ঢাকা, মঙ্গলবার   ১০ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৬ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মানিকগঞ্জে শুল্ক ফাঁকি দেয়া তামাক বোঝাই ট্রাক আটক

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:৩৩ ২০ নভেম্বর ২০১৯

মানিকগঞ্জের পাটুরিয়া ফেরিঘাট এলাকা থেকে তামাক বোঝাই একটি ট্রাক (কুষ্টিয়া ট ১১-০১১) আটক করেছে জাতীয় রাজস্ব বোর্ড (এনবিআর)। আজ বুধবার ওই ট্রাক থেকে সরকারের শুল্ক ফাঁকি দিয়ে অবৈধ সিগারেট তৈরির উদ্দেশ্যে নিয়ে যাওয়া ১২ কাটুন কাট র‌্যাগ (কাট টোব্যাকো) উদ্ধার ও দুইজনকে আটক করা হয়।

রাজস্ব বোর্ড জানিয়েছে, কুষ্টিয়ার গ্লোবাল লিফ টোব্যাকো কোম্পানি থেকে মানিকগঞ্জের আরিচার বিউটি টোব্যাকো কোম্পানির কাছে তামাক নিয়ে যাওয়ার সময় পাটুরিয়া ফেরি ঘাট থেকে ট্রাকটি আটক করা হয়। এতে প্রায় দুই মেট্রিক টন অবৈধ সিগারেট তৈরীর কাঁচামাল (কাট টোব্যাকো) ছিল।

জাতীয় রাজস্ব বোর্ডের সহকারী রাজস্ব কর্মকর্তা আহমেদ সোলাইমান বলেন, ‘আগামীকাল ভ্যাট আইনের আওতায় প্রতিষ্ঠানের বিরুদ্ধে মামলা করবে রাজস্ব বোর্ড। এই মামলায় যে জরিমানা করা হবে তা দিয়ে আটককৃতদের ছাড়িয়ে নিয়ে যেতে পারবে প্রতিষ্ঠানটি।’ 
গত ২৯ আগষ্ট রাজধানীর ওয়ারী থানা এলাকা থেকে এই একই কোম্পানীর (গ্লোবাল লিফ টোব্যাকো) কাট টোব্যাকোসহ ত্রিপল দিয়ে মোড়ানো অবস্থায় শুল্ক ফাঁকি দেয়া তামাক বোঝাই একটি ট্রাক জব্দ করেছিলো র‌্যাব-৩। পরে শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতরে হস্তান্তর করা হয়।

সরকারের কঠোর ব্যবস্থা ও পদক্ষেপের পরও গ্লোবাল লিফ টোব্যাকোর মতো অবৈধ কোম্পানীগুলো এ কাজ করে চলেছে। ফলে রাজস্ব ফাঁকি দেয়া এসব কোম্পানীর বিরুদ্ধে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা না নিলে সরকারের রাজস্ব আহরণের লক্ষ্যমাত্রা পূরণ হবে না মনে করেন বাজার সংশ্লিষ্টরা।

উল্লেখ্য, সরকারের মোট রাজস্ব আয়ের অন্তত ১০ শতাংশ তামাক খাত থেকে আসে। বর্তমানে দেশের বাজারে প্রায় অর্ধশতাধিক অবৈধভাবে উৎপাদিত বিভিন্ন ব্র্যান্ডের সিগারেট রয়েছে। আটককৃত এসব শুল্ক ফাঁকি দেয়া কাট টোব্যাকো অবৈধ সিগারেট উৎপাদনেই ব্যবহৃত হয়। ফলে সরকার বছরে প্রায় তিন হাজার কোটি টাকা রাজস্ব হারাচ্ছে।

আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি