ঢাকা, শুক্রবার   ০৩ ডিসেম্বর ২০২১, || অগ্রাহায়ণ ১৮ ১৪২৮

৭২ ঘণ্টার কর্মবিরতি: বেনাপোল বন্দরে শত শত ট্রাকের জট

বেনাপোল প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৫:৫২, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১

মালিক সমিতির ৭২ ঘণ্টা কর্মবিরতির দ্বিতীয় দিনে বেনাপোলে সকল ধরনের পণ্যবাহী ট্রাক চলাচল বন্ধ রয়েছে। ফলে বন্দর এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে পণ্যজটের। যা পরবর্তীতে রূপ নিয়েছে যানজটের। তবে ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম স্বাভাবিক রয়েছে।

পণ্য লোড করে গন্তব্যে যেতে না পেরে বন্দর এলাকায় আটকা পড়ে ৫ শতাধিক ট্রাক। এদিকে কাজ করতে না পেরে অসহায় হয়ে পড়েছে বন্দর শ্রমিকেরা। দ্রুত ধর্মঘট প্রত্যাহার চান তারা। তবে, দাবি না মানা পর্যন্ত এ কর্মবিরতি চলবে বলে জানিয়েছে অ্যাসোসিয়েশন নেতারা।

বন্দর শ্রমিকরা বলেন, তারা বন্দরে কাজ করে সংসার চালান। কিন্তু বন্দর থেকে আমদানি পণ্য খালাস না হওয়ায় তাদের কোন কাজ নেই। দ্রুত কর্মবিরতি প্রত্যাহার চেয়েছেন সাধারণ শ্রমিকেরা।

বেনাপোল ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতির সভাপতি এ কে এম আতিকুজ্জামান সনি ও সাধারণ সম্পাদক আজিম উদ্দীন গাজী জানান, এ কর্মবিরতিকে সমর্থন জানিয়ে বেনাপোল বন্দর এলাকায় লিফলেট বিতরণ ও মাইকিং করে পণ্যবাহী ট্রাক চলাচলে কর্মবিরতি পালন করা হচ্ছে। কর্মবিরতির প্রথমদিনে মঙ্গলবার কোন পণ্যবাহী ট্রাক বেনাপোল বন্দর থেকে পণ্য লোড করেনি বা বেনাপোল ছেড়ে যায়নি। বুধবারও কর্মবিরতি পালন করা হচ্ছে। 

আমদানি-রফতানিকারক সমিতির সহ-সভাপতি আমিনুল হক বলেন, শিল্প কলকারখানার কাঁচামাল, গার্মেন্টস ও খাদ্যদ্রব্য জাতীয় পণ্য ভারত থেকে আমদানি হয়ে থাকে। কিন্তু পরিবহন কর্মবিরতির কারণে ট্রাক চালকেরা এসব পণ্য নিয়ে গন্তব্যে যেতে পারছে না। এতে বন্দর এলাকায় প্রায় ৫ শতাধিক ট্রাক পণ্য নিয়ে আটকা পড়েছে। দ্রুত কর্মবিরতি প্রত্যাহার না হলে শিল্প কারখানায় উৎপাদন কার্যক্রম ব্যাহত হবে। এছাড়া বড় ধরনের লোকসানের কবলে পড়বেন ব্যবসায়ীরা।

সিএন্ডএফ এসোসিয়েশনের সভাপতি মফিজুর রহমান সজন জানান, ট্রাক মালিক সমিতির ডাকা ৩ দিনের কমবিরতিতে বেনাপোল বন্দর থেকে কোন পণ্য লোড হচ্ছেনা। পণ্য লোড না হওয়ার কারণে বন্দর এলাকায় সৃষ্টি হয়েছে পণ্যজটের। এ কারণে আমদানি-রফতানি কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

বেনাপোল বন্দরের উপ-পরিচালক (প্রশাসন) আব্দুল জলিল বলেন, কর্মবিরতিতে বন্দর থেকে পণ্য পরিবহন বন্ধ থাকলেও বন্দরের কার্যক্রম সচল রয়েছে। আমদানি-রফতানি ও পাসপোর্টধারী যাত্রীরা দুই দেশের মধ্যে যাতায়াত করছেন। তবে কর্মবিরতিতে ব্যবসায়ীরা পণ্য পরিবহন করতে না পারাই বাণিজ্য কার্যক্রম ব্যাহত হচ্ছে।

মঙ্গলবার ভোর ৬টা থেকে বৃহস্পতিবার ভোর ৬টা পর্যন্ত এ কর্মবিরতির ডাক দেয় বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ডভ্যান, প্রাইমমুভার পণ্য পরিবহন মালিক অ্যাসোসিয়েশন ও বাংলাদেশ ট্রাক চালক-শ্রমিক ফেডারেশন। এর সাথে একাত্মতা ঘোষণা করে যশোর জেলা ট্রাক মালিক সমিতি, বেনাপোল ট্রাক মালিক সমিতি ও ট্রান্সপোর্ট মালিক সমিতি।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি