ঢাকা, শুক্রবার   ২৯ মে ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ১৬ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলে করণীয়

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:২৯ ১০ নভেম্বর ২০১৮

মানব শরীর তড়িতের সুপরিবাহী। তাই বিদ্যুৎ প্রবাহ আছে এমন কোনও খোলা তার বা বোর্ডের সংস্পর্শে এলে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন অনেকেই। বিদ্যুতের প্রাবল্যের উপর মানুষের বেঁচে থাকাও নির্ভর করে। খুব কম সময়ে শরীরে অনেকটা বিদ্যুৎ চলে গেলে সেই মানুষের তখনই মৃত্যু হতে পারে।

তখন সামনে দাঁড়িয়ে থাকলেও অনেক সময় প্রায় কিছুই করা যায় না। কারণ ঠিক কী উপায় অবলম্বন করলে সহজেই এমন পরিস্থিতির সঙ্গে লড়া যায় তা নিয়ে কোনও স্পষ্ট ধারণা আমাদের নেই। আসুন দেখে নেওয়া যাক হঠাৎ বিদ্যুৎ আক্রান্ত হলে কী করবেন-

১) কেউ বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হলে তার গায়ে হাত দেবেন না। গায়ে পানিও দেবেন না। বরং ধাক্কা দিয়ে সরিয়ে দিন। ধাক্কা দেওয়ার সময় কাঠের টুকরা, খবরের কাগজ অথবা রাবার জাতীয় তড়িৎ অপরিবাহী বস্তু দিয়ে সজোরে আঘাত করে সরান। তাতে বিদ্যুতের উৎস থেকে সেই ব্যক্তির ছিটকে যাওয়া সম্ভব হবে।

২) দ্রুত মেন সুইচ বন্ধ করুন। অনেক সময় এই মেন সুইচ বন্ধ করতে গিয়ে যে সময় নষ্ট হয়, তাতেই প্রাণ চলে যায় বিদ্যুস্পৃষ্ট ব্যক্তির। তাই সামনে থাকলে তাকে বিদ্যুতের উৎস থেকে সরানোর চেষ্টাই প্রথম করুন, সঙ্গে অন্য কাউকে নির্দেশ দিন মেন সুইচ বন্ধ করার। একান্ত সে উপায় না থাকলে বা হাতের কাছে তড়িৎ অপরিবাহী কিছু না মিললে দ্রুত মেন সুইচ বন্ধের দায়িত্ব নিন।

৩) বিদ্যুৎ থেকে মুক্তি পেলেও অনেক সময় ব্যক্তির শ্বাসপ্রক্রিয়া বন্ধ হয়ে যায়। তেমন হলে বুকের উপর জোরে চাপ দিয়ে হৃদযন্ত্র চালু করুন।

৪) রোগীকে দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার ব্যবস্থা করুন।

৫) বিদ্যুতের উৎস থেকে সরাতে পারলে সঙ্গে সঙ্গে গরম দুধ ও গরম পানি খাওয়ান আক্রান্ত ব্যক্তিকে। এতে শরীরের রক্ত সঞ্চালন দ্রুত স্বাভাবিক হবে।

বিদ্যুতিক কাজ করার আগে যে সব বিষয়ে সাবধান হবেন-

১) বিদ্যুতের কাজ করার সময় মেন সুইচ বন্ধ করে নিন।

২) পায়ে রাবারের জুতা পরে বিদ্যুতের কাজ করুন।

৩) কোনওভাবেই পানি হাতে বৈদ্যুতিক সুইচে হাত দেবেন না।

৪) খোলা তার এড়িয়ে চলুন, বর্ষায় পানি জমে থাকা রাস্তার ভিতরে খালি পায়ে হাঁটাচলা করবেন না।

৫) বাড়ির সব ক’টি বৈদ্যুতিক তার ও আর্থিং ঠিক আছে কি-না খতিয়ে দেখে নিন।

তথ্যসূত্র: আনন্দবাজার

এমএইচ/


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি