ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ৯ ১৪২৮

পর্যটকের পদচারণায় মুখর বরগুনার বিবিচিনি শাহী মসজিদ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৪৪, ১০ সেপ্টেম্বর ২০২১

সমুদ্র উপকূলের জেলা বরগুনা। অসংখ্য খাল-বিল, নদ-নদী আর বন-বনানীর সৌন্দর্য্যে সাজানো এক জনপদ। কুয়াকাটা সৈকতের জন্য বিখ্যাত হলেও, এই জেলার ঐতিহাসিক নিদর্শনগুলোও মন কেড়েছে পর্যটকদের। এমনই একটি দর্শনীয় স্থান বিবিচিনি শাহী মসজিদ। যেখানে প্রতিদিনই ভিড় করছে পর্যটকরা। 

করোনাকালের নিষেধাজ্ঞায় দর্শনার্থী কম ছিলো অনেকটাই, তবে এখন আগের রূপে ফিরতে শুরু করেছে মোঘল স্থাপত্যের নিদর্শন বিবিচিনি মসজিদের প্রাঙ্গণ।  

বরগুনার বেতাগী উপজেলা সদর থেকে আঞ্চলিক মহাসড়ক ধরে ১০ কিলোমিটার পথ গেলেই বিবিচিনি গ্রাম। দিগন্ত জোড়া সবুজের বর্নিল আতিথেয়তায় উদ্ভাসিত ঐতিহাসিক এই মসজিদ। 

প্রায় ৩০ ফুট টিলার উপর মসজিদটি নির্মাণ করা হয় সপ্তদশ শতাব্দীতে। এর দৈর্ঘ ৩৩ ফুট, প্রস্থ ৩৩ ফুট। দেয়ালগুলো ৬ ফুট চওড়া। দক্ষিণ এবং উত্তরে খিলানের সাহায্যে নির্মিত তিনটি দরজা। ইটগুলোর দৈর্ঘ্য ১২ ইঞ্চি, প্রস্থ ১০ ইঞ্চি এবং চওড়া ২ ইঞ্চি। তবে কালের বিবর্তনে জৌলুস ম্লান হয়েছে অনেকটা।

শিগিগরই মসজিদটি সংস্কার করা হবে বলে জানিয়েছেন, বেতাগী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং মসজিদের সভাপতি মো. সুহৃদ সালেহীন। 

মসজিদ ঘিরে রয়েছে অনেক অলৌকিক কাহিনী, নানা ইতিহাস। তা জানতে প্রতিদিনই আসছেন দর্শনার্থীরা। যোগাযোগ ব্যবস্থার উন্নয়ন এবং পর্যটক বান্ধব পরিবেশ গড়ে তোলা হলে পর্যটকের সংখ্যা আরো বাড়বে বলে মনে করছেন বেতাগী প্রেসক্লাবের সাবেক সভাপতি মো: আব্দুস সালাম সিদ্দিকী। 

তিনি বলেন, এখানে যাওয়ার রাস্তাটি সংস্কার করা হলে পর্যটকের আনাগোনা আরও বাড়বে। মসজিদটিকে দক্ষিণবঙ্গের অন্যতম পর্যটন স্পট হিসেবে গড়ে তোলা সম্ভব বলেও জানিয়েছেন তিনি।  
দেখুন ভিডিও :

এসবি/ এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি