ঢাকা, বুধবার   ১৭ জুলাই ২০১৯

প্রশ্ন ফাঁসের অপতৎপরতা থেকে বিরত থাকার আহ্বান র‌্যাব ডিজির 

 প্রকাশিত: ১৩:৫০ ৩০ জানুয়ারি ২০১৯   আপডেট: ০০:১১ ২৮ মে ২০১৯

ছাত্র, শিক্ষক, অভিভাবকদের প্রশ্ন ফাঁসের অপতৎপরতা থেকে বিরত থাকার আহ্বান জানিয়েছেন র‌্যাবের মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ। ইতিমধ্যে প্রশ্নফাঁস রোধে গোয়েন্দা নজরদারি শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।    

বুধবার রাজধানীর কারওয়ানবাজারে র‌্যাব মিডিয়া সেন্টারে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ কথা জানান।

আগামী ২ ফেব্রুয়ারি থেকে শুরু হতে যাচ্ছে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষা। প্রতিবছর এসব পরীক্ষায় একটি অসাধু চক্র প্রশ্নফাঁসের ঘটনা ঘটিয়ে থাকে। এসব প্রতারক চক্রকে ধরতে এবার সাইবার ওয়ার্ল্ডে নজরদারি শুরু করেছে র‌্যাব। তারা এই অপতৎপরতা রোধে অপারেশন চালাবে।  

সংবাদ সম্মেলনে র‌্যাব ডিজি বলেন,‘প্রশ্নফাঁস রোধে ইতোমধ্যে আমরা গোয়েন্দা নজরদারি শুরু করেছি। সাইবার পেট্রোলিং চলছে, চালানো হবে আন্ডারকাভার অপারেশন। ইতোমধ্যে র‌্যাব কার্যক্রম শুরু করেছে। ২/১ দিনের মধ্যে ফলাফল পাবেন আপনারা।’

র‍্যাব মহাপরিচালক বেনজীর আহমেদ বলেন, ‘আমি এসএসসি পরীক্ষার্থীর অভিভাবকদের বলবো, আপনারা প্রশ্নপত্রের পেছনে দৌড়াদৌড়ি করবেন না। শিক্ষকদের উদ্দেশে বলছি, আপনারা এ ধরনের কাজের সঙ্গে যুক্ত হবেন না। শিক্ষার্থীদের বলছি, কেউ যদি এ ধরনের কোনো কাজের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট থাকে তাহলে তাদেরকে আমরা গ্রেফতার করব। শিক্ষার্থীদের গ্রেফতার করলে তাদের শিক্ষাজীবন বিনষ্ট হয়ে যাবে, আমরা এমনটা করতে চাই না। তাই তাদের এসব থেকে দূরে থাকার আহ্বান জানাচ্ছি।’

র‌্যাব সদস্যরা প্রতিটি পরীক্ষা হলে পরিদর্শন করবেন। অভিভাবক, শিক্ষার্থী ও শিক্ষকদের সঙ্গে কথা বলবেন। তাদের কাছে কোনো তথ্য থাকলে সেগুলো নিয়ে কাজ করবেন বলে জানান বেনজীর আহমেদ।

তিনি বলেন, ‘র‌্যাবের সোশ্যাল মিডিয়া এবং অ্যাপস সবকিছুতেই খেয়াল রাখার সক্ষমতা রয়েছে। প্রশ্নফাঁস ঠেকাতে র‍্যাবের অন্যান্য গোয়েন্দা বাহিনীর সমন্বয়ের সোশ্যাল মিডিয়া মনিটরিং করা হবে। গত বছর প্রশ্নপত্র ফাঁস সংক্রান্ত ঘটনায় ১২৮ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এ বছর একইভাবে অভিযান চলবে।’

এসি  

  

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি

শিরোনাম