ঢাকা, রবিবার   ১৯ মে ২০২৪

প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি সদস্য

মাগুরা প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১০:০০, ৭ সেপ্টেম্বর ২০২২

মাগুরার শ্রীপুর উপজেলার ৭নং সব্দালপুর ইউনিয়নের হোগলডাঙ্গা গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত বিজিবি সদস্য রাশিদুল ইসলাম রাশিদ (৫০) প্রতিপক্ষের হামলায় নিহত হয়েছেন। 

মঙ্গলবার (৬ আগস্ট) সন্ধ্যার পর কাজলী বাজার থেকে বাড়ি ফেরার পথে কাজলী মোল্লা বাড়ির সামনে তিনি প্রতিপক্ষের হামলার শিকার হন। নিহত রাশিদুল হোগলডাঙা গ্রামের মৃত কওছার আলী মোল্ল্যার পুত্র।

নিহত রাশেদুল ইসলামের চাচাতো ভাই টুটুল মোল্লা জানান, আধিপত্য বিস্তারকে কেন্দ্র করে পবোন মল্লিক ও হান্নান মোল্ল্যার মধ্যে দীর্ঘদিন ধরে বিরোধ চলে আসছিল। এর সূত্র ধরে মঙ্গলবার সন্ধ্যার পর পবোন মল্লিকের সর্মথক রাশিদুল স্থানীয় কাজলী বাজার থেকে বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে মোল্লা বাড়ি়র সামনে রাশিদুল পৌঁছালে  হান্নান মোল্লা ও তার সমর্থকরা তাকে রাম দা ও সড়কি দিয়ে কুপিয়ে হত্যা করে। 

খবর পেয়ে রাশিদুলের পরিবারের সদস্যরা তাকে উদ্ধারের জন্য এগিয়ে গেলে তাদেরকেও কুপিয়ে আহত করা হয়। 

স্থানীয়রা গুরুতর আহত অবস্থায় হাসান মল্লিক, এনামুল মোল্ল্যা, আপাম মোল্ল্যা, উকিল মোল্ল্যা, টোকনসহ ১২ জনকে উদ্ধার করে মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালে ভর্তি করে। 

টুটুল মোল্ল্যা আরও বলেন, “একই গ্রামের হান্নান মোল্লা গ্রুপের সাথে আমাদের দীর্ঘদিন ধরে সামাজিক বিরোধ চলে আসছিল। তারা পূর্বপরিকল্পিতভাবে আমার ভাইকে নির্মমভাবে কুপিয়ে হত্যা করেছে।এই হত্যাকান্ডের বিচার চাই।”

মাগুরা ২৫০ হাসপাতালের জরুরি বিভাগের কর্তব্যরত চিকিৎসক ডা. রফিকুল আহসান জানান, নিহতের শরীরে ধারালো অস্ত্রের একাধিক কোপের চিহ্ন রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, তাকে রামদা এবং সড়কি দিয়ে কোপানো হয়েছে। হাসপাতালে আনার আগেই তার মৃত্যু হয়েছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

শ্রীপুর থানার ওসি প্রিটন সরকার হত্যাকাণ্ডের বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, এ ঘটনায় তিনজনকে আটক করা হয়েছে। এলাকায় অভিযান অব্যাহত আছে। মৃতদেহ মাগুরা ২৫০ শয্যা হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হয়েছে। 

হত্যাকাণ্ডের ঘটনা তদন্ত করে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান ওসি।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি