ঢাকা, রবিবার   ০৮ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

সেন্টমার্টিনে আটকা পড়া পর্যটকরা ফিরছেন আজ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:২৮ ১১ নভেম্বর ২০১৯

ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’র কারণে প্রবালদ্বীপ সেন্টমার্টিনে আটকা পড়া প্রায় ১২শ’ পর্যটক অনুকূল আবহাওয়া না পাওয়ায় গতকাল রোববার ফিরতে না পারলেও, আজ বন্দর থেকে সবধরনের সংকেত তুলে নেয়ায় ফিরতে পারছেন তারা।

এর আগে সাগর উত্তাল থাকায় শুক্রবার টেকনাফ-সেন্টমার্টিনে রুটে জাহাজ চলাচল বন্ধ করে দেয়ায় আটকে পড়েছিলেন তারা।

সোমবার (১১ নভেম্বর) আবহাওয়া বার্তায় উত্তর বঙ্গোপসাগর, সমুদ্রবন্দর এবং বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যাওয়ার সম্ভাবনা নেই বলে জানানো হয়। ফলে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় আজ ফিরতে পারছেন তিনদিন ধরে আটকরা পড়া এসব পর্যটকরা।

এদিকে, চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে তিন নম্বর স্থানীয় সতর্কতা সংকেত নামিয়ে ফেলতে বলেছে আবহাওয়া অধিদফতর।

আবহাওয়াবিদ হাফিজুর রহমান গণমাধ্যমকে বলেন, ‘সতর্কতা সংকেত নেমে গেছে। নিম্নচাপ আকারে যেটার অবস্থান ছিল, এখন আর সেসব কিছুর অস্তিত্ব নেই। আবহাওয়া ভালো থাকবে।’ ফলে, পর্যটকরা কোনো বাধা ছাড়াই ফিরতে পারবেন।

ঘূর্ণিঝড়ের কারণে অনেক পর্যটক নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছিলেন। অনেকের চোখেমুখে আতঙ্কের ছাপ দেখা গিয়েছিলো। তবে পুলিশের পক্ষ থেকে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা নেয়া হয়। সেন্টমার্টিন পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক আজমীর ইলাহি রোববার বলেন, দ্বীপে আটকে পড়া পর্যটকদের সর্বোচ্চ নিরাপত্তার জন্য পুলিশ রাত-দিন চেষ্টা করেছে।

আটলান্টিক ক্রুজের কক্সবাজারস্থ ইনচার্জ নাসির উদ্দিন জানিয়েছেন, জেলা প্রশাসনের নির্দেশে ও আবহাওয়া পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়ায় সোমবার সকাল ১০টায় দমদমিয়া ঘাট থেকে রওয়ানা দেয় জাহাজ। আটকেপড়া পর্যটকরা আমাদের বুকিং করা যাত্রী না হলেও মানবিক দিক বিবেচনা করে যাত্রীসেবা দেয়া হচ্ছে।

এদিকে, আজ সোমবার সন্ধ্যা ৬টা থেকে পরবর্তী ২৪ ঘণ্টার আবহাওয়ার পূর্বাভাসের সিনপটিক (সারসংক্ষেপ) অবস্থায় বলা হয়েছে, খুলনা ও তৎসংলগ্ন বাংলাদেশের দক্ষিণ পশ্চিমাঞ্চলে অবস্থানরত ঘূর্ণিঝড় ‘বুলবুল’ সামান্য উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও দুর্বল হয়ে প্রথমে গভীর নিম্নচাপে এবং পরবর্তীতে নিম্নচাপে পরিণত হয়েছে।

এটি আরও উত্তরপূর্ব দিকে অগ্রসর ও বৃষ্টি ঝরিয়ে ক্রমশঃদুর্বল হতে পারে। গভীর নিম্নচাপটির প্রভাবে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের দক্ষিণাঞ্চলে বায়ুচাপের তারতম্যের আধিক্য বিরাজ করছে।

এতে করে চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগের দু’এক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারী ধরণের বৃষ্টি অথবা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। অন্যদিকে, সারাদেশে রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত এবং দিনের তাপমাত্রা ৩ থেকে ৫ ডিগ্রি সেলসিয়াস বৃদ্ধি হতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদফতর।
এআই/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি