ঢাকা, বুধবার   ১৯ জুন ২০২৪

বাঁচতে চায় শিশু আহনাফ, সাহায্যের প্রয়োজন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৪৫, ৩ জুন ২০২৪

আহনাফের বয়স ৬ বছর। যে সময়টায় তার ছুটোছুটি আর স্কুলে যাওয়ার কথা সেখানে সে শুয়ে আছে হাসপাতালের বেডে। তার ছোট্ট শরীর জুড়ে রয়েছে নানা চিকিৎসার যন্ত্রপাতি।

কি কষ্ট ছোট্ট শরীরটায়! আহনাফ সুস্থ হয়ে বাঁচতে চায়। অন্য শিশুদের মত সেও স্কুলে যেতে চায়। মা-বাবার আদর পেয়ে বড় হয়ে পৃথিবী দেখতে চায়। কিন্তু কিভাবে?  

শিশু আহনাফের মা আলেয়া জানান, মাহিউর রহমান আহনাফ জন্মগতভাবে থ্যালাসেমিয়া মেজর নামক রক্ত রোগে আক্রান্ত। যার জন্য প্রতি মাসে অন্যের রক্ত নিয়ে বেঁচে থাকতে হয়। এই রোগ থেকে সুস্থ হওয়ার একমাত্র উপায় বোনম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট। 

তিনি আরও জানান, চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী গত ১২ ডিসেম্বর ভারতের হারিয়ানা প্রদেশের গুরুগ্রামের ফোর্টিজ হাস্পাতালে ডা. বিকাশ দুয়ার অধীনে তার বোনম্যারো ট্রান্সপ্লান্ট করা হয়। ট্রান্সপ্লান্টের ১১৫ দিন পর্যন্ত সবকিছুই ঠিক ছিল কিন্তু প্রোটোকল শেষ হওয়ার চারদিন আগে ৬ এপ্রিল থেকে কমপ্লিকেশন শুরু হয়। যা GVHD ও CMV ভাইরাস নামে পরিচিত।

আহনাফের মা বলেন, এমতাবস্থায় আমাদের আশি লাখ টাকার উপর খরচ হয়ে গেছে। এই চিকিৎসার একেকটি ইঞ্জেকশন অনেক ব্যয়বহুল এবং আহনাফের শারীরিক অবস্থা বিবেচনা করে ডাক্তার তাকে পুনরায় আইসিইউতে ভর্তি করান। এই চিকিৎসা চালানোর জন্য আরও ২৫ হাজার ডলার প্রয়োজন। কিন্তু এই অবস্থায় পরিবারের পক্ষে এই চিকিৎসার ব্যয় বহন করা অসম্ভব হয়ে পরেছে। 

ইঞ্জেকশন সঠিক সময়ে দিতে পারলে আহনাফ সুস্থ হয়ে উঠবে বলে জানিয়েছেন চিকিৎসক। 

এমতাবস্থায় আফনাফের মা সকলের কাছে আর্থিক সহযোগিতা ও দোয়া প্রার্থনা করছেন।

(Aleya Ferdaushi, AC no - 2311208983001, Rauting no-225262531; City Bank, Kawran Bazar Branch, Dhaka. বিকাশ ও নগদ নম্বর- 01891965854.

এএইচ


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি