ঢাকা, বুধবার   ১৯ মে ২০২১, || জ্যৈষ্ঠ ৪ ১৪২৮

মৌলভীবাজারে বিপন্ন হচ্ছে প্রাণীকূল, বন হারাচ্ছে ভারসাম্য (ভিডিও)

মৌলভীবাজার প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১২:৫৮, ৩ মার্চ ২০২১

মৌলভীবাজারে প্রাকৃতিক বিপর্যয় ও মানুষের বিভিন্ন কার্যকলাপে বিপন্ন হচ্ছে প্রাণীকূল। মৌলভীবাজারে বন্যপ্রাণীদের অভয়ারণ্য লাউয়াছড়া বনে অবাধে মানুষের বিচরণ, হৈহুল্লড়, প্লাস্টিকসহ বিভিন্ন বর্জ্য নিক্ষেপে বন হারাচ্ছে তার ভারসাম্য।

মৌলভীবাজার জেলায় পাহাড় টিলায় একসময় ছিলো ঘন অরণ্য। বাড়িঘর নির্মাণ ও চা বাগানের জন্য উজাড় হয়েছে প্রাকৃতিক বনভূমি। এ অবস্থায় এ জেলার প্রাণীদের শেষ আশ্রয়স্থল লাউয়াছড়া জাতীয় উদ্যান, আদমপুর ও কুরমা বন।

স্থানীয়রা জানান, ভেতরে ঢুকলে দেখবেন, আমাদের মানুষের ব্যবহৃত অনেক আবর্জনা পরে আছে। এগুলো খেয়ে এখানের বানর ও অন্যান্য পশুপাখী আহত হচ্ছে। অবাধ বিচরণের ফলে বণ্যপ্রাণীরা আবাস সংকটে ভুগছে। কাজেই পরিবেশটা সুন্দর হওয়া দরকার।

অন্যদিকে বনের গাছকাটা, পশু খাদ্যের অভাব, পাহাড়ী ছড়া ভরে যাওয়া এবং পর্যটক ও মানুষের বিচরণে হুমকির মুখে প্রাণীকূল। 

শ্রীমঙ্গলের বাংলাদেশ বন্যপ্রাণী সেবা ফাউন্ডেশনের চেয়ারম্যান সিতেশ রঞ্জন দেব (মুখের একাংশ প্লাস্টিক সার্জারী করা) বলেন, লোকজন পরিদর্ষণের জন্য আসলে সে ভেতর এলাকায় থাকবে, এই এলাকায় ঢুকবে না। 

তবে প্রাণীকূলের নিরবিচ্ছিন্ন জীবন যাপনে সরকারিভাবে বেশ কিছু উদ্যোগ নেয়া হচ্ছে বলে জানালেন বন রেঞ্জ কর্মকর্তা।

লাউয়াছড়া বন রেঞ্জ কর্মকর্তা মো: মোতালেব হোসেন বলেন, প্রজেক্ট পাশ হলে পরে বণ্যপ্রাণীর জন্য অনেক কিছু করতে পারবো আমরা। তাদের বাসস্থানের উন্নয়ন করতে পারবো, তাদের পানির ব্যবস্থা করতে পারবো।

বনের ভেতরে যেন শব্দ দূষণ না হয় সে দিকে সজাগ দৃষ্টি রাখতে নির্দেশ দিয়েছেন বনমন্ত্রী।

বন পরিবেশ ও জলবায়ু পরিবর্তন বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী মো: সাহাব উদ্দিন এমপি বলেন, একটি রেললাইন এবং একটি রাস্তা এই লাউয়াছড়ার ভেতর দিয়ে আছে। এই অবস্থায় লাউয়াছড়াকে শব্দ দূষণমুক্ত রাখতে হবে জীববৈচিত্র রক্ষার্থে।

লাউয়াছড়া বনে বেড়াতে আসা পর্যটকদের আরও সংবেদনশীল আচরণের আহবান জানিয়েছেন প্রকৃতিপ্রেমীরা।
দেখুন ভিডিও :

এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি