ঢাকা, শনিবার   ২৪ অক্টোবর ২০২০, || কার্তিক ৯ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

মর্গে পড়ে থাকা অভিনেত্রী মিনুর পাশে শিল্পী সংঘ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:৫৬ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ | আপডেট: ১৫:০২ ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন টিভি ও চলচ্চিত্র অভিনেত্রী মিনু মমতাজ। মঙ্গলবার (২২ সেপ্টেম্বর) দুপুর ১টার দিকে তিনি রাজধানীর গ্রীন লাইফ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মৃত্যুবরণ করেন। কিন্তু মৃত্যুর পরে স্বজনদের কেউই তার খবর নেননি। ফলে হাসপাতাল মর্গেই পড়ে ছিল তার মরদেহ। প্রায় ৩ লাখ টাকা বিল বকেয়া থাকায় সন্তানরা কেউ এগিয়ে আসেননি বলে জানা গেছে। এ সংবাদ শুনে অবশেষে এগিয়ে এসেছে শিল্পী সংঘ।

হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, অভিনেত্রীর মৃত্যুর খবর জানার পরও সারাদিন পরিবার ও স্বজনদের কেউ তার খবর নেননি। প্রায় ৩ লাখ টাকা বিল পরিশোধ করতে হবে শুনেই তার সন্তানরা কেউ এগিয়ে আসেননি।

এ বিষয়ে নির্মাতা-গীতিকবি এসএ হক অলিক গণমাধ্যমকে বলেন, ‘ব্যাপারটি আসলেই দুঃখজনক। তবে, এরই মধ্যে শিল্পী সংঘের উদ্যোগে এই সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। মঙ্গলবার রাতে শিল্পী সংঘ’র সভাপতি শহীদুজ্জামান সেলিম ভাই হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেছেন। আর বুধবার সকালে শিল্পী সংঘ’র সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব নাসিম ভাই সেখানে গিয়ে সমস্যার সমাধান করেছেন। মিনু মমতাজের পরিবারের লোকজনেরাও এসেছিলেন।’

তিনি আরও জানান, ‘শিল্পী সংঘের পক্ষ থেকে ১ লাখ এবং অভিনেত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে ১ লাখ টাকা দিয়ে সমস্যার সমাধান করা হয়েছে। শিল্পী সংঘের অনুরোধে বাকি ১ লাখ টাকা ছাড় দিয়েছেন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।’

অলিক আরও জানান, অভিনত্রী মিনু মমতাজকে বুধবার (২৩ সেপ্টেম্বর) বাদ জোহর মিরপুর করবস্থানে চিরনিদ্রায় শায়িত করা সিদ্ধান্ত হয়।

জানা গেছে, গত ৪ সেপ্টেম্বর মিনু মমতাজকে করোনা সন্দেহে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। টেস্ট করা হলে করোনা পজিটিভ আসে। এরপর ২২ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত তাকে করোনা ইউনিটে বিশেষ চিকিৎসা দেওয়া হয়। এদিন দুপুরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান।

উল্লেখ্য, দীর্ঘদিন টিভি নাটকে নিয়মিত অভিনয় করেছেন মিনু মমতাজ। কাজ করেছেন অনেক সিনেমায়ও। অনেকদিন ধরেই কিডনি ও চোখের সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি।
এসএ/
 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি