ঢাকা, শুক্রবার   ০১ জুলাই ২০২২

প্রথম ভারতীয় গীতাঞ্জলী শ্রী পেলেন আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১২:৫২, ২৭ মে ২০২২ | আপডেট: ১২:৫৪, ২৭ মে ২০২২

প্রথম ভারতীয় লেখক হিসেবে আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার পেয়েছেন গীতাঞ্জলী শ্রী। হিন্দি ভাষায় লেখা ‘রেত সামাধি’ উপন্যাসের অনুবাদ ‘টুম্ব অব স্যান্ড’ এর জন্য এই স্বীকৃতি পেয়েছেন ভারতের এ লেখক।

ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি এ তথ্য জানিয়েছে।

ঔপনিবেশিক শাসনের অবসানে ভারত ভাগের প্রেক্ষাপটে একটি পরিবারের উপাখ্যান উঠে এসেছে তার ‘টুম্ব অব স্যান্ড’ উপন্যাসে। স্বামীর মৃত্যুর পর ৮০ বছর বয়সী এক নারীকে ঘিরে আবর্তিত হয়েছে উপন্যাসের কাহিনী।

‘রেত সামাধি’ হিন্দি ভাষার প্রথম বই, যা ৫০ হাজার পাউন্ড অর্থমূল্যের এই পুরস্কারের সংক্ষিপ্ত তালিকায় জায়গা করে নিয়েছিল।

পুরস্কার পাওয়ার প্রতিক্রিয়ায় গীতাঞ্জলী বলেন, “আমি কখনোই বুকার পাওয়ার স্বপ্ন দেখিনি। আমি ভাবিনি কখনো আমার ভাগ্যে এই পুরস্কার জুটবে। বিশাল এক স্বীকৃতি। আমি অভিভূত, বিস্মিত, সম্মানিত এবং কৃতজ্ঞ।”

আন্তর্জাতিক বুকারের বিচারক প্যানেলের সভাপতি ফ্রাংক ওয়েইন বলেন, “বইটির কাহিনীর শক্তি, শোক উসকে দেওয়ার ক্ষমতা আর সহজ আনন্দের উচ্ছ্বাস বিমোহিত করেছে তাদের।”

পুরস্কারের অর্থ গীতাঞ্জলী শ্রী এবং বইয়ের অনুবাদক যুক্তরাষ্ট্র-নিবাসী ডেইজি রকওয়েলের মধ্যে ভাগ করে দেওয়া হবে।

প্রতিবছর যুক্তরাজ্য বা আয়ারল্যান্ডে প্রকাশিত ইংরেজি ভাষায় অনুবাদ করা যে কোনো আন্তর্জাতিক ভাষায় লেখা একটি বইকে আন্তর্জাতিক বুকার পুরস্কার দেওয়া হয়। বুকার পুরস্কার ও ম্যান বুকার পুরস্কারের মর্যাদারই আরেকটি পুরস্কার এটি।

ভারতের উত্তর প্রদেশের মনিপুরি শহরে জন্ম নেওয়া গীতাঞ্জলী শ্রী তিনটি উপন্যাস এবং কয়েকটি গল্প সংকলনের রচয়িতা।
এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি