ঢাকা, বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১, || শ্রাবণ ১২ ১৪২৮

শিবচরে গৃহবধূর ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

মাদারীপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৪:৫১, ২১ এপ্রিল ২০২১

মাদারীপুর শিবচরের বাঁশকান্দি এলাকায় ঘরের আড়ার সঙ্গে ঝুলন্ত অবস্থায় গৃহবধূ সাথী বেগমের লাশ উদ্ধার করেছে পুলিশ। পরিবারের অভিযোগ ও পুলিশের ধারণা, তাকে হত্যা করে মরদেহ ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। তবে ঘটনার পর থেকে স্বামী মামুন চৌকিদার পলাতক রয়েছেন।

বুধবার (২১ এপ্রিল) সকালে উপজেলার বাঁশকান্দি ইউনিয়নের শেখপুর গ্রামের মামুন চৌকিদারের বাড়ি থেকে মরদেহটি উদ্ধার করে শিবচর থানা পুলিশ। নিহত একই গ্রামের আছুমদ্দিন কবিরাজের মেয়ে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে যায়, বুধবার সকালে স্বামী মামুন চৌকিদার তার শ্বশুর বাড়িতে ফোন করে জানায় সাথী ঘরের আড়ার সাথে ওড়না পেচিয়ে আত্মহত্যা করেছে। সংবাদ শুনে ভাই আনোয়ার হোসেন ও পরিবারের লোকজন এসে সাথীর মরদেহ ঝুলন্ত অবস্থায় দেখতে পায়। পরে পুলিশ এসে মরদেহ উদ্ধার করে। 

এ ঘটনায় সকাল থেকেই স্বামী মামুন চৌকিদার পলাতক রয়েছেন। সাথীর পরিবার ও আত্মীয় স্বজনদের দাবি স্বামী মামুন চৌকিদার সাথীকে মেরে ঘরের আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রেখেছেন। নিহত সাথী বেগম দুই ছেলে ও এক মেয়ের মা।

সাথীর ভাই আনোয়ার হোসেন বলেন, আমার বোনকে প্রায়ই যৌতুকের টাকার জন্য চাপ দিতো। মাঝে মাঝে মারধরও করতো। এনিয়ে কয়েকবার শালিস বৈঠকও হয়েছে। কয়েকদিন আগে সাথীকে ব্যাপকভাবে মারধর করা হলে আমরা ফরিদপুর মেডিকেলে ৩৬ হাজার টাকা ব্যয়ে তার চিকিৎসা করাই। আজ আমার বোনকে মেরে ঘরে ঝুলিয়ে রেখেছে। 

শিবচর থানার পরিদর্শক (তদন্ত) আমির হোসেন সেরনিয়াবাত জানান, আমরা ঘটনাস্থল থেকে সাথী বেগমের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছি। প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে, সাথী বেগমকে হত্যা করে আড়ার সাথে ঝুলিয়ে রাখা হয়েছে। ময়না তদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পরে জানা যাবে হত্যা, নাকি আত্মহত্যা। 

এ ঘটনায় থানায় মামলা প্রক্রিয়াধীন আছে।
এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি