ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৪ নভেম্বর ২০১৯, || কার্তিক ৩০ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ঝালকাঠিতে তিন পেঁয়াজ ও দুই পলিথিন ব্যবসায়ীকে জরিমানা

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:

প্রকাশিত : ২১:১৪ ৪ অক্টোবর ২০১৯

পেঁয়াজের মূল্য বৃদ্ধির লাগাম টানতে গত ২৪ ঘণ্টায় ঝালকাঠি জেলা প্রশাসনের পরিচালিত সাড়াশি অভিযানে তিন পেঁয়াজ ব্যবসায়ীকে ২৬ হাজার টাকা জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমান আদালত। কমমূল্যে পেঁয়াজ ক্রয় করে মজুদ রাখার পর সরকার নির্ধারিত মূল্যের চেয়ে অতিরিক্ত মূল্যে পেঁয়াজ বিক্রির সময় হাতেনাতে আটক করে এদের আর্থদণ্ড করা হয়েছে। অপর দিকে দুইটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিষিদ্ধ ঘোষিত অবৈধ পলিথিন রাখার দায়ে দুই ব্যবসায়ীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। 

শহরের আড়তদারপট্টি ও কাঠপট্টি এলাকার বিভিন্ন ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে অভিযান চালিয়ে এসব ব্যবসায়ীদের জরিমানা করা হয়। জেলা প্রশাসনের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ভ্রাম্যমান আদালতের বিচারক মো. বশির গাজীর নেতৃত্বে অভিযান চালিয়ে এসব জরিমানার আদেশ প্রদান করা হয়েছে।
 
তবে ভ্রাম্যমান আদালতের এ আকস্মিক অভিযানের বিষয়টি টের পেয়ে এসব এলাকার অনেক আড়ৎদার ও পেঁয়াজ ব্যবসায়ী নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আসার পূর্বেই দোকান বন্ধ করে আত্মগোপন করেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছে। শহরের কাঠপট্টি ও আড়তদারপট্টি এলাকার আকন ট্রেডার্স নামক আড়দে পেয়াজের মূল্য বৃদ্ধি করায় ১০ হাজার ও অবৈধ পলিথিন রাখায় আরও ১০ হাজার, মুনমুন ষ্টোরকে পেয়াজের মূল্য বেশী রাখায় ৩ হাজার, মো.জামাল ষ্টোরকে পলিথিন রাখায় ১০ হাজার ও কৃষ্ণ মোধককে বেশী মূল্যে পেয়াজ বিক্রী করায় ৩ হাজার টাকা জরিমানা করেন।

ভ্রাম্যমাণ আদালতের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট (এনডিসি) মো. বশির গাজী জানান, গত বেশ কয়েকদিন ধরে পেঁয়াজের ক্রমবর্ধমান মূল্য নিয়ন্ত্রণসহ বাজার পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে চলমান কার্যক্রমের অংশ হিসাবে এ ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করা হয়। অভিযানকালে শহরের আড়তদারপট্টি এলাকায় তিন ব্যবসায়ী কম দামে পেঁয়াজ কিনে তাদের আড়তে মজুদ রেখে অতিরিক্ত দামে বিক্রি করছিলেন। তাদের তিনজনকে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ আইনে জরিমানা করা হয়। 

অন্যদিকে এসব এলাকার দুইটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠানে নিষিদ্ধ ঘোষিত অবৈধ পলিথিন রাখার দায়ে দুই ব্যবসায়ীকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। বাজার পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রন ও দ্রব্যমূল্য স্বভাবিক রাখতে এ অভিযান অব্যহত থাকবে বলেও জানান তিনি। ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনার সময় নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মাহমুদা খানম, নির্বাহী ম্যাজিস্টেট মাসুমা আক্তার ও পুলিশ সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

আরকে//

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি