ঢাকা, সোমবার   ২৬ জুলাই ২০২১, || শ্রাবণ ১১ ১৪২৮

বইমেলায় নাকফুল কাব্যগ্রন্থ নিয়ে ঢাকা কলেজের সাদ্দাম

ঢাকা কলেজ প্রতিনিধি 

প্রকাশিত : ১৮:৩৩, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২০

অমর একুশে গ্রন্থমেলা-২০২০ এ দ্বিতীয় বই "নাকফুল" কব্যগ্রন্থ নিয়ে আসছে তরুণ কবি ও লেখক দেলোয়ার সাইদি সাদ্দাম। তিনি গ্রন্থমেলা ২০১৯ এ তার প্রথম বই "শিশির" গল্পগ্রন্থও প্রকাশ করেছিলেন।  ঐতিহাসিক ঢাকা কলেজের ২০১৪-১৫ সেশনের গণিত বিভাগের শিক্ষার্থী দেলোয়ার সাইদি সাদ্দাম।

গ্রন্থমেলা ২০২০ এ প্রকাশিত "নাকফুল" কাব্যগ্রন্থটি কবিতার এক নিপুণ প্যাকেজ।এখানে যেমন সমাজের অসঙ্গতি ফুটে উঠেছে 'আমাদের বিচরণক্ষেত্র', 'বিভেদহীন শ্রম', 'স্বাধীনতা একটি ভুল ডাক' কবিতাগুলোর মাধ্যমে। তেমনি 'নাকফুল', 'খোঁপার অন্ধকার', 'তুমি নামক মাদক' কবিতাগুলো রোমান্টিক আবহ প্রকাশ করে।

আবার 'বিচ্ছেদের পর', 'দেয়াল পেরুনো দীর্ঘশ্বাস', 'ঈশ্বর ও প্রতারক', 'আমি কিংবা তুমি' কবিতাগুলো নাট্যসংলাপের মতো ভাঙা হৃদয়ের প্রলেপ হতে পারে। সাবলীলভাবে কবিতায় একের পর এক গল্প বলে গেছেন কবি ও লেখক সাদ্দাম। একটু গভীরেই প্রবেশ করলে শোনা যায় সে গল্পগুলোর কোলাহল।

দেলোয়ার সাইদি সাদ্দাম লেখা-লেখি ছাড়াও বিভিন্ন সামাজিক সংগঠনে অংশ গ্রহন করে সামজিক কাজ করে থাকেন। নাকফুলের পর 'জলসিঁড়ি' নামক একটা উপন্যাস নিয়ে তিনি কাজ করছেন। যা তার তৃতীয় বই হিসেবে বাহির হবে। "নাকফুল" কাব্যগ্রন্থটি পাওয়া যাচ্ছে ইছামতি পাবলিকেশন ৪৩৭ ও ৪৩৮ নং স্টলে।

দেলোয়ার সাইদি সাদ্দাম ছোটবেলা থেকে বিভিন্ন বিষয়ে কবিতা ও গল্প লেখার প্রতি আগ্রহী ছিলেন। তিনি ১৯৯৫ সালে উত্তরবঙ্গের জেলা পঞ্চগড়, আটোয়ারী উপজেলায় জন্মগ্রহন করেন। ২০১২ সালে মাধ্যমিক ও ২০১৪ সালে উচ্চ মাধ্যমিক পরিক্ষায় কৃতিত্বের সাথে উত্তীর্ণ হন। উচ্চ মাধ্যমিক শেষ করে ঐতিহ্যবাহী ঢাকা কলেজে ২০১৪-১৫ সেশনে গণিত বিভাগে ভর্তি হন। ঢাকা কলেজে পড়া অবস্থায় তার লেখার জীবন শুরু হয়। 

লেখক হওয়ার পিছনে অনুপ্রেরণার কথা জানতে চাইলে তিনি বলেন, আমার লেখক হওয়ার পেছন আমার বড়বোন ও ছোট ভাইয়ের অনুপ্রেরণা খুব বেশী কাজ করেছে। এছাড়াও ছোট থেকে  বিভিন্ন বিষয়ে গল্প, কবিতা ও উপন্যাস পড়া ও লেখা তার বেশ ভাল লাগতো বলেও জানান। গণিত বিভাগের ছাত্র হয়েও বাংলা সাহিত্যকে তিনি ধারণ করেছেন লেখনিতে।

কেআই/আরকে


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি