ঢাকা, বুধবার   ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৯, || আশ্বিন ৩ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

পিতাকে পিটিয়ে হত্যার দায়ে পুত্রের ফাঁসি 

ঝালকাঠি প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ২০:০৯ ১৯ আগস্ট ২০১৯

ঝালকাঠিতে পারিবারিক কলহের জের ধরে বাবাকে পিটিয়ে হত্যার দায়ে ছেলে আলতাফ হোসেন খন্দকার (৩৫) কে ফাঁসির আদেশ দিয়েছেন আদালত। 
সোমবার দুপুরে ঝালকাঠির অতিরিক্ত জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক শেখ মো. তোফায়েল হাসান মামলার রায়ে এমৃত্যুদণ্ড ঘোষণা করেন। 

মামলার রায়ে একই সঙ্গে আসামিকে ২০ হাজার টাকা জরিমানা করেছে আদালত। মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আলতাফ হোসেন খন্দকার ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার উত্তর চেচরি গ্রামের আব্দুল বারেক খন্দকারের ছেলে। রায় ঘোষণার সময় আসামী আলতাফ আদালতে অনুপস্থিত ছিলো। 

মামলার বিবরণে জানা যায়, ২০০৭ সালের ১০ এপ্রিল সকালে ঝালকাঠির কাঁঠালিয়া উপজেলার উত্তর চেচরি গ্রামের আব্দুল বারেক খন্দকার তার ছেলে আলতাফকে উঠান থেকে লাকড়ি তুলতে বলাকে কেন্দ্র করে বাকবিতণ্ডার এক পর্যায়ে ছেলে তার বাবাকে পিটিয়ে গুরুতর আহত করে। এতে পিতা বারেক খন্দকার অজ্ঞান হয়ে পরলে অপর ছেলেরা তাকে বরিশাল শেবাচিম হাসপতালে ভর্তি করে। 

হাসপাতালে তিন দিন চিকিৎসাধীন অবস্থায় থাকার পর ১৩ এপ্রিল মারা যায়। সেদিন রাতেই বারেক খন্দকারের অপর ছেলে মঞ্জু খন্দকার বাদি হয়ে কাঁঠালিয়া থানায় ভাইয়ের বিরুদ্ধে একটি হত্যা মামলা দায়ের করে। মামলার তদন্তকারি কর্মকর্তা কাঁঠালিয়া থানার উপপরিদর্শক মো শহিদুল ইসলাম ৩০ মে ২০০৭ সনে আদালতে চার্জশীট দখিল করেন।

আদালত ২০০৯ সালের ২৬ ফেব্রুয়ারি আলতাফের বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন করেন। মামলায় সাক্ষীদের সাক্ষ্য গ্রহণ শেষে আলতাফের বিরুদ্ধে সন্দেহাতিত ভাবে অভিযোগ প্রমানিত হওয়ায় এ রায় প্রদান করা হয়। 

রাষ্ট্র পক্ষে মামলা পরিচালনা করেন অতিরিক্ত সরকারি কৌশলী এম আলম খান কামাল ও আসামী পক্ষে রাষ্ট্র নিযুক্ত আইনজীবী ছিলেন মঞ্জুর হোসেন। তবে ঘটনার পরথেকে রায় ঘোষনার পূর্ব পর্যন্ত পিতার হত্যাকারী আলতাফ হোসেন পালাতক রয়েছে বলে বাদী সূত্রে জানাগেছে।


 

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি