ঢাকা, সোমবার   ২৭ মে ২০২৪

কর্মরত অবস্থায় অসুস্থ, ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় নার্সের মৃত্যু

মেহেরপুর প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১০:৪০, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২৩

ঘটনার পর আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে

ঘটনার পর আইন শৃঙ্খলা বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে

মেহেরপুর শহরের রমেশ ক্লিনিকে ভুল চিকিৎসায় স্বর্ণালী খাতুন নামের এক নার্সের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। কর্মরত অবস্থায় ওই নার্স অসুস্থ হলে চিকিৎসকের পরামর্শে জরুরি ভিত্তিতে তার অপারেশন করা হয়। কিন্তু তার আর জ্ঞান ফেরেনি।

শনিবার (২৩ সেপ্টেম্বর) সকালে এম্বুলেন্সে তাকে সিরাজগঞ্জ আনোয়ারা হার্ট ফাউন্ডেশনে নেওয়া হলে হাসপাতালের কর্তব্যরত চিকিৎসক জানান আনার অনেক আগেই রোগীর মৃত্যু হয়েছে। 

স্বর্ণালী খাতুন রমেশ ক্লিনিকে নার্স হিসেবে কর্মরত ছিলেন।

রোগীর বোনের স্বামী লিখন আলী ও পরিবারের লোকজনের অভিযোগ, এনেসথেসিয়ার সময় মাত্রা অতিরিক্ত ঔষধ প্রয়োগের কারণে স্বর্ণালী খাতুনের আর জ্ঞান ফেরেনি। বর্তমানে বিষয়টি ধামাচাপা দেওয়ার জন্য তাদের পরিবারকে চাপ দেওয়া হচ্ছে। 

মেহেরপুর শহরের রমেশ ক্লিনিকের সিনিয়র স্টাফ নার্স স্বর্ণালী খাতুন ক্লিনিকে দায়িত্ব পালন কালে বৃহস্পতিবার বিকালের দিকে পেটে ব্যথা অনুভব করেন। এসময় ঢাকা থেকে আগত ক্লিনিকের কর্তব্যরত চিকিৎসক জাহিদ হাসান বিপু তার পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে জানান অ্যপেনটিসাইটের ব্যাথা, এটা ক্রিটিক্যাল অবস্থায় আছে। এক্ষুনি অপারেশন করতে হবে। 

সন্ধ্যায় স্বর্ণালীর পরিবারকে কিছু না জানিয়েই তাকে অপারেশনের ওটিতে নেওয়া হয়। অপারেশনের আগে এনেসথেসিয়া চিকিৎসককে না ডেকে হাসপাতালের ম্যানেজার শহিদুল ফোনে পরামর্শ নিয়ে এনসেথিয়া প্রয়োগ করেন। এরপর অপারেশন শেষে তার জ্ঞান না ফিরলে তাকে মেহেরপুর জেনারেল হাসপাতালের আইসিইউতে ভর্তি করা হয়। 

পরে সিরাজগঞ্জ আনোয়ারা হার্ট ফাউন্ডেশনে নেয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

মৃত সংবাদ পেয়ে এলাকাবাসি ক্লিনিক ঘেরাও করে রাখে। পরিবেশ শান্ত রাখতে মেহেরপুর থানা পুলিশ ও ডিবি পুলিশের দুটি ইউনিট মোতায়ন করা হয়।

রমেশ ক্লিনিক কর্তৃপক্ষের ম্যানেজার শহিদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি এনেসথেসিয়া প্রয়োগ করেননি এমন বক্তব্য দিয়ে আর কোন মন্তব্য করতে রাজি হননি। 

মেহেরপুরের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (প্রশাসন) কামরুল আহসান বলেন, পরিবারকে লিখিত অভিযোগ দেবার জন্য বলা হয়েছে। অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।  

মেহেরপুরের সিভিল সার্জন ডাঃ জাওয়াহেরুল আনাম সিদ্দিকী বলেন, অভিযোগ পেলে তদন্ত বোর্ড গঠন করে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এএইচ


Ekushey Television Ltd.





© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি