ঢাকা, বুধবার   ১৬ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বিগ বসের অন্দরমহলে চমক

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৩:২৯ ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯

ভারতীয় টেলিভিশনের জনপ্রিয় রিয়্যালিটি শো ‘বিগ বস’। অনুষ্ঠানটি ১০ বছর ধরে উপস্থাপনা করে আসছেন সালমান খান। এবারও তিনি অনুষ্ঠানটি শুরু করতে যাচ্ছেন। আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর থেকে শুরু হওয়া এ শো নিয়ে দর্শকদের মধ্যে বেশ উত্তেজনা শুরু হয়েছে। বরাবরই বিগ বসের বাড়ি নিয়ে মানুষের মধ্যে কৌতুহল কাজ করে। কি আছে এই বাড়িতে? কেমন হবে সাজ? ইত্যাদি ইত্যাদি।

এবারের সেই কৌতুহলের অবসান ঘটুক। জেনে নিন এই অন্দরমহলের যাবতীয় সাজগোজ সম্পর্কে।

এ বছর ১৮ হাজার ৫০০ বর্গ ফুট এলাকা জুড়ে রয়েছে বিগ বসের এই বাড়ি। মোট ৯৩টি ক্যামেরা থাকছে এখানে। বাথরুম ছাড়া প্রতিযোগীরা বাড়ির যে প্রান্তেই যান না কেন বিগ বসের চোখ এড়াতে পারবেন না।

বিগ বসের বাড়ির মূল দরজা যখন খুলে যাবে তখন এক এক করে ভিতরে ঢুকবেন প্রতিযোগীরা। সদর দরজা আর বিগ বস হাউসের মধ্যে দূরত্ব মাত্র ২০ ফুট। আর এই ২০ ফুট দূরত্ব জুড়ে রয়েছে সবুজ বাগান।

এই দূরত্ব পেরিয়ে গিয়েই প্রতিযোগীরা পৌঁছে যাবেন বৈঠকখানায়। এই বৈঠকখানাই হল বিগ বসের ‘হৃদয়’। এই লিভিং রুমেই প্রতিযোগীদের বিভিন্ন টাস্ক দেওয়া হবে। এই লিভিং রুমে বসেই তারা একে অপরের প্রতি ক্ষোভ-ভালবাসা জাহির করবেন। তাই সবচেয়ে বেশি সাজানো-গোছানো করা হয়েছে বিগ বসের লিভিং রুমটি।

বিগ বসের এই রুমটির ছাদ যেন উল্টানো। দাবার বড় বড় ঘুঁটি উল্টো হয়ে যেন ঝুলছে সেখানে। এবারে বিগ বসের পুরো বাড়িটাই অন্যবারের তুলনায় একটু অন্যভাবে সাজানো হয়েছে। সারা বাড়িতেই সেটা নজরে পড়বে।

কনফেশন রুম। অন্য প্রতিযোগী সম্বন্ধে কে কী ভাবেন, সব কিছু শেয়ার করার ঘর হলো এটি। বসার জন্য একটাই জায়গা রয়েছে এই ঘরে। পুরো ঘরটি রহস্যময় করে সাজানো হয়েছে।

রান্নাঘর, বিগ বসের বাড়ির সবচেয়ে প্রয়োজনীয় অংশ। রান্নাঘরের দেওয়ালেও কাপ-প্লেট দিয়ে সাজানো। উপর থেকে যতগুলো আলো ঝুলছে, সেগুলোর গায়েও কাপ আর প্লেট লাগানো। এমন রান্নাঘর পেয়ে এবার প্রতিযোগিদের মন ভরে যাবে।

অত্যন্ত রঙিন এবারের বিগ বসের বাড়িটি। খাবারের জায়গাটিও সেভাবেই সাজানো হয়েছে। উপরের অংশটি কাঁচ দিয়ে তৈরি। এর সঙ্গে লটকে দেওয়া হয়েছে একটি গাছ। যা খাবার টেবিলের দিকে তাকিয়ে আছে। দেওয়ালে সুন্দর করে আঁকা রয়েছে নানান কিছু। শ্বেত-শুভ্র চেয়ারগুলোতে পশমের গদি লাগানো।

সারাদিনের ক্লান্তির পর প্রতিযোগীদের অন্যতম ভাল লাগার জায়গা হলো বেডরুম। নরম বিছানায় দিনের সমস্ত ক্লান্তি মুছে ফেলার একমাত্র জায়গা। প্রতিবারেই কিছু না কিছু টুইস্ট থাকে বিগ বসের বাড়িতে। এবারেও রয়েছে। এবারে প্রতিযোগীর জন্য কোন আলাদা বিছানা থাকছে না। একটি বিছানা তিনজন কিংবা দুইজনকে শেয়ার করতে হবে।

বিগ বসের বাড়ি শুধু যে আধুনিক করা হয়েছে তাই নয়, দিনের পর দিন প্রতিযোগীরা বাইরের জগৎ থেকে সম্পূর্ণ বিচ্ছিন্ন হয়ে এই বাড়িতেই কাটাবেন। সুতরাং মানসিক স্বাস্থ্যের সঠিক যত্ন নেওয়ারও প্রয়োজন তাদের। তাই বাড়ির বিভিন্ন অংশে প্রচুর গাছ লাগানো হয়েছে।

এএইচ/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি