ঢাকা, বুধবার   ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ৬ ১৪২৮

জেনে নিন করোনা এড়াতে ভ্যাকসিনের কত ডোজ লাগে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:০৪, ৩১ আগস্ট ২০২০

করোনা ভ্যাকসিন নিয়ে ইতিমধ্যেই রাজনীতি শুরু হয়ে গিয়েছে। একাধিক দেশ আগে ভ্যাকসিন পাওয়ার জন্য উৎপাদনকারী সংস্থার সঙ্গে চুক্তি করে রেখেছে। কোনও কোনও দেশ একইসঙ্গে চার-পাঁচটি সংস্থার সঙ্গেও চুক্তি করেছে। কিন্তু করোনা সংক্রমণ এড়াতে ভ্যাকসিনের একটি ডোজই যথেষ্ট, নাকি একাধিক ডোজ লাগবে? আবার ভ্যাকসিনের ডোজ দু’বার দিতে হলে যে ভ্যাকসিন আসবে তা বিশ্বের সব দেশকে দেওয়া যাবে কি না এ নিয়ে সংশয় তৈরি হয়েছে। 

এখন পর্যন্ত নানা গবেষণা থেকে যা জানা যাচ্ছে তা হলো, করোনা সংক্রমণ এড়াতে দু’বার ভ্যাকসিন দেওয়ার প্রয়োজন হতে পারে। প্রথমবার দেওয়ার নির্দিষ্ট সময় পরে আরও একবার দেওয়া লাগতে পারে। সে ক্ষেত্রে উন্নয়নশীল ও অনুন্নত দেশগুলো ভ্যাকসিন-সঙ্কটে পড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে।

সারাবিশ্বকে ভ্যাকসিনের একটি ডোজ দেওয়া একটি বড় কাজ বলে মনে করছেন বিজ্ঞানীরা। সেখানে ‘টু-শট’ ভ্যাকসিন হলে পুরো ব্যবস্থাই আরও জটিল হবে। যার প্রভাব পড়বে উন্নয়নশীল ও অনুন্নত দেশে। 

ভ্যাকসিন গবেষণায় যারা এগিয়ে, তাদের অনেকেই টু-শট ভ্যাকসিনের কথা ভাবছে। তবে তারা এও মনে করছেন, একবার ভ্যাকসিন দিলেই হয়তো সংখ্যাগরিষ্ঠ লোকের মধ্যে প্রতিরোধী ক্ষমতা তৈরি হতে পারে। আবার উৎপাদন ও সরবরাহের জটিলতার কথা ভেবে একাধিক সংস্থা ‘সিঙ্গল ডোজ’ তৈরির দিকে জোর দিচ্ছে।

নোবেলজয়ী বিজ্ঞানী পিটার সি ডোয়ার্টি এ বিষয়ে বলেছেন, করোনাভাইরাস যদি থেকে যায় বা এর সংক্রমণ চলতে থাকে, তাহলে এমন পরিস্থিতি হতে পারে যে বার্ষিক ভ্যাকসিনের ‘বুস্টার শট’-এর (প্রতিরোধ শক্তিকে জোরদার করা) প্রয়োজন হতে পারে। 

অর্থনীতিবিদের কথায়, ‘একবার দিতে হলে তবু হয়তো উন্নয়নশীল বা অনুন্নত দেশে ভ্যাকসিন পৌঁছবে। কিন্তু দু’বার করে দিতে হলে ভ্যাকসিনের সঙ্কট শুরু হতে পারে। কারণ এর উৎপাদন নির্দিষ্ট।’

ইতিমধ্যেই ভ্যাকসিন নিয়ে প্রতিযোগিতা শুরু হয়ে গিয়েছে। নাগরিক পিছু আমেরিকা যেখানে ভ্যাকসিনের দুটি ডোজ বুক করেছে, সেখানে ইংল্যান্ড করেছে পাঁচটি ডোজ!

তবে অনেকেরই মতে, ভ্যাকসিনের ডোজ ক’বার দিতে হবে, সেটা আলোচ্য হলেও সব থেকে গুরুত্বপূর্ণ হলো ভাল ভ্যাকসিন বাজারে আসাটা। শুধু তাই নয়, সব দেশ যাতে সেই ভ্যাকসিন পায়, তাও সুনিশ্চিত করা প্রয়োজন।

সূত্র: আনন্দবাজার

এএইচ/এমবি


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি