ঢাকা, ২০১৯-০৭-১৬ ১০:২৪:৫৮

নয়ন বন্ডকে কেউ ক্রিমিনাল বানিয়েছে: হাইকোর্ট

 প্রকাশিত: ২০:৫৮ ৪ জুলাই ২০১৯   আপডেট: ২৩:৪৩ ৪ জুলাই ২০১৯

রিফাত হত্যা মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ডকে ক্রসফায়ারে দেওয়ার ঘটনায় হাইকোর্ট বলেছেন, ‘আমরা বিচারবহির্ভূত হত্যা পছন্দ করি না। নয়ন বন্ড একদিনে তৈরি হয়নি। কেউ পেছন থেকে তাকে লালন-পালন করেছে, ক্রিমিনাল বানিয়েছে।’

বৃহস্পতিবার (৪ জুলাই) নয়ন বন্ড মৃত্যু সংক্রান্ত প্রতিবেদন আদালতে উপস্থাপন করা হলে বিচারপতি এফ আর এম নাজমুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ মন্তব্য করেন।

আদালতে প্রতিবেদন উপস্থাপন করেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল ব্যারিস্টার আবদুল্লাহ আল মাহমুদ বাশার।

এ সময় আদালত বলেন,‘আমরা (বিচার বিভাগ) কখনোই নির্বাহী বিভাগের যেসব দায়িত্ব পালন করার কথা, সেসব বিষয়ে হস্তক্ষেপ করতে চাই না। এটা তাদের দায়িত্ব, তাদের রুটিন ওয়ার্ক। যদি সেখানে কোনো ব্যত্যয় ঘটে, তখন শুধু বিচার বিভাগ নির্দেশনা বা হস্তক্ষেপ করে থাকে। তবে আমার এক্সট্রা জুডিশিয়াল কিলিং (বিচারবহির্ভূত হত্যা) পছন্দ করি না।’

বরগুনা জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপারের দাখিল করা ওই প্রতিবেদনে বলা হয়, রিফাত হত্যার সঙ্গে জড়িত এজাহারভুক্ত এখন পর্যন্ত পাঁচ আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।
এছাড়া সন্দেহভাজন হিসেবে গ্রেফতার রয়েছে চারজন। এতে বলা হয়েছে, সন্দেহভাজন আসামি ধরতে অভিযান চালানোর সময় পুলিশের ওপর অতর্কিত হামলা চালালে পুলিশ আত্মরক্ষায় গুলি করতে বাধ্য হয়। গোলাগুলি থেমে গেলে পুলিশ সেখান থেকে নয়ন বন্ডের লাশ শনাক্ত করে।

এর আগে গত ২৭ জুন, রিফাত হত্যার বিষয়ে অগ্রগতি প্রতিবেদন জমা দিতে নির্দেশ দিয়েছিলেন হাইকোর্ট। একই সঙ্গে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে প্রকাশ্যে রিফাত শরীফকে তার স্ত্রীর সামনে কুপিয়ে হত্যার ঘটনায় জড়িতরা যাতে দেশ ত্যাগ করতে না পারে সেজন্য সীমান্তে অ্যালার্ট জারির নির্দেশ দিয়েছিলেন আদালত।

প্রসঙ্গত, গত ২৬ জুন সকালে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা প্রকাশ্যে রামদা দিয়ে কুপিয়ে গুরুতর আহত করে রিফাত শরীফকে। তার স্ত্রী আয়শা আক্তার মিন্নি হামলাকারীদের বাধা দিয়েও স্বামীকে রক্ষা করতে পারেননি। গুরুতর আহত রিফাতকে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হলে ওই দিন বিকালে তিনি মারা যান।

এসি

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

শিরোনাম