ঢাকা, রবিবার   ১৮ আগস্ট ২০১৯, || ভাদ্র ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

অনন্ত জলিলের চুরি যাওয়া টাকা পাওয়া গেল মাটির নিচে

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ০৯:৪৮ ১৮ জুলাই ২০১৯ | আপডেট: ১৪:৪৪ ১৮ জুলাই ২০১৯

চিত্রনায়ক অনন্ত জলিল। অভিনেতা যেমন তার একটি পরিচয়, সেই পরিচয়ের বাইরে অন্য পরিচয় হচ্ছে তিনি একজন ব্যবসায়ি। সম্প্রতি তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান এ জে আই গ্রুপের বেশ কিছু টাকা চুরি হয়েছে। এবার সেই চুরি যাওয়া টাকার কিছু অংশ পাওয়া গেছে মাটির নিচে।

টাকা চুরির ঘটনায় গত ৭ এপ্রিল সাভার মডেল থানায় মামলা হয়েছে। মামলায় উল্লেখ করা হয়, এজে আই গ্রুপের পরিচালকের বাসা থেকে ৫৭ লাখ টাকা নিয়ে কারখানার হিসাবরক্ষণ কর্মকর্তা জহিরুল ইসলাম ও গাড়ি চালক শহীদ বিশ্বাস প্রাইভেটকারে সাভার আসছিলেন। পথে কৌশলে প্রাইভেটকার ও চাবি রেখেই ওই টাকা নিয়ে পালিয়ে যান শহীদ।

এদিকে টাকা চুরি হওয়ার পর অনন্ত জলিল গাড়িচালককে ধরিয়ে দেওয়ার জন্য পুরস্কার ঘোষণা করেন।

তিনি ফেসবুকে লেখেন, আমার ভক্তদের কাছে আমি একটি সাহায্য চাচ্ছি। আমার কারখানার এক গাড়িচালক ৫৭ লাখ টাকা গ্যাস বিল না দিয়ে পালিয়েছে। যে এই প্রতারককে ধরিয়ে দিতে পারবেন, তাকে আমি নিজ হাতে পুরস্কৃত করব।

টাকা চুরির মামলার আসামি অনন্ত জলিলের গাড়িচালক শহীদ বিশ্বাসের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী মাটির নিচ থেকে উদ্ধার করা হয়েছে ২০ লাখ টাকা।

এবিষয়ে সাভার ডিবির পরিদর্শক আবুল বাশার বলেন, ‘ভোলা জেলার দৌলতখান উপজেলার জয়নগর গ্রাম থেকে মঙ্গলবার শহীদকে গ্রেফতার করা হয়। শহীদের সঙ্গে তার স্ত্রী আরজু বেগম এবং সহযোগী জুয়েল ও শাহাবুদ্দিনকেও গ্রেফতার করে পুলিশ।’

ডিবি পুলিশের এই কর্মকর্তা আরো বলেন, ‘চুরি করা টাকার মধ্যে ২০ লাখ টাকা পলিথিনে মুড়িয়ে বাড়ির উঠানে পুঁতে রাখেন শহীদ। তাকে গ্রেফতারের পর সেই টাকা মাটি খুঁড়ে উদ্ধার করা হয়। আর তার স্ত্রী আরজুর কাছ থেকে উদ্ধার করা হয় ৭ লাখ টাকা।’

অনন্ত জলিল নিজের ফেসবুক পেজে জানান, ‘শহীদ বিশ্বাসের নির্মাণাধীন বাড়ির সামনে মাটির নিচ থেকে ২০ লাখ টাকা এবং তার স্ত্রী আরজুর নিকট হতে ৭ লাখ ৫০ হাজার টাকা উদ্ধার করা হয়।’

 

এসএ/

 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি