ঢাকা, শুক্রবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ৯ ১৪২৮

মাত্র তিন টাকা খরচে ৬শ’ লিটার বিশুদ্ধ অক্সিজেন (ভিডিও)

বগুড়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৬:২৪, ১৩ সেপ্টেম্বর ২০২১

মাত্র তিন টাকার বিদ্যুৎ খরচে প্রতি ঘণ্টায় উৎপাদন করা যাবে ৬শ’ লিটার বিশুদ্ধ অক্সিজেন। যা একই সময়ে কমপক্ষে ২০ জন করোনা রোগীকে দেয়া সম্ভব। এই অক্সিজেন তৈরির যন্ত্র উদ্ভাবন করেছেন বগুড়ার প্রকৌশলী মাহমুদুন নবী বিপ্লব। সরকারের অ্যাকসেস টু ইনফরমেশন (এটুআই) বিভাগে যন্ত্রটি এখন আনুষ্ঠানিক স্বীকৃতির অপেক্ষায়।

করোনার এই দুঃসময়ে অক্সিজেন সরবরাহের ঘাটতি অনেকের জীবন বিপন্ন করে তুলেছে। দেশের এমন পরিস্থিতিতে দেশীয় প্রযুক্তিতে সিলিন্ডারবিহীন অক্সিজেন তৈরির যন্ত্র উদ্ভাবন করেছেন মাহমুদুন নবী বিপ্লব। তার এই যন্ত্র দিয়ে প্রতি ঘণ্টায় উৎপাদন করা যাবে ৬শ’ লিটার অক্সিজেন।

বগুড়া পলিটেকনিক ইনস্টিটিউটের সাবেক এই শিক্ষার্থীর উদ্ভাবিত যন্ত্রটির নাম ‘অক্সিজেন কনসেন্ট্রেটর’। এতে ব্যবহার হয়েছে মৃদু শব্দের কম্প্রেসর, কপার টিউব, ডাস্ট ফ্রি এয়ার ফিল্টার, হাইপ্রেসার কন্ট্রোলিং ডিভাইস এবং ইন্টারনেট। ৩০ কেজি ওজনের যন্ত্রটি ট্রলির মাধ্যমে সহজেই বহনযোগ্য।

বগুড়ার যন্ত্র প্রকৌশলী মাহমুদুন নবী বিপ্লব বলেন, যেহেতু কনসেন্ট্রেটরটা নিজেই নিজেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে ন্যাচারাল বাতাস থেকে অক্সিজেন তৈরি করবে এবং এই অক্সিজেন রোগীকে সরবরাহ করতে খুব সহজ একটা পদ্ধতি। ইচ্ছে করলে বাসায় নিয়েও এই অক্সিজেন ব্যবহার করা যাবে।

প্রকৌশলী মাহমুদুন নবী জানালেন, দেশের যে কোনো অঞ্চলে এটি ব্যবহার করা যাবে। বিদ্যুৎ চলে গেলেও রিজার্ভ ট্যাংকের রক্ষিত অক্সিজেন দিয়ে অতিরিক্ত সাত মিনিট রোগীকে সেবা দেয়া সম্ভব।

মাহমুদুন নবী বিপ্লব বলেন, একঘণ্টা চললে এই মেশিনটির বিদ্যুৎ খরচ হবে তিন থেকে চার টাকা।

এদিকে, সরকারি-বেসরকারি হাসপাতালে এই অক্সিজেন যন্ত্র সুফল বয়ে আনবে বলে মনে করেন চিকিৎসকরা। 

বগুড়ার শজিমেক হাসপাতালের আবাসিক সার্জন ডা. লোকমান হোসেন জুয়েল বলেন, এই ধরনের উদ্যোগকে অবশ্যই সাধুবাদ জানাই। করোনার সময়ে একমাত্র অক্সিজেনই রোগীর জীবন বাঁচাতে সবচেয়ে বেশি ভূমিকা পালন করে।

পোর্টেবল এই মেশিনের দাম ৬০ থেকে ৭০ হাজার টাকা। অক্সিজেন যন্ত্র ছাড়াও বন্যার আগাম তথ্য জানানোর যন্ত্র, ডিসি ভেন্টিলেশন ও বেবী ইউরিন এলার্ম সিস্টেম উদ্ভাবন করেছেন প্রকৌশলী মাহমুদুন নবী বিপ্লব।

ভিডিও-

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি