ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২৫ এপ্রিল ২০২৪

কালের সাক্ষী ক্ষুদিরাম বসুর স্মৃতি বিজড়িত লাহিড়ী বাড়ি ধ্বংসপ্রায়

তানভীর সুমন

প্রকাশিত : ২৩:০১, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩ | আপডেট: ২৩:০৪, ১১ ডিসেম্বর ২০২৩

অনেক ইতিহাস ও ঐতিহ্যের ধারক এবং বাহক হিসাবে এখনো বিদ্যমান কুষ্টিয়ার কুমারখালী গড়াই নদীর তীরে  এই লাহিড়ী বাড়িটি। এই বাড়িটি মূলত ব্রিটিশ বিরোধী আন্দোলনের নির্ভীক সৈনিক ক্ষুদিরাম বসুর স্মৃতি বিজড়িত। এছাড়াও  স্থানীয় অনেকের  কাছে বাড়িটি ক্ষুদিরাম বসুর মামা বাড়ি নামেও পরিচিত। সবচেয়ে আশ্চর্য ব্যাপার হলো এই বাড়ি থেকেই তাকে ধরিয়ে দেওয়া হয় ।

পূর্ণ চন্দ্র লাহিড়ী নামের একজন পুলিশ কর্মকর্তা  কুমারখালী উপজেলার  যদুবয়রা গ্রামে মাঝে মধ্যে এসে থাকতেন। তিনিই মূলত ব্রিটিশ আমলে চুন সুড়কি ও ইট দিয়ে দ্বিতল বিশিষ্ট বাড়ীটি তৈরি করেন। মূলত তিনি ছিলেন তৎকালিণ পুলিশের ডি আই জি পদমর্যদার কর্মকর্তা।

দ্বিতলা বিল্ডিংটির নিচ তলায় চারটি কক্ষ ও একটি হল রুম আছে। দ্বিতলায় দুটি বড় কক্ষ ও পিছনের বারান্দা রয়েছে। দ্বিতল বিল্ডিংটির পাশে একটি মন্দির রয়েছে। পূর্ণচন্দ্র লাহিড়ী পূজোর সময় এখানে এসে ধুম ধামের সাথে পূজা করতেন। এছাড়া ১৯৬৯ সাল হতে ১৯৭২ সাল পর্যন্ত বিল্ডিংটি মাধ্যমিক স্কুল হিসাবে ব্যবহৃত হত। 

দীর্ঘদিন কোন সংস্কার কাজ না হওয়ায় প্লাষ্টার খসে পড়ছে, দেওয়ালে বড় বড় গাছ জন্মেছে। কোন দাবিদার বা তদারকারী না থাকায় দরজা, জানালা সহ মূল্যবান জিনিসপত্র অনেক আগেই চুরি হয়ে গেছে। কুষ্টিয়া কুমারখালীর শতবছরের ঐতিহ্য ও কালের সাক্ষী ঐতিহাসিক লাহিড়ী বাড়ি আজ ধ্বংসের দ্বারপ্রান্তে। স্থানীয়দের দাবি সরকার যেন বাড়িটির সংস্কারের মাধ্যমে সংরক্ষণ করে,  পুরোনো অনেক ইতিহাস বহনকারী কাল সাক্ষী এই বাড়িটি।


Ekushey Television Ltd.


Nagad Limted


© ২০২৪ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি