ঢাকা, শনিবার   ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২১, || আশ্বিন ১০ ১৪২৮

মহামারীর কারণে নির্ভরতা বেড়েছে ই-কমার্সের ওপর (ভিডিও)

তৌহিদুর রহমান

প্রকাশিত : ১১:৫৮, ২০ এপ্রিল ২০২১ | আপডেট: ১৫:১৮, ২০ এপ্রিল ২০২১

করোনা মহামারীর কারণে স্বশরীরে কেনাকাটা এড়িয়ে চলায় ই-কমার্সের ওপর নির্ভরতা বেড়েছে ক্রেতাদের। এতে বাড়ছে অনলাইন ব্যবসার পরিসর। এছাড়া সরকার ই-কমার্সকে জরুরি সেবার আওতাভুক্ত করায় বাড়তি গুরুত্বও পেয়েছে খাতটি। তবে আসন্ন ঈদের পণ্যসহ সব ধরনের ভোক্তা সামগ্রী সহজেই যাতে ক্রেতাদের দোড়গোড়ায় পৌঁছানো যায়, সে বিষয়ে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন এখাতের উদ্যোক্তারা।

করোনার প্রভাবে ক্ষতির মুখে পড়েছে দেশের ব্যবসা-বাণিজ্য। দ্বিতীয় ঢেউ সামাল দিতে বন্ধ দোকানপাট-শপিংমল। এমন পরিস্থিতিতে অনলাইন মার্কেট প্লেস বা ই-কমার্সের ওপর নির্ভরতা বেড়েছে ভোক্তাদের। অনেক ক্রেতাই এখন চাল-ডাল, মাছ-মাংস, তৈরি খাবার, সজবি-সহ সব ধরনের পণ্য অনলাইন মার্কেট থেকে সংগ্রহ করছেন। যদিও সঠিক সময়ে সঠিক পণ্য পৌঁছানো-সহ কিছু সীমাবন্ধতা এখনও রয়েই গেছে এ ব্যবসায়।  

তবে প্রয়োজনীয় সরকারি নীতিসহায়তা দেশের ই-কমার্স ব্যবসাকে এগিয়ে যেতে সহযোগিতা করছেন বলে জানান সংশ্লিষ্টরা। 

দারাজ বাংলাদেশের চীফ অপারেটিং অফিসার খন্দকার তাসফিন আলম বলেন, এতো বছর ধরে যে ই-কমার্স ইন্ডাস্ট্রিটি ধীর গতিতে এগিয়ে যাচ্ছিল সেটি আসলে এই করোনাকালীন সময়ে পূর্ণতা পেয়েছে। লজিস্টিং ইনফ্রাকস্টাচার সব সময়েই চ্যালেঞ্জিং থাকে আর এখন যে লকডাউনের মধ্য দিয়ে যাচ্ছি সেটা আরও বেশি চ্যালেঞ্জিং করে তুলে আমাদের ডেলিভারী সিস্টেমকে।

ইভ্যালি হেড অব বিজনেস সাজ্জাদ আলম বলেন, ২০২০ এর মার্চ থেকে এবছর মার্চের তুলনা করলে দেখবো যে, আমাদের প্রতিটা অনলাইন ব্যবসাই দ্বিগুণ আকারে বৃদ্ধি পেয়েছে। কাস্টমারদের এই চাহিদা পূরণের চেষ্টার করার ফলেই করোনা পরিস্থিতিতেও আমাদের ব্যবসা বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। 

এদিকে, আসন্ন ঈদ উপলক্ষে বিনিয়োগ বেড়েছে ই-কমার্স খাতে। তাই বিক্রি বৃদ্ধির পাশাপাশি যে কোন পরিস্থিতিতে সরবরাহ ব্যবস্থা নির্বিঘ্ন রাখা জরুরি বলে মত এই উদ্যোক্তার।   

আজকের ডিল সিইও ফাহিম মাশরুর বলেন, ঈদের সিজনে অনেকেই অনলাইনে বিক্রি করে। অনেকের পুঁজি এখানে দেওয়া আছে, এখানে অনেকের কর্মসংস্থানে একটি ব্যাপার আছে। এই প্রোডাকগুলোকে কাস্টারদের কাছে পৌঁছানোর সিস্টেম না থাকলে তারা কিন্তু সেল করতে পারবে না। তাতে বড় একটা আর্থিক ক্ষতির সম্মুখিন হবে।

ই-কমার্স ব্যবসার ওপর ক্রেতাদের আস্থা বাড়াতে পণ্যে গুণগতমান ও সঠিক সময়ে সরবরাহ নিশ্চিত করা জরুরি বলে মত বিশ্লেষকদের।

ফাহিম মাশরুর বলেন, বাণিজ্য মন্ত্রণালয় বা বাংলাদেশ ব্যাংক আরেকটুকু নজরদারি বাড়ায় যাতে কোনভাবে কোন গ্রাহক ক্ষতিগ্রস্ত না হয়, প্রতারিত না হয়। তাহলে অনলাইনের ব্যাপারে লোকজনের আস্থা আরও বাড়বে।
দেখুন ভিডিও :

এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি