ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৮ অক্টোবর, ২০১৮ ১৯:৫৯:৪৯

Ekushey Television Ltd.

সুপার হিরোর পর শাকিব-বুবলীর চালবাজি

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:০১ পিএম, ৮ মে ২০১৮ মঙ্গলবার | আপডেট: ১১:০৩ এএম, ৯ মে ২০১৮ বুধবার

‘সুপার হিরো’ ছবিতে শাকিব বুবলী

‘সুপার হিরো’ ছবিতে শাকিব বুবলী

সময়ের জনপ্রিয় নায়ক শাকিব খান ও নায়িকা শবনম বুবলীর ছবি মানেই হিট। সম্প্রতি তাদের আরও একটি ছবির কাজ শেষ হয়েছে। চালবাজ নামের এই ছবিতে দর্শকরা দেখতে পাবেন শাকিব-বুবলীর জমজমাট রোমান্স। ছবির পরতে পরতে থাকবে জটিল প্রেমের রসায়ন। ছবির বেশ কয়েকটি গানের দৃশ্যায়ন করা হয়েছে বিদেশের মাটিতে। যেগুলো দর্শক মাত করবে বলে আশা কলাকুশলীদের। 
এদিকে চালবাজ ছবিটির মুক্তি নিয়ে শুরু হয়েছে গড়িমসি। তা নিয়ে যারপরনাই ক্ষুব্ধ শাকিব। এ বিষয়ে তিনি বলেন, গত দুই বছর চলচ্চিত্রের গুটি কয়েক মানুষের কার্যক্রম দেখে মনে হয়, আমার ছবি মুক্তিতে তাদের যত অ্যালার্জি। মনে হচ্ছে, আমাকে এ দেশে নিষিদ্ধ করা হয়েছে! তা না হলে আমার কোনো ছবি মুক্তি পাওয়ার সময় কেন এত প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা হবে?
অন্যদিকে শোনা যাচ্ছে, শাকিব খান অভিনীত ‘সুপার হিরো’ছবির মুক্তি ঠেকাতে এরই মধ্যে তৎপরতা শুরু হয়ে গেছে। চলচ্চিত্র সেন্সর বোর্ড যাতে ‘সুপার হিরো’ছবির ছাড়পত্র না দেয়, তার জন্য তথ্য মন্ত্রণালয়ের সচিব বরাবর চিঠি দিয়েছেন মেসার্স নিপা এন্টারপ্রাইজের কর্ণধার সেলিনা বেগম। এখানে তিনি লিখেছেন, ‘সুপার হিরো’নামক ছবিটির জন্য সরকারি অনুমতি (ওয়ার্ক পারমিট) না নিয়ে অস্ট্রেলিয়ায় শুটিং করা হয়েছে। সরকারি অনুমতি ব্যাতীত সরকারের রাজস্ব ও ভ্যাট ফাঁকি দিয়ে অবৈধ পথে দেশ থেকে টাকা নিয়ে গত ২২ জানুয়ারি থেকে ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত অস্ট্রেলিয়ায় ছবিটির শুটিং করা হয়েছে। ছবির যে গানগুলো রিলিজ হয়েছে সেগুলো বেশ সাড়া ফেলছে।
চিঠিতে আরও উল্লেখ করা হয়, আগামী ঈদে ছবিটি মুক্তির প্রস্তুতি নিচ্ছে। এতে করে সাধারণ প্রযোজকেরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছেন। তাই ‘সুপার হিরো’ ছবিটি নিয়ম না মানার কারণে সেন্সর সনদ পাওয়ার যোগ্যতা হারিয়েছে। তথ্যসচিব বরাবর লেখা এই চিঠিতে বলা হয়, ‘সুপার হিরো’ ছবির বিরুদ্ধে সরকারি রাজস্ব ফাঁকি দেওয়াসহ অনুমতি না নিয়ে বিদেশে শুটিং করার অভিযোগ তদন্ত করে যেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হয়। ৩ মে সেলিনা বেগমের স্বাক্ষর করা একটি চিঠি তথ্য মন্ত্রণালয়ে জমা পড়েছে।
তাপসী ঠাকুর জানান, এর আগে ঈদ উপলক্ষে তাঁর প্রযোজিত চারটি ছবি মুক্তি পেয়েছে। এই ছবিগুলো হলো ‘মনে প্রাণে আছ তুমি’ (২০০৭), ‘আমার প্রাণের প্রিয়া’ (২০০৯), ‘খোদার পরে মা’ (২০১৩) এবং ‘লাভ ম্যারেজ’ (২০১৫)।
/ এআর /



© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি