বাচনে বিএনপির নেতা-কর্মীদের প্রচারে বাধা দেওয়ার অভিযোগ সঠিক নয়। নির্বাচনী কাজে বাধা দেওয়া হচ্ছে বা বাধা দিয়েছে এমন কোনো তথ্য নির্বাচন কমিশন পায়নি বলে জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নূরুল হুদা । বৃহস্পতিবার এই দুই সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে সিইসির সঙ্গে বৈঠক করে বিএনপির প্রতিনিধি দল। বৈঠক শেষে সিইসি সাংবাদিকদের এ কথা বলেন।

বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য আব্দুল মঈন খান বৈঠক থেকে বের হয়ে সাংবাদিকদের বলেন, তারা খুলনার পুলিশ কমিশনার ও গাজীপুরের পুলিশ সুপারের (এসপি) প্রত্যাহার চেয়েছেন। পরিস্থিতি এত দিন স্বাভাবিক থাকলেও গাজীপুর ও খুলনা সিটি করপোরেশন নির্বাচন সামনে রেখে গত কয়েক দিন ধরে হঠাৎ করে নতুন পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। খুলনায় দলের ১৯ নেতা-কর্মীকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে।

আব্দুল মঈন আরোও বলেন, খুলনা ও গাজীপুরে বিএনপির নেতা-কর্মীদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। প্রচার কাজে বাধা সৃষ্টি করা হচ্ছে। এতে বিএনপি উদ্বিগ্ন। এ জন্য তারা ইসিতে এসেছেন।

বিএনপির প্রতিনিধি দলে অন্যদের মধ্যে ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুল্লাহ আল নোমান, বরকত উল্লাহ ও যুগ্ম মহাসচিব মাহবুব উদ্দীন।

সিইসি বলেন, বিএনপি খুলনার পুলিশ কমিশনার ও গাজীপুরের পুলিশ সুপারের প্রত্যাহার চেয়েছে। তিনি প্রতিনিধি দলকে বলেছেন, এ বিষয়ে সিদ্ধান্ত নিতে নির্বাচন কমিশনারদের সঙ্গে তার বসতে হবে। অল্প সময়ে তাদের প্রত্যাহার করা যুক্তিসংগত মনে হলে দুই পুলিশ কর্মকর্তাকে প্রত্যাহার করা হবে। আর যদি সবাই সম্মত হয় যে এখন দরকার নেই, তাহলে তাদের প্রত্যাহার নাও করা হতে পারে।

বিএনপির অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে সিইসি নূরুল হুদা বলেন, খুলনায় একটি হোটেলে বিদেশি নাগরিক ছিলেন। তাদের নিরাপত্তার জন্য হোটেলে পুলিশ পাহারা ছিল। ঘটনাচক্রে সেখানে বিএনপির নেতারাও ছিলেন।

এমএইচ/টিকে

ফটো গ্যালারি



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি