ঢাকা, সোমবার   ১০ মে ২০২১, || বৈশাখ ২৬ ১৪২৮

চার তরুণীর হাতে বিপর্যস্ত হয়েই নিরাপত্তা বাড়ালেন সালমান

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০০:৩৮, ২১ জুলাই ২০২০ | আপডেট: ০০:৪০, ২১ জুলাই ২০২০

সালমান খান নায়ক হিসেবে বরাবরই তরুণীদের হার্টথ্রব। এক বার চার তরুণীর হাতে বিপর্যস্ত হয়েছিলেন তিনি! শুধু বিপর্যস্তই বললে কম বলা হয়ে যায়। এমনও শোনা যায়, ওই চার তরুণী তাঁর অনুরাগী সেজে লুঠ করেছিলেন তাঁর দামি জিনিসপত্র। বান্দ্রার এক নাইট ক্লাবে নাকি সালমান এই ঘটনার মুখোমুখি হন।  

চার তরুণী নাকি প্রথমে তাঁর সঙ্গে আলাপ করেন। তাঁরা সলমান খানের বড় ভক্ত পরিচয় দেন। তাঁরা সালমানের সঙ্গে গল্প করতে চান। তরুণীদের আসল উদ্দেশ্য সালমান বুঝতে পারেননি। তিনি তাঁদের সঙ্গে কিছু ক্ষণ কথা বলেন। সে সময় নাকি সালমানের কাছে ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষীরাও ছিল না। চার তরুণী ভক্তের সঙ্গে কথা বলার সময় তাঁদের কাছে রাখার প্রয়োজন ছিল না বলেই মনে হয়েছিল সালমানের।

কিন্তু অভিযোগ রয়েছে, তরুণীরা চলে যাওয়ার বেশ কিছু ক্ষণ পরে তিনি বিপদ বুঝতে পারেন। টের পান, তাঁর ওয়ালেট, রোদচশমা এবং বিখ্যাত বজরঙ্গী ভাইজান লকেট খোয়া গিয়েছে। যে সময় সালমান তরুণীদের সঙ্গে কথা বলছিলেন, সে সময় তাঁর কাছের একটি টেবিলে ওই জিনিসগুলি রাখা ছিল বলে জানা যায়। সেখান থেকেই ভক্তবেশী তরুণীরা সেগুলি হাতসাফাই করেন বলে অভিযোগ।

সালমানের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে অভিযোগ জানাতে বলেন। কিন্তু সালমান পুলিশের কাছে কোনও অভিযোগ না জানিয়ে নিজের নিরাপত্তারক্ষী বাড়িয়ে দুই থেকে ১৪ করে দেন।

বছর পাঁচেক আগে বিভিন্ন পত্রপত্রিকায় প্রকাশিত এই খবর গুজব বলে উড়িয়ে দেন সালমানের বোন অর্পিতা। তাঁর দাবি, সালমান সে সময়ে নাইটক্লাবে যেতেন না। তিনি সঙ্গে ওয়ালেটও রাখেন না বলেই দাবি বোন অর্পিতার।

এ বিষয়ে সালমান নিজেও কোনও দিন মুখ খোলেননি। তবে বলিউডে জোর গুঞ্জন, এই ঘটনার পরেই ব্যক্তিগত নিরাপত্তারক্ষী সংখ্যা বাড়িয়ে দেন তিনি।

এসইউএ/এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি