ঢাকা, শনিবার   ১৭ এপ্রিল ২০২১, || বৈশাখ ৪ ১৪২৮

জাতির পিতার রাষ্ট্র দর্শনেই এগিয়ে চলছে দেশ (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:১৭, ২৩ মার্চ ২০২১

স্বাধীনতার ৫০ বছরে বার বার বাঁধা আসলেও জাতির পিতার রাষ্ট্র দর্শন ও উন্নয়ন দর্শনেই এগিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। বঙ্গবন্ধু কণ্যার নেতৃত্বে মুক্তিযুদ্ধের স্বপক্ষের সরকারের দৃষ্টি অসাম্প্রদায়িক, উন্নত-সমৃদ্ধ বাংলাদেশ। জাতির পিতার উন্নয়ন দর্শনের পথে হেঁটেই বাংলাদেশ এখন উন্নয়নশীল দেশের পথে। অর্থনীতিবিদ ড. আতিউর রহমান বলছেন, উন্নয়ন প্রবৃদ্ধির উৎসগুলো ধরে রাখতে পারলে বাংলাদেশের উন্নয়ন আরও তরান্বিত হবে। 

যুদ্ধবিধ্বস্ত সদ্য স্বাধীন একটি দেশ। সব হারা দুঃখী মানুষকে নিয়ে শুরু করলেন দেশ পুনর্গঠনের কাজ। ছুটে বেড়ান বাংলার পথে-প্রান্তরে। একেবারেই অল্প সময়ের মধ্যেই জাতিকে একটি শাসনতন্ত্র দেন। সংবিধানে বৈষম্যহীন সমাজ, অসাম্প্রদায়িক গণতান্ত্রিক রাষ্ট্র ব্যবস্থার প্রতিচ্ছবি। 

ধ্বংসপ্রাপ্ত অবকাঠামো পুননির্মাণ, কৃষি উন্নয়নের পাশাপাশি শিল্পে নজর দিলেন বঙ্গবন্ধু। গুরুত্ব দিলেন সমবায় ব্যবস্থার ওপর। জাতির পিতা দ্রুত শিল্পায়ন এবং গরীব ও মধ্যবিত্তের জীবন মান উন্নয়নে বৃহৎ রাষ্ট্রায়ত্ত খাত সৃষ্টি করেছিলেন। 

বাংলাদেশ ব্যাংকের সাবেক গভর্নর ড. আতিউর রহমান বলেন, তিনি শুরুতে জন্মনিয়ন্ত্রণ, খাদ্য উৎপাদন এবং প্রাথমিক শিক্ষার উপর যে জোড়টা দিয়েছিলেন, সেটার উপর ভিত্তি করে বাংলাদেশ পরবর্তীকালে অনেক দূর এগিয়ে গেছে। কৃষির উন্নয়ন ঘটেছে, শিল্পের উন্নয়ন ঘটেছে এবং এই নেতৃত্বকে আরও পোক্ত করেছেন বঙ্গবন্ধুকন্যা। 

কিন্তু ৭৫-এ বাংলার বুকে আবারও নেমে এলো কালো ছায়া। জাতির পিতাকে স্বপরিবারে হত্যা করে পরাজিত শক্তি। বার বার গণতন্ত্রের ওপর আঘাত। উন্নয়নবঞ্চিত বাংলাদেশ যেনো তলাবিহীন ঝুড়ি।

তবে দেরিতে হলেও আলো এসেছে। জাতির পিতার রাষ্ট্রদর্শন-উন্নয়ন দর্শনের পথেই হাঁটছেন তাঁরই কন্যা শেখ হাসিনা। শুরু হলো নবযাত্রা। উন্নয়নের মহাসড়কে যাত্রাপথে জিডিপি প্রবৃদ্ধি আট ছাড়িয়েছিলো। তবে করোনা সামাল দিয়ে এখন দাঁড়িয়েছে ৫.২৪-এ। রিজার্ভ প্রায় ৪৪ বিলিয়ন ডলার ছাড়িয়েছে, মাথাপিছু আয় দুই হাজার ৬৪ মার্কিন ডলার।

উন্নয়নের গতিধারা অব্যাহত রাখতে প্রবৃদ্ধির সকল উৎসের দিকে নজর দেয়ার পরামর্শ এই অর্থনীতিবিদের।

ড. আতিউর রহমান বলেন, আমাদের প্রবৃদ্ধির যে উৎসগুলো, এগুলোর দিকে খেয়াল রাখতে হবে। কৃষি আমাদের বড় উৎস, সেখানে কিন্তু আমরা নজর রাখছি। আমাদের শিল্পে নারীর অংশগ্রহণ এবং শিক্ষায় নারীর অংশগ্রহণ বড় ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করছে। সেটা যেনো বজায় থাকে।

স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী উদযাপন করছে বাংলাদেশ। ৫০ বছরের বাংলাদেশ এখন উন্নয়নের রোল মডেল। দ্রুতই বাংলাদেশ হবে জাতির পিতার স্বপ্নের অসাম্প্রদায়িক, বৈষম্যহীন উন্নত সমৃদ্ধ দেশ।

ড. আতিউর রহমান আরও বলেন, নেতৃত্বের যে গুণ সেটিই বড় ফ্যাক্টর হিসেবে কাজ করেছে আমাদের এই অসামান্য সাফল্যের পেছনে।
দেখুন ভিডিও :

এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি