ঢাকা, সোমবার   ১৪ জুন ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ৩০ ১৪২৮

শিল্পী মোহাম্মদ কিবরিয়ার মৃত্যুবার্ষিকী আজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৮:৪৪, ৭ জুন ২০২১

দেশের আধুনিক চিত্রকলা আন্দোলনের পথিকৃৎ শিল্পী মোহাম্মদ কিবরিয়ার দশম মৃত্যুবার্ষিকী আজ। ২০১১ সালের আজকের এই দিনে ৮২ বছর বয়সে তিনি মারা যান।

শিল্পী মোহাম্মদ কিবরিয়া ১৯২৯ সালের ১ জানুয়ারি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের বীরভূমে জন্মগ্রহণ করেন। স্কুলজীবনেই ছবি আঁকায় হাতেখড়ি তার। ১৯৪৫ সালে কলকাতা আর্ট স্কুলে ভর্তি হন তিনি। ১৯৫০ সালে স্নাতক ডিগ্রি অর্জনের পর ১৯৫৪ সালে ঢাকা আর্ট স্কুলে যোগ দেন। ১৯৯৭ সালে অবসর নেন।

তার ছবির প্রদর্শনী হয়েছে অনেক অনেকবার। সবচেয়ে স্মরণীয় একক প্রদর্শনীগুলো হয়েছিলো ১৯৬০ সালে টোকিওর গ্যালারি ইয়োসিদোতে, ১৯৬৩ সালে বিজুতসু শিপ্পানায়, ২০টি ছবি নিয়ে ১৯৭৯ সালে দিল্লিতে দক্ষিণ এশীয় সাংস্কৃতিক উৎসবে বিশেষ প্রদর্শনী এবং ঢাকায় বেঙ্গল ফাউন্ডেশনে ২০০০ সালে। একক প্রদর্শনী হোয়েছে জাপানের মারুচিনি ও যুগোস্লাভিয়ার দ্যে যোশেফ ব্রজ টিটো গ্যালারিতেও। যুক্তরাষ্ট্র, লাহোর, করাচি, কলকাতা, জাপানসহ অনেক যৌথ প্রদর্শনীতেও গেছে তার ছবি।

তিনি শিল্পকর্মে তার কৃতিত্বের স্বীকৃতিস্বরূপ একুশে পদক, স্বাধীনতা দিবস পুরস্কার, টোকিও স্টারলেম পুরস্কার, প্রাইড অব পারফরম্যান্স, প্রেসিডেন্ট পদক, চারুশিল্পী সংসদ-সম্মাননা, জাপানি পররাষ্ট্রমন্ত্রীর সম্মাননাসহ দেশ-বিদেশে অসংখ্য পুরস্কার ও সম্মাননায় ভূষিত হয়েছেন।

প্রসঙ্গত, প্রয়াত শিল্পী মোহাম্মদ কিবরিয়া একটি প্রজন্মের কাছে ‘বিস্ময়’, ‘আগ্রহ’ এবং অপর একটি প্রজন্মের কাছে স্মৃতি, শ্রদ্ধেয় শিক্ষক, সহকর্মী, শিল্পবন্ধু, গুরুজন। নিরবচ্ছিন্ন শিল্পসাধক মোহাম্মদ কিবরিয়া বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে বিমূর্ত চিত্রভাষাচর্চায় সার্থকতম শিল্পীদের মধ্যে অন্যতম। তিনিই সম্ভবত একমাত্র শিল্পী, যাঁর অনুসরণে অনেক নবীন শিল্পী কাজ করছেন (কিবরিয়া স্কুল বলে আখ্যায়িত করেন অনেকেই), অথচ শিল্পী নিজের বৈশিষ্ট্যে অপ্রতিরোধ্য সৃজনশীল।
এসএ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি