ঢাকা, সোমবার   ১৯ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মিন্নির গ্রেফতার ও রিমান্ডের বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২০:৪৪ ২৫ জুলাই ২০১৯

আয়েশা সিদ্দিকা মিন্নিকে গ্রেফতার, রিমান্ডে নেওয়া এবং ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দির বৈধতা চ্যালেঞ্জ করে হাইকোর্টে রিট আবেদন করা হয়েছে। এ ছাড়া এই আবেদনে মামলার প্রধান আসামি নয়ন বন্ডকে ক্রসফায়ারে হত্যার ঘটনায় বিচার বিভাগীয় তদন্তও চাওয়া হয়েছে।

আজ বৃহস্পতিবার সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী ড. ইউনুছ আলী আকন্দ এই আবেদন করেন। এ আবেদনে মামলাটি পিবিআই অথবা সিআইডিকে দিয়ে তদন্তের নির্দেশনা চাওয়া হয়েছে। 
বিচারপতি এফআরএম নামজুল আহাসান ও বিচারপতি কে এম কামরুল কাদেরের হাইকোর্ট বেঞ্চে এ আবেদন করা হয়েছে। আবেদনে স্বরাষ্ট্র ও আইন সচিব, পুলিশের আইজি, পুলিশের ডিআইজি (বরিশাল), বরগুণার এসপিসহ ৭ জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ২৬ জুন প্রকাশ্য দিবালোকে বরগুনা সরকারি কলেজের সামনে সন্ত্রাসীরা কুপিয়ে রিফাত শরীফকে হত্যা করে। এ ঘটনায় নিহত রিফাতের পিতা আব্দুল আলিম দুলাল শরীফ বাদী হয়ে মামলা করেন। মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রিফাত ফরাজী, টিকটক হৃদয়সহ বেশ কয়েকজন আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। প্রধান আসামি নয়ন বন্ড ক্রসফায়ারে নিহত হন। 

গত ১৬ জুলাই রাতে রিফাত শরীফের স্ত্রী মিন্নিকে গ্রেফতার করে পরদিন তাকে ৫ দিনের রিমান্ডে নেয় পুলিশ। রিমান্ড শেষ হওয়ার আগেই গত ১৯ জুলাই ম্যাজিস্ট্রেটের কাছে ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দী দেয় মিন্নি। এরপর তাকে কারাগারে পাঠানো হয়। এ অবস্থায় মিন্নির আইনজীবীরা ২১ জুলাই ম্যাজিস্ট্রেট আদালতে তার জামিনের আবেদন করলে আদালত তা খারিজ করে দেয়। মিন্নিকে ওইদিন আদালতে হাজির করার আবেদন করা হলেও আদালত সে আবেদনও খারিজ করে। 

আগামী ৩০ জুলাই বরগুনার জেলা ও দায়রা জজ আদালতে মিন্নির জামিন আবেদনের ওপর শুনানির দিন ধার্য রয়েছে।

এমএস/এসি
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি