ঢাকা, রবিবার, ২৩ সেপ্টেম্বর, ২০১৮ ১৪:৪৭:০৯

মালদ্বীপে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

মালদ্বীপে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ভোটগ্রহণ চলছে

তৃতীয়বারের মত মালদ্বীপে প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে প্রথম ধাপে ভোটগ্রহণ শুরু হয়েছে। স্থানীয় সময় সকাল ৮টা থেকে ভোট গ্রহণ শুরু হয়েছে।ভোটগ্রহণ চলবে একটানা বিকেল ৪টা পর্যন্ত। নির্বাচনে ক্ষমতাসীন আব্দুল্লাহ ইয়মিনের দল পিপিএম এর প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছে সাবেক প্রেসিডেন্ট মোহাম্মদ নাশিদের দল এমডিপি`র প্রার্থী ইব্রাহিম মোহাম্মাদ সোলিহ। এবারের নির্বাচনে ভোট দেবেন ২ লাখ ৬০ হাজার ভোটার। প্রচারণার শেষ দিন শনিবার এমডিপি`র প্রধান কার্যালয়ে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। বিষয়টিকে বিরোধীমত দমনে সরকারী আগ্রাসন হিসেবে দেখছেন বিশ্লেষকরা। উল্লেখ্য, ২০০৮ সালে গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র হওয়ার পর এটি মালদ্বীপে তৃতীয়বারের মত প্রেসিডেন্ট নির্বচন। সূত্র : আল জাজিরা এমএইচ/
মার্কিন বিমান হামলায় সোমালিয়ায় নিহত ১৮

সোমালিয়ায় মার্কিন বিমান হামলায় আল-শাবাবের ১৮ জন যোদ্ধা নিহত হয়েছেন। যুক্তরাষ্ট্রের আফ্রিকা কমান্ড ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন। গত শুক্রবার সোমালিয়ার লোয়ার জুবা প্রদেশে মার্কিন ও সোমালি সরকারি সৈন্যদের সঙ্গে আল শাবাব জঙ্গিদের সংঘর্ষের সময় মার্কিন বাহিনীর ডাকে বিমান হামলাটি চালানো হয় বলে জানানো হয়েছে। কমান্ডের এক বিবৃতিতে জানায়, ‘যুক্তরাষ্ট্র ও অংশীদার বাহিনীগুলো আক্রমণের মুখে পড়ার পর জঙ্গিদের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের বিমান হামলাটি চালানো হয়। আমাদের বর্তমান মূল্যায়ন হচ্ছে এ ঘটনায় কোনো বেসামরিক নিহত বা আহত হয়নি।’ এদিকে সোমালিয়ায় অবস্থানরত মার্কিন বাহিনীগুলো জঙ্গিগোষ্ঠী আল শাবাবের বিরুদ্ধে দেশটির জাতিসংঘ সমর্থিত সরকারকে সমর্থন দিচ্ছে। আল শাবাব ২০১১ সালে রাজধানী মোগাদিশু থেকে সরে যাওয়ার পর থেকে দখলকৃত অধিকাংশ এলাকার নিয়ন্ত্রণ হারিয়েছে দলটি। সূত্র: আল-জাজিরা এমএইচ/  

তানজানিয়ায় দুর্ঘটনায় মৃতের সংখ্যা বেড়ে ২০৯

পূর্ব আফ্রিকার দেশ তানজানিয়ায় ফেরি ডুবিতে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দায়িয়েছে ২০৯ জনে। মৃতের সংখ্যা আরো বাড়তে পারে বলে আশঙ্কা করা হচ্ছে। এদিকে তানজানিয়ায় প্রেসিডেন্ট জন মাগুফলি এ ঘটনার নিন্দা জানিয়ে ফেরির সব চালককে গ্রেফতারের নির্দেশ দিয়েছেন। ফেরির ক্যাপ্টেনকে আটক করে আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর হেফাজতে রাখা হয়েছে। গত বৃহস্পতিবার (২০ সেপ্টেম্বর) অতিরিক্ত যাত্রীসহ লেক ভিক্টোরিয়ার তানজানিয়া অংশের ইউক্রেওয়ি দ্বীপের কাছে নেইরিরে নামের ফেরিটি ডুবে যায়। পরে ফেরিটিকে উকোরা ও বুগোলোরা দ্বীপের মধ্যবর্তী উপকূলের কাছাকাছি উল্টানো অবস্থায় পাওয়া যায়। ফেরি দুর্ঘটনায় ইতোমধ্যে তানজানিয়ায় চারদিনের রাষ্ট্রীয় শোক ঘোষণা করা হয়েছে। দুর্ঘটনার সঠিক কারণ অনুসন্ধানে তদন্ত চলছে বলে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা জানিয়েছেন। দেশটির রাষ্ট্রিয় টেলিভিশন বলছে, ফেরিটিতে ধারণক্ষমতা একশ জন থাকলেও এতে চারশো’র বেশি যাত্রী ছিল।   সূত্র: সিএনএন এমএইচ/

ভারতকে হুঁশিয়ারি দিয়েছে পাকিস্তান

ভারতীয় সেনা প্রধান বিপিন রাওয়াতের বক্তব্যের জবাবে এবার যুদ্ধের প্রসঙ্গ ছুঁড়ে দিল পাকিস্তান৷ বিভিন্ন সংবাদ মাধ্যমে প্রকাশিত খবর থেকে জানা যায়, গতকাল শনিবার পাকিস্তানের ডিজি আইএসপিআর মেজর জেনারেল আসিফ গফুর জানিয়েছেন, ‘পাকিস্তান একটি পরমাণু শক্তিসম্পন্ন দেশ এবং সে সর্বদা যুদ্ধের জন্য প্রস্তুত৷ পাকিস্তানের শান্তির বার্তাকে কেউ যেন দুর্বলতা মনে না করে, এমনি হুঁশিয়ারি দিয়েছে প্রতিবেশী রাষ্ট্র৷’ প্রসঙ্গত, ভারতের সেনাপ্রধান জেনারেল বিপিন রাওয়াত শনিবার বলেন, ‘পাকিস্তানের সেনা এবং সন্ত্রাসবাদীদের উচিত শিক্ষা দেওয়ার সময় চলে এসেছে৷ শান্তির বার্তা এবং সন্ত্রাস একসঙ্গে চলতে পারে না বলেই মত তার৷ সেনাবাহিনীকে যথেষ্ট স্বাধীনতা দেওয়া রয়েছে, জবাব দেওয়ার জন্য তারা প্রস্তুত এবং সরকারও পাশে রয়েছে৷’ উল্লেখ্য, ভারতের সঙ্গে মুখোমুখি বৈঠক চেয়েছিলেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। দুই দেশের বিদেশমন্ত্রীর বৈঠকের আবেদন জানিয়ে তিনি চিঠি লিখেছিলেন নরেন্দ্র মোদিকে। কিন্তু কাশ্মীরে রক্তপাতের প্রতিবাদে সেই বৈঠকের সম্ভাবনা বাতিল করে দেয় ভারত। এরপরই সুর চড়ালেন ইমরান। ভারতের কোনও দূরদর্শিতা নেই বলে উল্লেখ করলেন তিনি। শুক্রবার বৈঠক বাতিলের কথা জানিয়ে দেয় কেন্দ্র। এরপর শনিবার ট্যুইট করেন পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খান। তিনি লেখেন, ‘ভারতের নেতিবাচক উত্তরে আমরা হতাশ। শান্তি আলোচনা পুনরায় শুরু করার জন্য আহ্বান জানানো হয়েছিল।’ তিনি আরও লেখেন, সারাজীবনে তিনি এমন অনেক ক্ষুদ্র মাপের লোককে দেখেছেন যারা, বড় দফতরের দায়িত্বে থাকেন। তাদের কোনও দূরদর্শিতা থাকে না বলেও উল্লেখ করেছেন ইমরান। সূত্র: কলকাতা ২৪x৭ একে//

বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীরা উইপোকার মতো: অমিত শাহ

বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীদের এবার উইপোকা বলে কটাক্ষ করলেন ভারতের বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ। ছত্তিসগড়ের পর এবার রাজস্থানে গিয়েও একই অনুপ্রবেশ নিয়ে মন্তব্য করলেন তিনি। রাজস্থানের আর কয়েকদিনের মধ্যেই হবে বিধানসভা নির্বাচন। তার আগে গতকাল শনিবার প্রচারে গিয়েই এমন মন্তব্য করলেন অমিত শাহ। নির্বাচন উপলক্ষে রাজস্থানের বেশ কয়েকটি জায়গায় প্রচার চালাচ্ছেন অমিত। রাজস্থানের গঙ্গাপুরে একটি সভায় বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি বলেন, ‘আসামে কমপক্ষে ৪০ লাখ অবৈধ বাংলাদেশি অনুপ্রবেশকারীকে চিহ্নিত করা হয়েছে। এই অনুপ্রবেশকারীরা উইপোকার মত।’ সব অবৈধ অনুপ্রবেশকারীকে বের করে দেওয়া হবে বলেও উল্লখ করেন তিনি।‌ বসুন্ধরা রাজে সিন্ধিয়ার ভূয়সী প্রশংসা করে অমিত বলেন, এই সরকার অনড় ও অটলভাবে রাজ্যের উন্নতি করে চলেছে। এদের কোনও দল হঠাতে পারবে না।’‌ পাশাপাশি কংগ্রেসের সমালোচনা করে অমিত বলেছেন, ‘‌কংগ্রেস গোটা দেশে কিছুই করতে পারেনি। পারবেও না। কারণ ওদের কোনও নেতাই নেই। দলের কোনও নীতিই নেই।’‌ এর আগে রায়পুরে গিয়েও একই কথা বলেন অমিত শাহ। লোকসভা ভোটের পরেই দেশে থেকে হঠানো হবে সব অনুপ্রবেশকারীদের। ছত্তিসগড়ে প্রকাশ্য জনসভাতেই সাফ জানিয়ে দেন তিনি। তিনি বলেছেন, ‘২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনের পরে ভারতে কোনও অনুপ্রবেশকারী থাকবে না। বিজেপি অনুপ্রবেশকারীদের সঙ্গে কোনও সমঝোতা করবে না।’ আসামের নাগরিক পঞ্জির চূড়ান্ত খসড়ায় বাদ গেছে ৪০ লাখ মানুষের নাম। এই নিয়ে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে সরব হয়েছে বিরোধী শিবির। সবাই মানবাধিকারের প্রশ্ন তুলেছে। এই বিষয়ে অমিত শাহ বলেছেন, ‘অনুপ্রবেশকারীরা ভারতে এসে হিংসা ছড়ায়। আমি রাহুল গান্ধী এবং তার সহযোগীদের কাছে আমার প্রশ্ন তারা কী দেশের শিশুদের মানবাধিকার দেখতে পায় না?’ একই সঙ্গে বিরোধীদের উদ্দেশ্যে তিনি আরও বলেছেন, ‘নিজের দেশের মানুষ নাকি অনুপ্রবেশকারী আপনারা কাদের পক্ষে?’ সূত্র: কলকাতা ২৪x৭ একে//

সৌদি আরবের প্রথম নারী সংবাদ পাঠিকা উইয়াম

পরিবর্তনের হাওয়া লাগা সৌদি আরবে প্রথমবারের মতো রাষ্ট্রীয় টেলিভিশন চ্যানেলে কোন নারীকে সংবাদ উপস্থাপনা করতে দেখা গেছে। উপস্থাপিকার নাম উইয়াম আল দাখিল। গত বৃহস্পতিবার একজন পুরুষ সহকর্মীর সঙ্গে আল সৌদিয়া টিভির সাড়ে নয়টার নিউজ বুলেটিন পড়তে দেখা যায় এই নারীকে। সৌদি আরবেরর মতো রক্ষণশীল রাষ্ট্রে এই প্রথম কোন নারীকে সংবাদ পড়তে দেখা গেছে। যা নিয়ে ইতোমধ্যে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলো আলোচনার ঝড় উঠেছে। অনেকেই এটি দেশটির বড় অর্জন বলেও মনে করছে। আল দাখিল এর আগে সিএনবিসি আরাবিয়ার রিপোর্টার এবং বাহরাইনভিত্তিক আল-আরব নিউজ চ্যানেলে উপস্থাপিকা হিসেবেও কাজ করেছেন। আল সৌদিয়া টিভি আগে সৌদি টিভি চ্যানেল নামে পরিচিত ছিল। রাষ্ট্রীয় মালিকাধীন এই টিভি চ্যানেলটি সৌদির সংস্কৃতি ও তথ্য মন্ত্রণালয় পরিচালনা করে। তবে সম্প্রতি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের ‘ভিশন ২০৩০’সহ সৌদি সরকারের বিভিন্ন পদক্ষেপকে হাইলাট করে এটিকে নতুনভাবে আল সৌদিয়া টিভি নামে চালু করা হয়। সৌদি যুবরাজের এই ‘ভিশন ২০৩০’ অর্জনের লক্ষ্যে দেশটির নারীরা এখন গাড়ি চালানো, স্টেডিয়ামে বসে খেলা দেখা এবং চাকরি করার অনুমতি পেয়েছেন। এছাড়া চলতি দশক শেষ হওয়ার আগে চাকরিতে নারীদের সংখ্যা এক তৃতীয়াংশ করার পরিকল্পনা রয়েছে যুবরাজ মোহাম্মদের। টিআর/

চীন ও হংকংকে যুক্তকারী দ্রুতগামী রেল নিয়ে বিতর্ক

চীনের মেইন-ল্যান্ডের সাথে যুক্ত হতে যাওয়া খুব দ্রুত গতির ট্রেন নিয়ে বিতর্ক তৈরি হয়েছে। এক্সপ্রেস রেলটি হংকং এর সাথে চীনের দক্ষিণের শহর গুয়ানঝুতে যেতে মাত্র ৪০ মিনিট লাগবে। আগে যে ট্রেনে যাতায়াত করা হত তার চেয়ে অর্ধেকের কম সময় লাগবে। চীনের কর্তৃপক্ষ স্টেশনে যৌথ চেকপোস্ট পরিচালনা করতে পারবে এমনকি ট্রেনের মধ্যেও সেটা করতে পারবে। কিন্তু এই ট্রেনটি উদ্বোধন নিয়ে বিতর্ক শুরু হয়েছে। কারণ প্রথম বারের মত চীনের অপরাধ বিষয়ক আইনটি হংকং-এ কার্যকর করার দিন চালু করা হচ্ছে। সমালোচকরা বলছেন এটা হংকং-এর স্বাধীনতা এবং মিনি-কন্সটিটিউশনের লঙ্ঘন করছে। ট্রেনটি শনিবার এক অনুষ্ঠানের মাধ্যমে উদ্বোধন করা হয়। একজন স্থানীয় আইন প্রণেতা এটাকে সাধুবাদ জানিয়ে বলেছেন, এই বুলেট ট্রেনে করে গুয়ানঝুতে যাত্রা ছিল ‘ খুব নীরব মনে হয়েছে যেন আমি প্লেনে করে যাচ্ছি’। সরকার বলছেন এই রেল যোগাযোগ হংকং, শেনঝেন এবং গুয়ানঝুর মধ্যে ব্যবসা বাণিজ্যের প্রসার ঘটাবে। ট্রেনটি সাধারণ মানুষের জন্য আজ রোববার থেকে চালু করা হবে। একই সাথে মেইন ল্যান্ড চায়নার বাকি অংশ এবং রাজধানী বেইজিং সাথে যোগাযোগ বৃদ্ধি করবে। এদিকে গনতন্ত্রপন্থী আইন প্রনেতারা এই উদ্বোধনী অনুষ্ঠান বয়কট করেছেন। এমনকি তারা স্টেশনের বাইরে বিক্ষোভ করেছে। তাদের বক্তব্য এই রেল লিঙ্ক হংকং এর স্বাধীনতার আইনি প্রক্রিয়াকে ছোট করবে। হংকং এক সময় ব্রিটিশ কলোনি ছিল। ১৯৯৭ সালে চীনের কাছে হস্তান্তর করা হয় কিন্তু কিছু শর্ত দিয়ে। সেই চুক্তির মধ্যে ছিল হংকং উচ্চ ক্ষমতার স্বায়ত্তশাসন ভোগ করবে শুধুমাত্র বৈদেশিক এবং প্রতিরক্ষা বিষয় ছাড়া। সেটাও ৫০ বছরের জন্য। এরফলে যেটা হয়েছে, হংকং এর নিজেদের আইন আছে, তাদের অধিকার এবং স্বাধীনতা রক্ষার করার জন্য সেগুলো ব্যবহার করা হয়। আর মেইন-ল্যান্ড চাইনার বেশিরভাগ আইন এখানে প্রয়োগ করা যায় না। নতুন এই ট্রেনটি চালু করার ফলে প্রথমবারের মত চীনের কর্তৃপক্ষ চীনের আইন হংকং এর স্টেশনে এবং ট্রেনে প্রয়োগ করতে পারবে। চীনের শীর্ষ আইনপ্রনেতারা বলছেন এটা হংকং এর স্বায়ত্তশাসনের ওপর কোন হস্তক্ষেপ করবে না। এদিকে হংকং এর বার অ্যাসোসিয়েশন সমালোচনা করে বলেছে, এটা হংকং এর মিনি-সংবিধানকে লঙ্ঘন করবে। এই রেল প্রকল্প নিয়ে আরো সমালোচনা রয়েছে যে, তিন বছর দেরিতে কাজ শেষ হওয়ার কারণে ৩ বিলিয়ন ডলার বাড়তি খরচ হয়েছে। সূত্র: বিবিসি বাংলা এমএইচ/

আমেরিকায় তিন মাসে চাকরি যেতে পারে অনেক ভারতীয়ের

আগামী তিন মাসের মধ্যেই আমেরিকায় চাকরির অধিকার হারাতে পারেন এইচ১বি ভিসাধারীদের স্বামী বা স্ত্রীরা। একটি মার্কিন আদালতে গতকাল শনিবার ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন জানিয়েছে, এইচ৪ ভিসা যাদের রয়েছে, তাদের ‘ওয়ার্ক পারমিট’ বা আমেরিকায় চাকরি করা বন্ধ করতে মাস তিনেকের মধ্যেই আইন তৈরি হবে। তা জমা পড়বে হোয়াইট হাউসের অফিস অব ম্যানেজমেন্ট অব বাজেট (ওএমবি)-এ। এই সিদ্ধান্ত কার্যকর হলে বড়সড় বিপাকে পড়বেন আমেরিকায় কর্মরত ভারতীয়রা। কারণ পরিসংখ্যান বলছে, এইচ১বি ভিসাধারীদের ৯০ শতাংশই ভারতীয় এবং এদের একটা বড় অংশই তথ্যপ্রযুক্তি কর্মী, যারা কর্মসূত্রে সপরিবার আমেরিকায় গিয়েছেন। এইচ১বি ভিসাধারীদের জীবনসঙ্গী এবং ২১ বছরের কমবয়সি সন্তানদের এইচ৪ ভিসা দেয় আমেরিকা। এই এইচ৪ ভিসাধারীদেরও ওয়ার্ক পারমিট দিয়েছিল বারাক ওবামা প্রশাসন। এর ফলে মার্কিন শহরে বাড়ি নেওয়ার চড়া খরচের ধাক্কা সামলাতে স্বামী-স্ত্রীর দু’জনের রোজগার কিছুটা সুরাহা দিয়েছিল অনেককেই। কিন্তু ট্রাম্প গোড়া থেকেই বলে এসেছেন, মার্কিনদের চাকরিকেই অগ্রাধিকার দেবেন তিনি। তাই এইচ১বি এবং এইচ৪ ভিসা নীতি আগাগোড়া পর্যালোচনা করবে তার সরকার। ‘সেভ জবস ইউএসএ’ নামে মার্কিন কর্মীদের একটি সংস্থাও আন্দোলন চালিয়ে যাচ্ছিল মার্কিনদের চাকরি সুরক্ষিত রাখার দাবিতে। আদালতে গিয়েছিল তারা। কলম্বিয়ার ডিস্ট্রিক্ট কোর্টে গতকাল নিজেদের সিদ্ধান্ত জানিয়ে মার্কিন সরকারের হোমল্যান্ড সিকিয়োরিটি বিভাগ বলেছে, মামলাটি এবার স্থগিত রাখা হোক। সরকারের কথায়, ‘এইচ১বি অভিবাসীদের স্বামী বা স্ত্রী, যারা এইচ৪ ভিসা নিয়ে রয়েছেন, তাদের কাজের অধিকার নিষিদ্ধ করার লক্ষ্যে আমরা দৃঢ়ভাবে ও দ্রুত এগোচ্ছি।’ ভারতীয় বিদেশ মন্ত্রকের সূত্রের বক্তব্য, বিষয়টি নতুন কিছু নয়। বহু দিন ধরেই আমেরিকা এইচ৪ ভিসাধারীদের চাকরি বন্ধের হুমকি দিচ্ছিল। আর ভারত সরকারও তা রুখতে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছিল। ভবিষ্যতেও সেই চেষ্টা চলবে। এক কর্মকর্তার কথায়, ‘যে ভারতীয়দের নিয়ে অসন্তোষ, মার্কিন অর্থনীতিতে তাদেরই একটা বড় অংশের যথেষ্ট অবদান আছে। ভারত-মার্কিন কৌশলগত সহযোগিতাও রয়েছে নানা ক্ষেত্রে। ফলে মার্কিন সরকার এই সিদ্ধান্ত পুনর্বিবেচনা করবে বলেই আশা রাখছি। ইতিমধ্যে দিল্লিও মার্কিন কংগ্রেস থেকে শুরু করে সংশ্লিষ্ট সমস্ত শিবিরের সঙ্গে আলোচনা চালিয়ে যাবে।’ ভারতীয় সংস্থাগুলোর কাছে আসা সিংহভাগ আইটি প্রকল্পই আমেরিকার। তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাগুলির সংগঠন ন্যাসকমের পূর্বাঞ্চলীয় কর্তা নিরুপম চৌধুরী বলেন, ‘এই বিষয়টি নিয়ে আমরা লাগাতার আলোচনা চালাচ্ছি। সমস্যাটা রয়েছে। এইচ১বি ভিসাধারীদের স্বামী বা স্ত্রীরা যথেষ্ট শিক্ষিত। নিজেদের যোগ্যতাতেই তারা চাকরি পেতে পারেন। অর্থনীতিতেও তাদের ভূমিকা রয়েছে।’ তবে তথ্যপ্রযুক্তি মহলের মতে, আলোচনা যতই হোক, গভীরতর হচ্ছে সমস্যা। তাই ক্রমশ এইচ১বি নির্ভরতা কমানোর চেষ্টা হচ্ছে। কিন্তু দক্ষ মার্কিন কর্মী পাওয়াটাও সমস্যার। যে কারণে কোনও কোনও ভারতীয় তথ্যপ্রযুক্তি সংস্থাকে স্থানীয় কর্মী তৈরি করতে আমেরিকায় স্কুল-কলেজের মতো প্রকল্পে নামতে হয়েছে। টিসিএস, কগনিজেন্টের মতো সংস্থাগুলি অবশ্য এ দিন মুখ খুলতে চায়নি। সূত্র: আনন্দবাজার একে//

নাইজেরিয়াতে কলেরায় ৯৭ জনের মৃত্যু

নাইজেরিয়ার ইয়োব এবং বর্নো রাজ্যে গত দু’সপ্তাহে তিন হাজারের বেশি কলেরা সংক্রমণের রেকর্ড লিপিবদ্ধ করা হয়েছে। এগুলোর মধ্যে ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে বলে জানানো হয়েছে। গতাকাল শনিবার জাতিসংঘের কো-অর্ডিনেশন অব হিউম্যানিটারিয়ান অ্যাফেয়ার্স (ওসিএইচএ) এ তথ্য নিশ্চিত করেছে। প্রতিষ্ঠানটির তথ্য মতে, নাইজেরিয়ার ইয়োব এবং বর্নো রাজ্যে গত দু’সপ্তাহে ৩ হাজার ১২৬ জন কলেরায় আক্রান্ত হয়েছে।  এর মধ্যে গত শনিবার পর্ন্ত ৯৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। এর আগে গত বুধবার জাতিসংঘের এক প্রতিবেদনে বলা হয়,  নাইজেরিয়ার লেক শাদ এলাকায় ২০১৮ সালে ৫০০-এরও বেশি মানুষ কলেরা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন। গত চার বছরের মধ্যে এটাই অঞ্চলটিতে কলেরার সবচেয়ে বড় সংক্রমণ। সূত্র: আল-জাজিরা এমএইচ/

‘যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্য ছাড়তে বাধ্য হবে’

যুক্তরাষ্ট্র মধ্যপ্রাচ্য থেকে সেনা সরিয়ে নিতে বাধ্য হবে বলে মন্তব্য করেছেন ইরানের সশস্ত্র বাহিনীর সর্বাধিনায়কের সিনিয়র উপদেষ্টা ও সহকারী মেজর জেনারেল ইয়াহিয়া রহিম সাফাভি। গতকাল শনিবার তেহরানে এক অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখতে গিয়ে তিনি এ কথা বলেন। তিনি বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরান গত চার দশকে মধ্যপ্রাচ্যের প্রধান শক্তিতে পরিণত হয়েছে। আজ ইরানের প্রভাব বলয় কাস্পিয়ান সাগর ও পারস্য উপসাগর ছাড়িয়ে ভূমধ্যসাগর পর্যন্ত পৌঁছে গেছে। জেনারেল রহিম সাফাভি বলেন, যুক্তরাষ্ট্র, ইহুদিবাদী ইসরাইল ও কয়েকটি আরব দেশ মধ্যপ্রাচ্যে উগ্র তাকফিরি জঙ্গি গোষ্ঠী ছড়িয়ে দেওয়ার যে পরিকল্পনা হাতে নিয়েছিল তা ব্যর্থ করে দিয়েছে ইরান। সেই সঙ্গে ইরাক ও সিরিয়া সরকারের অনুরোধে ওই দুই দেশে নিরাপত্তা প্রতিষ্ঠায় সহযোগিতা করেছে তেহরান। তিনি আরো বলেন, ইসলামি প্রজাতন্ত্র ইরানের সহযোগিতা ছাড়া মধ্যপ্রাচ্যে শান্তি ও স্থিতিশীলতা প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব নয়। আমেরিকা অচিরেই সিরিয়া, ইরাক ও আফগানিস্তান থেকে সেনা প্রত্যাহার করতে বাধ্য হবে বলেও মন্তব্য করেন তিনি। সূত্র : পার্সটুডে এমএইচ/

কানাডার রাজধানী অটোয়ার কাছে টর্নেডোর আঘাত

কানাডার রাজধানী অটোয়ার কাছে একটি টর্নেডোর আঘাতে বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন। এছাড়াও এতে বাড়িঘরের ক্ষতি হয়েছে, বেশ কয়েকটি গাড়ি উল্টে গেছে। বিদ্যুৎ সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়ায় ১ লাখ ৩০ হাজারেরও বেশি লোক বিদ্যুৎবিহীন অবস্থায় রয়েছে। স্থানীয় গণমাধ্যমে একথা বলা হয়েছে। আবহাওয়াবিদরা জানিয়েছে, শুক্রবার রাজধানী থেকে প্রায় পাঁচ মাইল উত্তরে গাতিনেয়াউ নগরীতে ঝড়টি ঘণ্টায় প্রায় ১২০ কিলোমিটার আঘাত হানে। অটোয়া জরুরি বিভাগের কর্মকর্তা এন্থনী ডি মন্টে স্থানীয় গণমাধ্যমকে জানিয়েছে, ঝড়ে প্রায় ৩০ জন আহত হয়েছে। এদের মধ্যে পাঁচজনের অবস্থা গুরুতর। এ দিকে বিদ্যুৎ কোম্পানি হাইড্রোকুইবেক জানিয়েছে, শুক্রবার সন্ধ্যায় অটোয়া এলাকার ১ লাখ ৩০ হাজার গ্রাহকের বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্ন হয়ে গেছে। কানাডার প্রধানমন্ত্রী জাস্টিন ট্রুডো দুর্যোগপূর্ণ এই সময়ে প্রতিবেশীদের লক্ষ্য রাখার জন্য বাসিন্দাদের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে। তিনি টুইটারে জানান, ‘আমরা পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছি এবং যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাদের প্রত্যেকের প্রতি লক্ষ্য রাখছি।’ সূত্র : বিবিসি। কেআই/ এসএইচ/

© ২০১৮ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি