ঢাকা, রবিবার   ২৪ জানুয়ারি ২০২১, || মাঘ ১০ ১৪২৭

তালাক দেয়ায় সাবেক স্ত্রীকে এসিড নিক্ষেপ  

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:৫১, ২৪ নভেম্বর ২০২০

নাটোরের বড়াইগ্রামে স্বামীর অত্যাচারে অতিষ্ঠ হয়ে তালাক দেয়ায় নার্গিস আক্তার নুপুর (২৭) নামে এক নারীকে এসিডে ঝলসে দেয়া হয়েছে। সোমবার (২৩ নভেম্বর) রাতে উপজেলার জোয়াড়ী ইউনিয়নের কামারদহ গ্রামে ঘটে এই মর্মান্তিক ঘটনা।

গুরুতর আহতাবস্থায় তাকে প্রথমে নাটোর সদর হাসপাতালে পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়। নুপুর কামারদহ গ্রামের আনোয়ার হোসেন তাজেমের মেয়ে এবং আহম্মেদপুর গ্রামের রাহাত আলীর ছেলে আবু তালেবের সাবেক স্ত্রী।

নুপুরের বাবা আনোয়ার হোসেন তাজেম বলেন, ‘কয়েক বছর আগে আবু তালেব নুপুরকে বিয়ে করে আমার বাড়িতেই থাকতেন। বিয়ের পর থেকে তাদের মধ্যে প্রায়ই দ্বন্দ্ব-কলহ লেগে থাকত। এ কারণে সাত দিন আগে আমার মেয়ে আবু তালেবকে তালাক দেয়। সোমবার সন্ধ্যার পর নুপুর বাড়ির উঠানে হাঁটাহাঁটি করছিল, এ সময় আবু তালেব তার মুখে এসিড ছুড়ে পালিয়ে যায়। নুপুরের চিৎকারে স্বজনরা এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে নাটোর আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকায় শেখ হাসিনা বার্ন ইউনিটে ভর্তি করা হয়।’

ডাক্তারের বরাত দিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘নুপুরের মুখের একটি অংশসহ শরীরের বিভিন্ন অংশ এসিডে ঝলসে গেছে।’

স্থানীয়য়রা জানান, ‘আবু তালেব ডাকাতিসহ একাধিক মামলার আসামি। বিয়ের পর থেকেই তাদের মধ্যে বিভিন্ন বিষয়ে ঝগড়া লেগেই থাকত। অতিষ্ঠ হয়ে নুপুর আবু তালেবকে তালাক দিতে বাধ্য হয়েছে।’

বড়াইগ্রাম থানার অফিসার ইনচার্জ আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, ‘খবর পেয়ে রাতেই অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত আবু তালেবকে গ্রেফতার করা হয়েছে। আজ সকালে তাকে জেল হাজতে পাঠানো হয়েছে।’
এআই/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি