ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ১ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সাতক্ষীরায় নদী-খালের বাঁধ অপসারণে প্রতিবাদ সমাবেশ

সাতক্ষীরা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:৩৮ ১৩ সেপ্টেম্বর ২০১৯

কোথাও ছোট কোথাও বড় বেড়ি বাঁধ, নেট ও বাঁশের বেড়া ফেলে সাতক্ষীরার নদী ও খালের পানিপ্রবাহ বন্ধে প্রতিবাদ সমাবেশ করেছে নাগরিক সমাজ। এগুলো অপসারণ করতে সাত দিনের সময়সীমাও বেঁধে দিয়েছেন নাগরিক সমাজের ব্যক্তিবর্গ।

শুক্রবার দুপুরে সাতক্ষীরা সদর উপজেলার বেনেরপোতায় জেলা নাগরিক আন্দোলন মঞ্চ আয়োজিত এক প্রতিবাদ সমাবেশে এ সময়সীমা বেঁধে দেওয়া হয়। 

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘পানি চলাচলের পথ উন্মুক্ত না করা হলে জনগন বৈধ অবৈধ সব ধরনের বেড়িবাঁধ কেটে দিতে বাধ্য হবে। এতে যে কোনো ধরনের অপ্রীতিকর পরিস্থিতির সৃষ্টি হলে জনগন তার দ্বায় নেবে না। এমনিতেই পলি জমে শালিখা ও বেতনাসহ অন্যান্য নদীর তলদেশ উঁচু হয়ে পড়ায় নদীগুলো পানি ধারণ ক্ষমতা হারিয়েছে। বাঁধ সংলগ্ন সুইচগেটগুলো অকেজো হয়ে পড়েছে। তার ওপর পানির স্বাভাবিক গতিকে বাধা দিয়ে খাল ও নদীতে বেড়ি বাঁধ তৈরি করে অপরিকল্পিতভাবে মাছ চাষ করা হচ্ছে।’

জানা যায়, সাতক্ষীরার বেশ কয়েকটি গ্রাম ও বিল ডুবে যাওয়ায় মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রায় ব্যাহত হচ্ছে। এতে দিন দিন বিশাল পরিমানের ফসলি জমি নষ্ট হয়ে যাচ্ছে। 

জেলা নাগরিক আন্দোলন মঞ্চের সভাপতি অ্যাডভোকেট ফাহিমুল হক কিসলুর সভাপতিত্বে প্রতিবাদ সমাবেশে বলা হয় জেলা প্রশাসক এসব প্রতিবন্ধকতা অপসারণ করে এবং অবৈধ বাঁধ কেটে পানি প্রবাহ স্বাভাবিক করার ঘোষণা দিলেও তা বস্তবায়ন করা হয়নি।

সমাবেশে আরও বক্তব্য রাখে সুধাংশু শেখর সরকার, অধ্যাপক ইদ্রিস আলি, অ্যাডভোকেট শাহনেওয়াজ, প্রকৌশলী আবেদুর রহমান, অ্যাডভোকেট সালাহউদ্দিন ইকবাল লোদি, অজিত কুমার রাজবংশী, নির্মল কুমার রায়, নাগরিক আন্দোলন মঞ্চের সম্পাদক হাফিজুর রহমান মাসুম প্রমুখ।

এমএস/
 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি