ঢাকা, মঙ্গলবার   ১৯ নভেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ৫ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

খ্রিষ্ট্রীয় জঙ্গীবাদের সমর্থক ছিলেন মসজিদে হামলাকারী

প্রকাশিত : ১৭:৩৭ ১৫ মার্চ ২০১৯

নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হামলার আগে ৭৩ পাতার একটি ইশতেহার প্রকাশ করেন ঘাতক ব্রেনটন ট্যারেন্ট। তার প্রকাশিত ইশতেহারে স্পষ্টত বুঝা যায় সে একজন খ্রিষ্টীয় জঙ্গীবাদের সমর্থক।

ইশতেহারে তিনি জানান, তিনি মুসলমানদের ঘৃণা করেন এবং যারা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে তারা নিজের রক্তের সঙ্গে প্রতারণা করেছে।

ওই ইশতেহারে সে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের উগ্র সমর্থক ক্যানডিস ওউনসের কাছ থেকে অনুপ্রারিত হওয়ার কথাও জানিয়েছে।

সন্ত্রাসী টারান্ট, ট্রাম্পের উগ্র সমর্থক ক্যানডিস ওউনস সম্পর্কে লিখেছে, সার্বিকভাবে যিনি আমাকে বেশি প্রভাবিত করেছেন, তিনি হচ্ছেন ক্যানডিস ওউনস। যখনই তিনি কথা বলেন, আমি বিমোহিত হয়ে যাই।

নিউজিল্যান্ডে মসজিদে হত্যাকাণ্ডের পূর্বাভাস দিয়ে ৭৩ পাতার ইশতেহার প্রকাশ করেছে ইসলাম বিদ্বেষী ২৮ বছর বয়সী ব্রেনটন ট্যারান্ট।

এতে মুসলমানদের প্রতি ঘৃণা প্রকাশ করে সে লিখেছে, মুসলমানদেরকে আমি ঘৃণা করি। যারা ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছে তারা নিজের রক্তের সঙ্গে প্রতারণা করেছে বলে সে দাবি করেছে।

খুনি টারান্ট তার ইশতেহারে আরও লিখেছে, আমি ২০১১ সালে নরওয়ের ওসলোতে ৭৭ জনকে হত্যাকারী অ্যান্ডারর্স ব্রেইভিকসহ অন্য হামলাকারীদের কাছ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েছি।

মুসলমানসহ অন্যদেরকে অনুপ্রবেশকারী হিসেবে উল্লেখ করে শেতাঙ্গদের বিজয় হবে বলে সে দাবি করেছে।

শুক্রবার জুম্মার নামাজ চলাকালে নিউজিল্যান্ডের ক্রাইস্টচার্চে দুই মসজিদসহ কয়েকটি স্থানে অন্তত দুই সন্ত্রাসীর বর্বরোচিত হামলায় অন্তত ৪৯ জন নিহত হয়েছেন। এদের মধ্যে দুই বাংলাদেশিও রয়েছেন। আহত হয়েছেন আরও ৪৯ জন। এদের মধ্যেও একাধিক বাংলাদেশি রয়েছেন বলে খবর মিলেছে। তবে হামলার ঘটনায় অল্পের জন্য বেঁচে গেছেন সফররত বাংলাদেশ জাতীয় দলের ক্রিকেটাররা।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি