ঢাকা, শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২

পর্তুগিজ ভাষা কত্তো সহজ

হামিদ কায়সার, কথাশিল্পী

প্রকাশিত : ২০:৩৩, ১৫ জুন ২০২২ | আপডেট: ১৬:০৩, ১৬ জুন ২০২২

একদা এই সমৃদ্ধ বাংলায়, প্রাচীন ভারতবর্ষে বিদেশি বণিকদের প্রবল আনাগোনা ছিল। বাণিজ্য করতে আসতো ওলন্দাজ, ফরাসি, ইংরেজ, পতুর্গিজসহ আরো নানা দেশের দাপুটে লোকজন। বাণিজ্য করতে এসেই সন্দেহ নেই যে, এদেশের শাসকদের দুর্বলতা আর মানুষের সরলতা দেখে তাদের লোভ জেগেছিল রাষ্ট্রক্ষমতার প্রতিও।

তারই ফলস্বরূপ ইংরেজরা ভারতবর্ষ রাজত্ব করেছে দুইশত বছর। বিদেশিদের মধ্যে ইংরেজদের আধিপত্য একচ্ছত্র থাকলেও, এক সময় পর্তুগিজদের প্রভাবও কম ছিল না। তারা যেমন একদিকে খ্রিস্টান ধর্মের প্রচারে নেমেছিল, তেমনি দস্যুতার মাধ্যমে বাংলার মানুষকে অতিষ্ঠও কম করেনি। যা হোক সেসব শুধুমাত্রই ইতিহাস, আজকের বাস্তবতা হলো, বাংলা মায়ের সোনার ছেলেরা ছড়িয়ে পড়েছে আজ দেশে দেশে। তারা যেমন মেধা এবং শ্রমের বিনিময়ে নিজেদের জীবিকার ব্যবস্থা করছে, তেমনি বিদেশ থেকে মূল্যবান রেমিট্যান্স এনে বাংলাদেশের অর্থনীতিকেও রাখছে সচল এবং গতিময়। 

এদের মধ্যে আবার কেউ কেউ সৃজনশীলতার নানা মাত্রায় নিজেকে উন্নীত করে দেশের ভাবমূর্তি উজ্জ্বল করতে রাখছে কালোত্তীর্ণ ভুমিকা। এমনই একজন মানুষ আবুল হোসেন আসাদ।

আবুল হোসেন আসাদের পরিচয় জানি আরবের পথে পথে বইটির মাধ্যমে। ভ্রমণপ্রিয় এ মানুষটি ঘুরে বেড়িয়েছেন পৃথিবীর অনেক দেশ; বাংলাদেশের পথেঘাটে তো তার দুর্দান্ত বিচরণ ছিলই, এখন তিনি নেমেছেন বিশ্ব-জয়ে। ভাবতেও ভালো লাগছে, দু-চাকা নিয়ে তিনি ঘুরে বেড়িয়েছেন দুনিয়ার যত্রতত্র, যার স্বাক্ষর- চাকায় চাকায় চক্কর। 

মন যার সৃজনশীল, সত্তা যার পরহিতে উৎসর্গীকৃত, তিনি কেন শুধু নিজেকে নিয়ে ব্যস্ত থাকবেন। কাজের অবসরে লিখে ফেলেছেন ‘পর্তুগিজ ভাষা কত্তো সহজ’ নামের একটি বই। সন্দেহ নেই যে, তিনি একটি মহৎ উদ্দেশ্য থেকেই বইটি লিখেছেন।  

আগে যে পর্তূগিজরা ভারতবর্ষে এসে দাপুটে জীবনযাপন করেছেন, বাংলা ভাষাভাষী মানুষও এখন পর্তূগালে স্বচ্ছন্দভাবে চলতে পারবেন, নাগরিক হতে পারবেন আবুল হোসেন আসাদ-এর পর্তূগিজ ভাষা শেখার বইটি তাদের আত্মবিশ্বাস চাঙ্গা করতে কার্যকর ভূমিকা রাখবে। শুধুই কী পর্তুগাল।  

ব্রাজিল, অ্যাঙ্গোলা, কেপভার্দ, পূর্ব তিমুর, গিনি বিসাউ, সাঁউ তুমি ও প্রিন্সিপি ও মোজাম্বিক এর সরকারি ভাষা পর্তুগিজ। ৮টি দেশের সরকারি ভাষা ছাড়াও বিভিন্ন এরিয়াতে পর্তুগিজ ভাষা ব্যাপকভাবে চালু। মার্কিন যুক্তরাষ্টের কিছু এলাকায়, ভারতের গোয়া এবং লুক্সেমবার্গে পর্তুগিজ ভাষা যথেষ্ট পরিমানে ব্যবহৃত হয়। লুক্সেমবার্গে চাকুরি বা ব্যবসা বানিজ্যের ক্ষেত্রে অগ্রগন্য এই পর্তুগিজ ভাষা।   

বইটিতে দৈনন্দিন জীবনে আমাদেরকে যেসব কথা বলার প্রয়োজন হয়, সেসব কথা মূল পর্তুগিজ ভাষার পাশাপাশি ইংরেজি এবং বাংলায় অনুবাদ করে দেওয়া হয়েছে, সহজ পদ্ধতিতে। ২৭২ পৃষ্টার সুদৃশ্য বইটি পেপার ব্যাক বাধাই করা। বইটির মুল্য বাংলাদেশে ৩৫০ টাকা, আর ইউরোপে ৩০ ইউরো। পর্তুগিজ ভাষা কত্তো সহজ’ বইটির প্রকাশক হলেন সরকারের অতিরিক্ত সচিব (অব:) আব্দুল কুদ্দুছ। বড় মগবাজারের আদিত্য অনীক প্রকাশনী থেকে বইটি প্রকাশিত হয়েছে। 

আবুল হোসেন আসাদ পর্তুগিজ নিয়ে এখন মেতেছেন, সামনে হয়তো তার কাছ থেকে আরো পাব নতুন কোনো দেশের দিশা, যার মাধ্যমে অপরাপর বাংলাদেশের মানুষের পথচলাও প্রশস্ত হবে। সুদীর্ঘকাল তিনি এভাবেই রাখুন তার পথচলা অব্যাহত, বাংলাদেশেরই স্বার্থে।

এসি

 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি