ঢাকা, সোমবার   ১৮ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ৪ ১৪২৭

শিল্পকলায় ‘সৃষ্টি-মীনাবাজার নৃত্যনাট্য উৎসব’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৬:৫২, ২৩ অক্টোবর ২০১৭

বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিতে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে ‘সৃষ্টি-মীনাবাজার নৃত্যনাট্য উৎসব ২০১৭’। আগামী ১ নভেম্বর থেকে ৪ নভেম্বর পর্যন্ত চলবে এ উৎসব।

উৎসব উপলক্ষ্যে শিল্পকলা একাডেমির জাতীয় নাট্যশালা মিলনায়তনে ১ নভেম্বর প্রদর্শিত হবে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত ‘তাসের দেশ’, ২ নভেম্বর রাধা কৃষ্ণের অমর প্রেম উপাখ্যান নিয়ে শেখ হাফিজুর রহমান রচিত ‘রাই কৃষ্ণ পদাবলী’, ৩ নভেম্বর আলীবাবা চল্লিশ চোরের কাহিনী থেকে নেওয়া ক্রীতদাস আবদুল্লাহ এবং অপরূপা সুন্দরী বাঁদী মর্জিনার প্রেম কাহিনী নিয়ে রচিত ‘বাঁদী-বান্দার রূপকথা’ এবং ৪ নভেম্বর জাতীয় শিল্পকলা একাডেমির এক্সপেরিমেন্টাল থিয়েটার হলে প্রদর্শিত হবে ময়মনসিংহ গীতিকা অবলম্বনে পদাবলী যাত্রা ‘সোনাই মাধব’। সবগুলো নৃত্যনাট্যই সন্ধ্যা ৭টা থেকে শুরু হবে।

নৃত্যনাট্যগুলোতে অভিনয় করবেন শিবলী মোহাম্মদ, শামীম আরা নিপা, আনিসুল ইসলাম হিরু, সুকল্যাণ ভট্টাচার্য, ডলি ইকবাল, সাবরিনা নিসা, লিয়াকত আলী লাকি, রোকসানা আক্তার রূপসা, জাহিদুল কবির লিটন, ওয়ার্দা রিহাব, সাব্বির আহমেদ খান বিজুসহ প্রথিতযশা অভিনেতা, অভিনেত্রী এবং নৃত্যশিল্পীবৃন্দ।

উৎসব উপলক্ষ্যে এক সংবাদ সম্মেলন করা হয়। এতে উপস্থিত ছিলেন নৃত্যশিল্পী শামীম আরা নিপা, আনিসুল ইসলাম হিরু, মিনাবাজারের সিইও শাহীন খান, ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশের ইংরেজি বিভাগের প্রধান প্রফেসর সামসদ মূর্তজা এবং সাঈদ আহমেদ প্রমুখ।

সংবাদ সম্মেলনে নৃত্যশিল্পী এবং সৃষ্টি কালচারাল সেন্টার-এর পরিচালক আনিসুল ইসলাম হিরু বলেন, নাট্যউৎসবকে ঘিরে যেমন উন্মাদনা তৈরি হয় তেমনি আবহ তৈরিতে সৃষ্টি কালচারাল সেন্টার সচেষ্ট রয়েছে।

নিয়মিত এবং আরও বৃহৎ আঙ্গিকে এই উৎসব আয়োজনের জন্যও তারা চেষ্টা করে যাবেন বলে সংবাদ সম্মেলনে আশাবাদ ব্যক্ত করেন।

সংবাদ সম্মেলনে উপস্থিত মীনা বাজার-এর সিইও শাহীন খান বলেন, ‘দেশের বাইরে অপেরা কিংবা ব্রডওয়ে’তে যেভাবে এধরনের নৃত্যনাট্য নিয়ে উৎসাহ দেখায় সে ধরনের উদ্যোগ আমাদের দেশে নেই বললেই চলে। আর যারা নিচ্ছে এধরনের উদ্যোগ, পৃষ্ঠপোষকতার অভাবে সেগুলোও বড় কোন প্রভাব ফেলতে ব্যর্থ হচ্ছে। জেমকন গ্রুপ বরাবরই শিল্প-সাহিত্য, খেলাধুলায় পৃষ্ঠপোষকতা করে আসছে। তারই ধারাবাহিকতায় নৃত্যনাট্যের এই উৎসবকে এগিয়ে নিতে মীনা বাজার রয়েছে সৃষ্টি কালচারাল সেন্টারের এই আয়োজনের সাথে।

জেমকন গ্রুপ-এর সিএইচআরও এবং মীনা সুইটস-এর সিইও সাঈদ আহমেদ বলেন, দেশে নৃত্যশিল্প আজ অবহেলিত। এই রুগ্ন শিল্পকে আবারো জাগিয়ে তুলবে এই নৃত্যনাট্য উৎসব।

প্রফেসর সামসদ মর্তূজা বলেন, জেমকন-এর কনসার্ন ইউল্যাব এর নানা ধরনের কার্যক্রমের মধ্যে খেলাধুলা, শিল্প-সাহিত্য, বিতর্ক, নাট্যকলা এসবই রয়েছে। তারই অংশ হিসেবে ইউনিভার্সিটি অব লিবারেল আর্টস বাংলাদেশ, ইউল্যাব এই কার্যক্রমের সাথে যুক্ত থাকতে পেরে আনন্দিত।

একুশে পদকপ্রাপ্ত নৃত্যশিল্পী শামীম আরা নিপা টাইটেল স্পন্সর মীনা বাজার এবং কো-স্পন্সর কাজী এন্ড কাজী টি, মীনা সুউইটস, ইউল্যাব এবং সহযোগী বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমিকে ধন্যবাদ জানিয়ে বলেন, নৃত্যে এমন পৃষ্ঠপোষকতা অবহেলিত এই শিল্পকে নতুন করে আশাবাদী করে তুলেছে। তিনি অন্যদেরকেও নৃত্যশিল্পে এমন পৃষ্ঠপোষকতার জন্য এগিয়ে আসার আহবান জানান।

৪ দিনব্যাপী এই নৃত্যনাট্য উৎসবের টাইটেল স্পন্সর হিসেবে রয়েছে মীনাবাজার। সহযোগী স্পন্সর হিসেবে মীনা সুইটস, ইউল্যাব, অর্গ্যানিকেয়ার, কাজী এন্ড কাজী টি এবং সহযোগীতায় রয়েছে বাংলাদেশ শিল্পকলা একাডেমি।

সংবাদ বিজ্ঞপ্তি।

এসএ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি