ঢাকা, মঙ্গলবার   ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ৯ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

নিজের বিয়ে নিয়ে মুখ খুললেন জাহ্নবী

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৪:০৩ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯ | আপডেট: ২০:৫২ ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৯

বলিউডে পা পড়েছে ২০১৮ সালে ‘ধড়ক’ ছবির মধ্য দিয়ে। যদিও সেটি ছিল একটা মারাঠি ছবির পুনর্নির্মাণ। তারপরও, এ ছবি দিয়েই বাজিমাত করেছেন বলিউড অভিনেত্রী জাহ্নবী কাপুর। ফলে, তাকে নিয়ে ভক্তদের আগ্রহের কমতি নেই। সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে কোনো কিছু পোস্ট করলেই ভাইরাল হয়ে যায়। 

সম্প্রতি একটি সাময়িকীতে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে নিজের বিয়ে নিয়ে খোলামেলা কথা বলেছেন বলিউড এ অভিনেত্রী। যেখানে নিজের পছন্দ ও চাওয়া নিয়ে কথা বলেছেন কিংবদন্তি অভিনেত্রী শ্রীদেবী কন্যা। যার বিয়ে নিয়ে রয়েছে হাজারও রকম পরিকল্পনা।

কীভাবে বিয়ে করবেন, কোথায় হবে তার বিয়ে, আর কেমনই বা হবে তার মনের মানুষ-সেসব নিয়ে মুখ খুললেন ‘ধড়ক গার্ল’।

জীবনসঙ্গী পছন্দের ব্যাপারে জাহ্নবী বলেন, নিজের কাজের ব্যাপারে তার মনের মানুষকে হতে হবে নিবেদিত, আন্তরিক। মুখ গোমড়া মানুষ একেবারেই পছন্দ নয় তার। হাসিখুশি, মিষ্টি স্বভাবের না হলে কিছুতেই সেই ব্যক্তি গলাতে পারবে না জাহ্নবীর মন। তার জীবন জুড়ে যেন জাহ্নবীরই অস্তিত্ব থাকে শুধু। ভালবাসার মানুষকে নিয়ে আর পাঁচজনের মতোই বেশ ‘পসেসিভ’ তিনি।

বিয়ের জন্যও রয়েছে হাজারও পরিকল্পনা। তিরুপতির মন্দিরে গিয়েই বিয়ে করবেন বলে ঠিক করেছেন, জানালেন তাও। খুব বেশি জাঁকজমক যে হতে হবে তা নয়, ছিমছাম হোক তাতে ক্ষতি নেই, তবে তাতে যেন প্রাণ থাকে। বিয়েতে কাঞ্জিভরম শাড়িতে সেজে ওঠার ইচ্ছে জাহ্নবীর।

মা শ্রীদেবী ছিলেন দক্ষিণ ভারতীয়। তাই বিয়ের মেনুতেও অবশ্যই চাই দক্ষিণ ভারতের ছোঁয়া। জাহ্নবীর বক্তব্য, মা বেঁচে থাকলে অবশ্য মেয়ের পছন্দের উপর এতটুকুও ভরসা করতেন না। শ্রীদেবী সবসময় বলতেন, নতুন প্রজন্ম নাকি সহজেই প্রেমে পড়ে যায়।

তাহলে কি খুব শিগগিরই বিয়ের সানাই বাজতে চলেছে বনি কপূরের বাড়ির অন্দরে? সে বিষয়ে অবশ্য এখনও কিছুই জানাননি জাহ্নবী।

২০১৮ সালের ‘ধড়ক’র পর আর কোনো ছবিতে দেখা যায়নি বলিউডের এ অভিনেত্রীকে। তবে বর্তমানে জাহ্নবীর হাতে তিনটি ছবি রয়েছে। কার্গিল গার্ল, রোহি আফজা আর সম্প্রতি যুক্ত হয়েছেন দাস্তানা টু ছবিতে। 

সূত্র: আনন্দবাজার পত্রিকা

আই/

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি