ঢাকা, শুক্রবার   ১৩ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

মিশাকে ওমর সানী

মৌসুমী বলেছে এইভাবে ধর্ষণ কর, এটা কোন ধরনের কথা

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:১৫ ৪ এপ্রিল ২০১৮ | আপডেট: ২১:১২ ৪ এপ্রিল ২০১৮

পূর্ণিমা-মিশা সওদাগরের ধর্ষণ নিয়ে খোলামেলা আলোচনা নিয়ে সমালোচনার ঝড় এখনও থামে নি। এতে নতুন পারদ যোগ করেছেন আরেক অভিনেতা ওমর সানী। গতকাল মঙ্গলবার ফেসবুক লাইভে এসে তিনি এ নিয়ে নিজের অভিমত ব্যক্ত করেন। এতে তিনি ধর্ষণ নিয়ে এমন মন্তব্য করায় পূর্ণিমা ও মিশা উভয়ের প্রতি ক্ষোভ প্রকাশ করেন।  
মৌসুমী-ওমর সানী দম্পত্তির পরিবারের সঙ্গে মিশার ঘনিষ্টতা দীর্ঘদিনের। মিশা ওমর সানীকে বেস্ট ফ্রেন্ড বলে সর্বত্র জাহির করেন। দু’জন দু’জনকে তুই সম্বোধন করেন। যদিও গতবার শিল্পী সমিতির নির্বাচনকে কেন্দ্র করে তাদের মধ্যে কিছুটা দূরত্ব সৃষ্টি হয়। তবে সম্প্রতি সম্পর্ক উন্নয়নের দিকে যাচ্ছিল। এরইমধ্যে একটি বেসরকারি স্যাটেলাইট চ্যানেলে এক অনুষ্ঠানে উপস্থাপকের নির্দেশনা অনুযায়ী চিত্রনায়িকা পূর্ণিমা খল অভিনেতা মিশা সওদাগরকে প্রশ্ন করেন, সিনেমায় কার সঙ্গে ধর্ষণের দৃশ্যে অভিনয় করতে ভালো লাগে। জবাবে মিশা বলেন, চিত্রনায়িকা মৌসুমী ও পূর্ণিমার সঙ্গে ধর্ষণ দৃশ্যে অভিনয় করতে এনজয় করেন। এ বিষয়ে তিনি আরও আপত্তিকর মন্তব্য করেন।
এর প্রতিক্রিয়ায় লাইভে মৌসুমীর স্বামী ওমর সানী মিশার ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন। মিশা বলেন, ‘মিশা আমার বেস্ট ফ্রেন্ড। শিল্পী সমিতির প্রেসিডেন্ট। আমার অসুস্থতার সময় সে বেশ ক`বার দেখতে এসেছে। এজন্য কৃতজ্ঞতা। মিশাকে উদ্দেশ করে ওমর সানী বলেন, তুই একজন শিক্ষিত মানুষ। তুই এতোবার মানুষের কাছে মাফ চাস, এটা আমার ভালো লাগে না, বেস্ট ফ্রেন্ড বলেই ভালো লাগে না।’
সানি আরও বলেন, ‘তুই বলিস, মৌসুমী আমার গুড ফ্রেন্ড; সানী আমার গুড ফ্রেন্ড। তার জন্য মৌসুমী বলেছে এইভাবে ধর্ষণ কর, এইটা কোন ধরনের উত্তর দেওয়া? আমি জানি তুই কোনো ইনটেনশন থেকে উত্তর দেস নি, তবে উত্তর দেওয়ার স্টাইলটা আরও বেটার হওয়া দরকার ছিল।’
চিত্রনায়িকা পূর্ণিমাকে ছাড় দেননি ওমর সানি। বলেন, তোমার কাছে এটা আশা করিনি পূর্ণিমা, তুমি আমার কাছে একজন স্নেহভাজন মানুষ। আমি তোমাকে একজন ভালো অভিনেত্রী হিসেবে জানি। তোমাকে সঞ্চালক বলল আর তোমাকে এটা প্রশ্ন করতে হবে কেন? কী কারণে? ডেফিনিটলি এ ধরনের প্রশ্ন তোমার বিবেককে নাড়া দেওয়া উচিত ছিল। এটা হচ্ছে তোমার ব্যাপারে আমি বললাম এবং ভালো থাকবে তুমি সবসময়।
ওমর সানী বলেন, আমি পেছনের মানুষগুলোর দিকে দৃষ্টিপাত দিই। টেলিভিশন চ্যানেলগুলো আমাদের জীবনের অংশ। সঞ্চালক আমাদের নানা কিছু বলতে পারে তাই বলে আমাদের সেটা বলে দিতে হবে? আমাদের বিবেকবোধ আছে। সেটা দিয়ে বিবেচনা করতে হবে।
ওমর সানী বলেন, এমনি চলচ্চিত্রের নাক ছিটকানো অবস্থা, এর সংসার টিকে না ওর ধর্ষণ। তার মধ্যে এমন প্রশ্ন। আমি বলি আপনারা বিবেককে খাটান। বারবার আমি একটা কথা বলেছি, এটা ইউরোপ না, ল্যাটিন আমেরিকা না, অস্ট্রেলিয়া না। যেখানে ৯৫ ভাগ মুসলিম সেখানে আমাদের ব্যালান্স করে কথা বলতে হবে। এখানে আমরা হিন্দু মুসলিম, বৌদ্ধ খ্রিস্টান সবাইকে মিলেমিশে বসবাস করতে হবে।

এ সংক্রান্ত আরও খবর

তুই এতোবার মাফ চাস, এটা আমার ভালো লাগে না

মিশা-পূর্ণিমার ‘ধর্ষণ প্রসঙ্গ’ ভাইরাল

মিশা-পূর্ণিমার ‘ধর্ষণ প্রসঙ্গ’ ভাইরাল
/এআর/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি