ঢাকা, শুক্রবার   ১৮ অক্টোবর ২০১৯, || কার্তিক ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

আবারও আইনি জটিলতায় ‘মুন্না ভাই’

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৭:০১ ৪ অক্টোবর ২০১৭

ফের আইনের বেড়াজালে ফাঁসলেন সঞ্জয় দত্ত। নিজের নতুন ছবি `দ্য গুড মহারাজা` ছবির জন্য এই বিপাকে পড়লেন বলিউডের মুন্না ভাই।

`ভূমি` ছবির পরিচালক উমঙ্গ কুমারের সঙ্গেই ফের জুটি বেঁধেছিলেন সঞ্জয় দত্ত। জানা গিয়েছিল, পর্দায় মহারাজা জাম সাহেব শ্রী দিগ্বিজয় সিংজি রণজিৎ সিংজি এর চরিত্র ফুটিয়ে তুলবেন তিনি। পরাধীন ভারতে ব্রিটিশ সেনার উচ্চপদস্থ কর্মকর্তা ছিলেন নওয়ানগরের এই মহারাজা। 

এক বছর ধরে মহারাজার জীবনকে পর্দায় তুলে ধরার কাজ করছিলেন পরিচালক উমঙ্গ। সঞ্জয়ের প্রথম ঝলকও প্রকাশ্যে এসে গিয়েছে। কিন্তু এরপরই ছবি নিয়ে আপত্তি তুলেছেন মহারাজার উত্তরসূরিরা।

মহারাজার দুই কন্যা হেরশাদ কুমারী ও হিমাংশু কুমারীর তরফ থেকে ছবির নির্মাতাদের আইনি নোটিসও পাঠানো হয়েছে। এতে দাবি করা হয়েছে, মহারাজা জাম সাহেব শ্রী দিগ্বিজয় সিংজি রণজিৎ সিংজি একজন পাবলিক প্রোফাইল। তাঁর জীবনের কাহিনী এভাবে পর্দায় ফুটিয়ে তোলার আগে প্রযোজকদের উচিত ছিল মহারাজার উত্তরসূরিদের অনুমতি নেওয়া। কিন্তু তেমন কোনও অনুমতি নেওয়া হয়নি। মহারাজার পরিবারের অনুমতি ছাড়া এ ছবি তৈরি করা হলে আইনি ব্যবস্থা নিতে বাধ্য হবেন তাঁরা।

নোটিস পাওয়ার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন প্রযোজক সন্দীপ সিং। এর প্রতিক্রিয়া দিতে গিয়ে তিনি জানান, `দিগ্বিজয় সিংজি রণজিৎ সিংজির কাহিনী লোকের মুখে মুখে ফেরে। তিনি একজন জনপ্রিয় মানুষ। এখনো পোল্যান্ডে তাঁকে সম্মান জানিয়ে `মহারাজা ডে` সেলিব্রেট করা হয়। আমার মনে হয় না তাঁর জীবন পর্দায় তুলে ধরার জন্য কারও অনুমতি প্রয়োজন। তাও বিষয়টি খতিয়ে দেখা হচ্ছে।`

অবশ্য সঞ্জয়ের এই সিনেমার ক্ষেত্রে বিতর্ক নতুন নয়। এর আগে শোনা গিয়েছিল এ ছবির কাহিনীর ওপর নাকি নজর ছিল আশুতোষ গোয়াড়িকরের। কিন্তু আগেই কাহিনীর স্বত্ব নিয়ে নেন উমঙ্গরা। এতে নাকি একটু ক্ষুব্ধই হয়েছিলেন আশুতোষ। তবে তা এখন অতীত। এখন প্রযোজকদের মাথা ব্যথার কারণ মহারাজার উত্তরসূরিরা। 

 

সূত্র : সংবাদ প্রতিদিন

 

এসএ/এআর

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি