ঢাকা, বুধবার   ০৫ আগস্ট ২০২০, || শ্রাবণ ২১ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

অভিষেকই কি বাড়িতে বয়ে নিয়ে এলেন সংক্রমণ?

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৯:৪৬ ১২ জুলাই ২০২০ | আপডেট: ২০:০৪ ১২ জুলাই ২০২০

করোনায় আক্রান্ত গোটা বচ্চন পরিবার। পরিবারের পাঁচ জনের মধ্যে চার জনই আক্রান্ত। কী ভাবে? এত নিয়ম মেনে চলার পরেও কোথায় ‘ফাঁক’ থেকে গেল? বচ্চন পরিবারের আরোগ্য কামনার পাশাপাশি গতকাল থেকেই এই প্রশ্নে উত্তাল গোটা দেশ।

প্রথম থেকেই সচেতন ছিলেন বচ্চন পরিবার। হাত ধোয়া থেকে শুরু করে সামাজিক দূরত্ব, মেনে চলছিলেন সমস্ত নিয়ম। দেশবাসীকে করোনা নিয়ে সতর্ক করতে একাধিক বার্তাও পোস্ট করছিলেন সোশ্যাল মিডিয়ায়। এত কড়াকড়ি, এত নিয়ম কানুন...তাও করোনার হানা এড়াতে পারলেন না ওঁরা। বচ্চন পরিবারের সংক্রমিত হওয়ার পিছনে কী কী কারণ থাকতে পারে?

ইন্ডাস্ট্রি সূত্রে জানা গিয়েছে, অভিষেক ছাড়া বচ্চন পরিবারের কেউ-ই শুটিংয়ের জন্য বাড়ি থেকে বার হননি। মহারাষ্ট্র সরকারের নির্দেশিকা অনুযায়ী ৬৫ বছরের বেশি ব্যক্তিরা এই সময়ে শুটিং করতে পারবেন না। তাই অমিতাভ বচ্চন বাইরে যাননি। বাইরে যাননি জয়া-ঐশ্বর্যা-আরাধ্যাও।

তবে এ মাসেরই ৮ তারিখ ভারসোভার একটি ডাবিং স্টুডিওতে ওয়েব সিরিজ ‘ব্রিদ: ইনটু দ্য শ্যাডো’-র ডাব করতে বেরিয়ে ছিলেন অভিষেক। হতে পারে সেখান থেকে সংক্রমিত হয়েছেন অভিষেক। তার থেকেই সংক্রমিত হয়েছেন জয়া ছাড়া বচ্চন পরিবারের বাকিরাও। ইতিমধ্যেই সেই স্টুডিয়ো সিল করে দেওয়া হয়েছে।

সংক্রমণের আরও একটি জোরালো কারণ, বচ্চন বাংলো‘জলসা’আন্ধেরির ‘কে’ ওয়ার্ডে অবস্থিত। বর্তমানে সেটি করোনা হটস্পট হিসেবে চিহ্নিত। ফলে, সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়া খুব অস্বাভাবিক কিছু নয়। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ের হিসেব অনুযায়ী, সংক্রমণের দিক থেকে দেশের মধ্যে শীর্ষে রয়েছে মহারাষ্ট্র। সেখানে আক্রান্তের সংখ্যা ২ লক্ষ ৪৬ হাজার ৬০০। 

সংক্রমণ ছড়াতে পারে পরিচারিকাদের থেকেও। বচ্চন পরিবার করোনা সংক্রমিত হওয়ার পরেই তাঁদের চারটি বাংলোর মোট ৩০ জন পরিচারককে আপাতত হোম কোয়রান্টিনে রাখা হয়েছে।

গতকাল রাতে নিজের টুইটার হ্যান্ডলে করোনায় আক্রান্ত হওয়ার খবর প্রকাশ্যে আনেন বিগ-বি। এর কিছুক্ষণ পরেই অভিষেক জানান, করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন তিনিও। রবিবার জানা যায়, শুধু অমিতাভ-অভিষেকই নন, ঐশ্বর্যা এবং আরাধ্যারও করোনা হয়েছে। শুধুমাত্র জয়া বচ্চন এবং অমিতাভ কন্যা শ্বেতা নন্দার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছে। অমিতাভ এবং অভিষেক মুম্বাইয়ের নানাবতী হাসপাতালে ভর্তি থাকলেও বাড়িতেই চিকিৎসা চলবে ঐশ্বর্যা এবং আরাধ্যার।

এসি
 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি