ঢাকা, বুধবার   ২৮ জুলাই ২০২১, || শ্রাবণ ১২ ১৪২৮

বাংলাদেশ ব্যাংকের ৮০০ কোটি টাকা হ্যাকড হওয়ার ঘটনায় মামলা করবে সরকার- অর্থমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১৮:২৩, ৮ মার্চ ২০১৬ | আপডেট: ২০:৩৪, ৮ মার্চ ২০১৬

ফেডারেল রিজার্ভে থাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের অ্যাকাউন্ট হ্যাকড করে হাতিয়ে নেয়া অর্থ আদায়ে প্রায়োজনে মামলা করা হবে বলে জানিয়েছেন অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আব্দুল মুহিত। এরই মধ্যে খোয়া যাওয়া অর্থের কিছু অংশ আদায় করা হয়েছে বলে দাবি করেছে বাংলাদেশ ব্যাংক। তবে অর্থ হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ অভিযোগ অস্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রের কেন্দ্রীয় ব্যাংক। ফেডারেল রিজার্ভে থাকা বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রায় ৮০০ কোটি টাকা হ্যাক করেছে চীনা হ্যাকাররা। চক্রটি হ্যাকিংয়ের মাধ্যমে হাতিয়ে নেয়া ওই অর্থ শ্রীলংকা ও ফিলিপাইনে সরিয়ে নিয়েছে। এমন খবর গণমাধ্যমে এলে সোমবার এক বিবৃতি দেয় বাংলাদেশ ব্যাংক। এতে বলা হয়, হ্যাকড হওয়া ওই অর্থে একটি অংশ আদায় হয়েছে। বাকি অর্থ আদায়ে কাজ করছে দেশি-বিদেশি কয়েকটি এন্টি মানিলন্ডারিং সংস্থা। এদিকে, বাংলাদেশ ব্যাংকের এই দাবি অস্বীকার করেছে যুক্তরাষ্ট্রে কেন্দ্রিয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভ সিস্টেম। নিউইয়র্ক ফেডের মূখপাত্র বার্তা সংস্থা রয়টার্সকে জানান, ফেডারেল রিজার্ভে অবৈধভাবে প্রবেশ করে অর্থ হ্যাক করার কোনো তথ্য-প্রমাণ তাদের হাতে নেই। অপরদিকে, অর্থমন্ত্রী আবুল মাল আবদুল মুহিত মঙ্গলবার সচিবালয়ে বলেন, ফেডারেল রিজার্ভের দোষেই বাংলাদেশ ব্যাংকের অর্থ হ্যাকড হয়েছে। এই অর্থ আদায়ে প্রয়োজনে সংস্থাটির বিরুদ্ধে মামলা করা হবে।
Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি