ঢাকা, শুক্রবার   ২৩ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৯ ১৪২৮

রাকিবের সব অভিযোগ মিথ্যা দাবি তামিমার!

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৮:০৩, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১ | আপডেট: ১৮:১০, ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০২১

আগের এবং বর্তমান স্বামীর সঙ্গে তামিমা

আগের এবং বর্তমান স্বামীর সঙ্গে তামিমা

আলোচিত-সমালোচিত ক্রিকেটার নাসির হোসাইনের স্ত্রী তামিমা তাম্মির বিরুদ্ধে মামলা করেছেন রাকিব হাসান। নিজেকে তামিমার স্বামী দাবি করে রাকিবের দাবি, তামিমা তাকে ডিভোর্স না দিয়েই নাসির হোসাইনকে বিয়ে করেছেন। এমনকি তাদের একটি কন্যা সন্তানও আছে।

এর জবাবে- রাকিব হাসান যা বলছেন সবই মিথ্যা বলে দাবি করেছেন নাসির হোসাইনের স্ত্রী তামিমা তাম্মি। আজ বুধবার বনানীতে এক সংবাদ সম্মেলন করে, অনেক আগেই তাদের ডিভোর্স হয়ে গেছে বলেও দাবি করেছেন তামিমা তাম্মি।

তিনি বলেন, 'রাকিব হাসানের সঙ্গে আমার বিয়ে হয়েছিল। আমাদের একটা মেয়েও আছে। এসবই সত্য। কিন্তু আমি তাকে ২০১৬ সালেই ডিভোর্স দিয়েছি।'

একমাত্র মেয়ের প্রসঙ্গে তামিমার দাবি, জন্মের পর থেকে একমাত্র মেয়েকে নিজের কাছেই রাখেন এবং ডিভোর্সের পর সব সময় মেয়ের খোঁজ নেন সব বিষয়। তবে, ২০১৯ সালে রাকিব হাসান মেয়ের সঙ্গে দেখা করার কথা বলে ওকে নিয়ে যায়।

মেয়ের ৬ বছর বয়স পর্যন্ত নিজের কাছেই ছিল দাবি করে এই কেবিন ক্রু আরও বলেন, ‘মেয়ের ৬ বছর বয়স পর্যন্ত অর্থাৎ ২০১৯ সাল পর্যন্ত আমার কাছেই ছিল। আমি আমার মেয়ের ফিট হওয়া, পড়াশোনাসহ সব কিছুই দেখেশোনা করেছি। আমাদের মধ্যে সব সময় যোগাযোগ হয়েছে। কিন্তু ২০১৯ সালে মেয়ের সঙ্গে ওর বাবা দেখা করবে বলে তাকে আমার কাছ থেকে নিয়ে যায়।’

সংবাদ সম্মেলনে তামিমা

এর আগে আজ (২৪ ফেব্রুয়ারি) সকালেই ক্রিকেটার নাসির হোসাইন এবং তার স্ত্রী তামিমা সুলতানা তাম্মির বিরুদ্ধে মামলা করা হয়। ডিভোর্স না দিয়ে অন্যের স্ত্রীকে বিয়ে করার অভিযোগে এ মমলা দায়ের করা হয়। 

এদিন ঢাকা মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট মোহাম্মদ জসিমের আদালতে নিজেকে তামিমার স্বামী দাবি করে রাকিব হাসান নামে এক ব‌্যক্তি বাদী হয়ে ওই মামলা করেন। আদালত বাদীর জবানবন্দি গ্রহণ শেষে নথি পর্যালোচনা শেষে পিবিআইকে মামলা তদারকি করার আদেশ দেন।

মামলা দায়েরের পর রাকিব নিজেই বিষয়টি সাংবাদিকদের জানিয়েছেন। বাদীপক্ষে ছিলেন অ্যাডভোকেট ইশরাত হাসান। মামলায় আগের বিয়ে গোপন থাকা অবস্থায় অন্যত্র বিয়ে, অন্যের স্ত্রীকে প্রলুব্ধ করে নিয়ে যাওয়ায় মানহানির অভিযোগ আনা হয়েছে।

মামলার অভিযোগ থেকে জানা গেছে, ২০১১ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি তাম্মি ও রাকিবের বিয়ে হয়। তাদের ৮ বছরের একটি মেয়েও রয়েছে। তাম্মি পেশায় একজন কেবিন ক্রু। চলতি বছরের ১৪ ফেব্রুয়ারি তাম্মি ও ক্রিকেটার নাসির হোসেনের বিয়ের ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে তা রাকিবের নজরে আসে। পরে পত্র-পত্রিকায় তিনি ঘটনার বিষয়ে বিস্তারিত জানেন।

মামলায় আরও বলা হয়, তাম্মি ও নাসিরের এমন অনৈতিক ও অবৈধ সম্পর্কের কারণে রাকিব ও তার শিশু কন্যা মানসিক বিপর্যস্ত। আসামিদের এমন কার্যকলাপে রাকিবের চরমভাবে মানহানি হয়েছে।

এদিকে, এ নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে যখন তুমুল আলোচনা-সমালোচনা, তখন এতে আরও নতুনমাত্রা যোগ করেন নাসিরের সাবেক প্রেমিকা মডেল সুবাহ শাহ হুমায়রা। এমনকি রাকিবকে মামলা চালানোর জন্য যাবতীয় খরচও সে বহন করার ঘোষণা দিয়েছে লাইভে এসে।

তিনি বলেন, রাকিব ভাইয়ের হয়তো এখন নাসিরের চেয়ে টাকা পয়সা কম। তাই আমি তাকে নাসির-তামিমার বিরুদ্ধে মামলা চালানোর জন্য যাবতীয় খরচ দিবো। যতখানি সহযোগিতা করা দরকার আমি করব। কারণ, আমি এর বিচার চাই, আমি চাই এই রকম নির্লজ্জ-বেহায়াপনার শাস্তি হোক। 

এনএস/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি