ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ৪ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

ঝালকাঠি জুয়েলার্স সমিতির নির্বাচনে পুন:তফসিল ঘোষনার নির্দেশ

আজমীর হোসেন তালুকদার, ঝালকাঠি:

প্রকাশিত : ১৭:১৯ ২১ আগস্ট ২০১৯ | আপডেট: ১৮:২৬ ২১ আগস্ট ২০১৯

ঝালকাঠি জেলা জুয়েলারী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন অনুষ্ঠানের লক্ষে নির্বাচন কমিশনার মোঃ নুরে আলমকে পুনরায় তফশিল ঘোষনার নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ জুয়েলারী সমিতির কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারন সম্পাদক দিলীপ কুমার আগরওয়াল। নির্বাচন কমিশনার মোঃ নুরে আলমের আবেদনের প্রেক্ষিতে ও সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় জেলা জুয়েলারী সমিতির পুনরায় তফশিল ঘোষনার জন্য ২০ আগষ্ট এক পত্রে কেন্দ্রীয় কমিটি অনুমোদন প্রদান করে।

বিধিসম্মত ভাবে অবাধ, সুষ্ঠু, নিরপেক্ষ ও গ্রহনযোগ্য নির্বাচন পরিচালনা করে কেন্দ্রীয় কমিটিকে অবহিত করার জন্য নির্দেশ দিয়েছেন। এ অবস্থায় গত ২৯ জুলাই সোমবার ঝালকাঠি জেলা জুয়েলারী সমিতির নির্ধারিত নির্বাচন অনুষ্ঠান নিয়ে সদস্যদের দুটি গ্রুপে বিরোধ-উত্তেজনা, পাল্টাপাল্টি মামলা-মোকদ্দমা ও বিনাভোটে একতরফা কমিটি গঠন তৎপরতার অবসান হয়েছে বলে স্থানীয় নেতৃবৃন্দ জানিয়েছে। 

জানা গেছে, জেলা জুয়েলার্স সমিতির সাবেক সভাপতি ও ভোটার তালিকার ৪ নাম্বার সদস্য দেবব্রত কর্মকার দেবু কেন্দ্রীয় কমিটির সভাপতি ও সাধারন সম্পাদক বরাবরে ঝালকাঠি জেলা জুয়েলারী সমিতির পুন:তফসিল ঘোষনা অথবা বিনাভোটের কমিটির বাহিরে আবেদনে সাক্ষর দেয়া সদস্যদের নিয়ে আলাদা ভাবে নতুন একটি সমিতি গঠনের অনুমতি প্রদানের জন্য এক লিখিত আবেদন করেন। ইতিপূর্বে নির্বাচনের নামে বিনাভোটে একতরফা কমিটি গঠনচেষ্টা, নির্বাচন নিয়ে মামলা ও অনিয়মের বিষয়গুলো আবেদনে উল্লেখ করা হয়। 

আবেদনে ইতিপূর্বে ২২ জুলাই আয়োজিত নির্বাচনে ও প্রতিদ্বন্দিতা বাভোট না হলেও একটি পক্ষ নিবাভোটে নির্বাচিত ঘোষনার জন্য নির্বাচন কমিশনারচাপ সৃষ্টি করলেও সাধারন সদস্যদের অনুপস্থিতি, উক্ত কমিটির পক্ষে স্বাক্ষর বা রেজুল্যেশন করতে না পারায় তিনি পুননির্বাচন দাবী করেন। এছাড়া বিনাভোটের কমিটিকোন আলোচনা বা সদস্যদের মতামত না নিয়ে সদস্য ফি ১শ টাকার বদলে মাসিক ফি ৪শ টাকা হারে উত্তোলনের সিদ্ধান্ত ঘোষনা করায় সদস্যরা পুন:নির্বাচন বা আলাদা সমিতি গঠনের দাবী জানান।

অন্যদিকে নির্বাচন কমিশনার মোঃ নুরে আলম স্বাক্ষরিত কেন্দ্রীয় সভপতি ও সাধারন সম্পাদককে দেয় এক পত্রে জানান, য়জেলা জুয়েলারী সমিতির দ্বিবার্ষিক নির্বাচন ২০১৯ইং নিয়ে সমিতির সদস্যরা দুটি ভাগে বিভক্ত হয়ে পরেছে।যে কারনে দুইপক্ষ মামলা মোকদ্দমায় জড়িয়ে পরা ও ভোট গ্রহনবিহীন নির্বাহী কমিটির শপথ গ্রহন অনুষ্ঠানে কোন সদস্য উপস্থিত না হওয়া সমিতির মান দারুন ভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে।

তবে সমিতির সর্বস্তরের সাধারন সমস্যরা নিরপেক্ষ সুষ্ঠু ও গোপন ভোটের মাধ্যমে তাদের কার্যনির্বাহী কমিটির নেতৃত্ব নির্বাচনে আগ্রহী। তাই জেলা জুয়েলারী সমিতির বৃহত্তর স্বার্থে ও সদস্যদের মৌলিক অধিকার রক্ষায় পুন:নির্বাচনী তফশীল ঘোষনার জন্য কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে আবেদন জানান। 

আরকে/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি