ঢাকা, শুক্রবার   ০৭ মে ২০২১, || বৈশাখ ২৩ ১৪২৮

সন্দ্বীপ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শাহজাহান সম্পাদক মিশন

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:৫২, ৩০ নভেম্বর ২০১৯

দীর্ঘ আট বছর পর অত্যন্ত উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে চট্টগ্রাম জেলার সন্দ্বীপ উপজেলা আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে।

শনিবার (৩০ নভেম্বর) সন্দ্বীপ উপজেলা কমপ্লেক্স মাঠে আওয়ামী লীগের ত্রি-বার্ষিক সন্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন, বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন। 

সম্মেলনে বর্তমান উপজেলা চেয়ারম্যান মাষ্টার শাহজাহান বি.এ কে সভাপতি ও বর্তমান উপজেলা ভাইস চেয়ারম্যান মাঈন উদ্দীন মিশনকে সাধারণ সম্পাদক হিসেবে নাম ঘোষণা করা হয়। 

সন্দ্বীপ উপজেলা পরিষদ চত্তরে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে অনুষ্ঠিত ত্রি-বার্ষিক সম্মেলনে জেলা থেকে আগত নেতৃবৃন্দদের সমন্বয়ে এই সন্মেলনে মাষ্টার শাহজাহান বি.এ সভাপতিত্ব করেন।

এটে উদ্বোধক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, চট্টগ্রাম উত্তর জেলা আওয়ামী লীগের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি এবিএম ফজলে করিম চৌধুরী এমপি। প্রধান বক্তা ছিলেন, চট্টগ্রাম জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এম এ সালাম। এছাড়া বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন, সন্দ্বীপের সাংসদ মাহফুজুর রহমান মিতা, জেলা থেকে আগত ইউনুছ গনি চৌধুরী, এটি এম পেয়ারুল ইসলাম, এহছানুল হায়দার চৌধুরী, মো. গিয়াস উদ্দিন, রোমানা নাসরিন,এডঃ উম্মে হাবীবা, আবদুল্যা আল বাকের ভুইয়া, বাসন্তি প্রভা পালিত প্রমুখ।

আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন বলেন, বর্তমান সরকারের সময়কালে সন্দ্বীপে ব্যাপক উন্নয়ন সাধিত হয়েছে যা বিগত দিনে হয়নি। সন্দ্বীপের যে সমস্যা গুলো রয়েছে তা ধারাবাহিকভাবে সম্পন্ন করা হবে। আগামিতে সন্দ্বীপকে চট্টগ্রামের মূল ভু-খন্ডের সঙ্গে সম্পৃক্ত করা হবে। এ জন্য জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে হবে তাহলেই দেশ অনেক দূর এগিয়ে যাবে।

অনুষ্ঠানে প্রধান বক্তা চট্টগ্রাম উত্তরজেলা আওয়ামীলীগের সেক্রেটারি ও জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এমএ সালাম বলেন সন্দ্বীপবাসী জাতীয় গ্রিডের যে বিদ্যুৎ পেয়েছেন এমপি মিতার একান্ত প্রচেষ্টায় তা সম্ভব হয়েছে। তিনি সংসদে জাতীয় ইস্যু নিয়ে কথা  না বলে  শুধু সন্দ্বীপের সমস্যার কথা বলেন বলে এমনটি সম্ভব হয়েছে। 

অনুষ্ঠানে সন্দ্বীপের সাংসদ মাহফুজুর রহমান মিতা বলেন, 'আজকের কাউন্সিলে জাতীয় নেতৃবৃন্দ যে সিদ্ধান্ত দিবেন আমরা সন্দ্বীপ উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মীরা সেটা মেনে নেবো। কারণ সন্দ্বীপ উপজেলা আওয়ামী লীগে কোন দ্বিধা বিভক্তি নেই। আমরা চাই সবাই ঐক্যবদ্ধ ভাবে  শেখ হাসিনার হাতকে শক্তিশালী করতে।'
 
এরই সূত্রধরে দ্বিতীয় অধিবেশনে জেলা নেত্রীবৃন্দ সভাপতি সম্পাদকের নাম ঘোষণা দেন। এতে বেশির ভাগ নেতা কর্মী খুশি হলেও তৃণমূলের কাউন্সিলরদের মতামতের প্রতিফলন ঘটছে না বলে অনেকেই মন্তব্য করেন। তার বলেন, কাউন্সিল অধিবেশনে ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারলে ফলাফল অনেক ব্যতিক্রম হতো।

কেআই/আরকে


 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি