ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ২২ অক্টোবর ২০২০, || কার্তিক ৭ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

প্রশিক্ষিত প্রতিবন্ধীদের জন্য অনলাইনে জব ফেয়ার 

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২২:০৪ ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০

এটুআই ও গাজীপুর জেলা প্রশাসনের উদ্যোগে এবং সমাজসেবা অধিদফতর ও একশনএইড বাংলাদেশে-এর সহযোগিতায় আজ গাজীপুরস্থ শারীরিক প্রতিবন্ধীদের প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্রে (ইআরসিপিএইচ) প্রশিক্ষিত শারীরিক ও অন্যান্য প্রতিবন্ধীদের জন্য অনলাইনে একটি জব ফেয়ার অনুষ্ঠিত হয়েছে।

ফেয়ারে প্রধান অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান। বিশেষ অতিথি হিসেবে যুক্ত ছিলেন সমাজসেবা অধিদফতরের পরিচালক সৈয়দ মোঃ নুরুল বাসির, মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্ম সচিব (ই-গভর্নেন্স) ও এটুআই এর যুগ্ম- প্রকল্প পরিচালক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর এবং একশনএইড বাংলাদেশের অনুষ্ঠান পরিচালক আলী আসগর সাবরী। গাজীপুর জেলার জেলা প্রশাসক এস. এম. তরিকুল ইসলাম এর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে এটুআই-এর ফিউচার অব ওয়ার্ক ল্যাব প্রধান আসাদ-উজ-জামান স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন। উক্ত জব ফেয়ারে ৯ টি শিল্পপ্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে প্রায় ৮৪ জন প্রশিক্ষিত প্রতিবন্ধী ইন্টারভিউ এর জন্য অংশগ্রহণ করেন। 

সমাজসেবা অধিদফতর কর্তৃক দেশের প্রান্তিক জনগোষ্ঠী, শারীরিক’সহ বিভিন্ন ধরনের প্রতিবন্ধী ও দুঃস্থদের প্রয়োজনীয় দক্ষতা উন্নয়ন ও  কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করা হয়ে থাকে। এক্ষেত্রে দীর্ঘদিন যাবত সমাজসেবা অধিদফতরকে তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি বিভাগ এবং মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ কর্তৃক বাস্তবায়নাধীন ও ইউএনডিপি বাংলাদেশ এর সহায়তায় পরিচালিত এটুআই প্রোগ্রাম নানাবিধ কারিগরি সহযোগিতা করে আসছে। বিশেষভাবে সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় শারীরিক প্রতিবন্ধী, দুঃস্থ ও অসহায়দের বিভিন্ন পেশায় প্রশিক্ষণ দেয়ার প্রতিষ্ঠান গাজীপুরস্থ শারীরিক প্রতিবন্ধীদের প্রশিক্ষণ ও পুনর্বাসন কেন্দ্র (ইআরসিপিএইচ)- এর সাথে এর আগে ২০১৯ সালেও এটুআই-এর সমন্বয়ে গাজীপুর জেলা প্রশাসন এবং একশনএইড বাংলাদেশ-এর সহযোগীতায় জব ফেয়ার আয়োজন করেছে। তারই ধারাবাহিকতায় এবারের আয়োজনে বিগত বছরের নিয়োগকারী প্রতিষ্ঠানসহ আরো বেশকিছু শিল্প-প্রতিষ্ঠান চলতি বছরেও অনুরূপভাবে স্ব-স্ব সিএসআর তহবিল থেকে শারীরিক প্রতিবন্ধী, দুঃস্থ ও অসহায়দের বিভিন্ন ট্রেডে নিয়োগ প্রদান করার বিষয়ে আগ্রহ ব্যক্ত করেছে।

অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে ঢাকা বিভাগের বিভাগীয় কমিশনার (অতিরিক্ত সচিব) মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান বলেন, সমাজসেবা অধিদফতর সমাজের নানা শ্রেণীর মানুষের সেবায় কাজ করে যাচ্ছে। এর সাথে সমন্বয় করে এটুআই-এর প্রতিবন্ধী মানুষদের সমাজের মূল জনস্রোতের সাথে সম্পৃক্ত করার এই উদ্যোগ অনেক কার্যকরী। তিনি মনে করেন, এভাবে আরো জব ফেয়ারের অয়োজন করলে সমাজের বঞ্চিত এই মানুষেরা আরো এগিয়ে যাবে।

বিশেষ অতিথির বক্তব্যে সমাজসেবা অধিদফতরের পরিচালক সৈয়দ মোঃ নুরুল বাসির বলেন, আমাদের সমাজের একটা অংশ শারীরিক বা অন্যান্য প্রতিবন্ধী। এই রকম উদ্যোগের ফলে অন্যান্য প্রতিবন্ধীরাও নিজেদের বোঝা না মনে করে প্রশিক্ষণে এগিয়ে আসবে। এজন্য তিনি এ ধরনের জব ফেয়ারের আয়োজনের জন্য বিশেষ গুরুত্বারোপ করেন।

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্নসচিব (ই-গভর্নেন্স) ও এটুআই-এর যুগ্ম-প্রকল্প পরিচালক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ুন কবীর বলেন, শিল্পাঞ্চল হিসেবে গাজীপুর প্রসিদ্ধ, আর এ অঞ্চলে এই ধরনের উদ্যোগের ফলে প্রতিবন্ধীদের কর্মসংস্থান তৈরি হবে। তিনি বলেন, প্রতিবন্ধীদের প্রতি উত্তম আচরণ এবং তাদের সেবার ব্যাপারে বিভিন্ন ধর্ম গ্রন্থেও গুরুত্বারোপ করেছে।
 
একশনএইড বাংলাদেশের অনুষ্ঠান পরিচালক আলী আসগর সাবরী বলেন, বাংলাদেশের উন্নয়নের সাথে মানবসম্পদ উন্নয়ন বিশেষ গুরুত্বপূর্ণ। জব ফেয়ারের মূল উদ্দেশ্য টেকসই উন্নয়ন লক্ষ্যমাত্রা অর্জনের সাথে দেশের সকল শ্রেণীর জনগোষ্ঠীকে সম্পৃক্ত করা। যারা সুবিধাবঞ্চিত বা শারীরিক প্রতিবন্ধী, বিভিন্ন কর্মক্ষেত্রে তাদের সম্পৃক্ত করার মধ্য দিয়ে মূলত উন্নয়নের যাত্রা আরো দ্রুত হয়। 

সভাপতির বক্তব্যে গাজীপুর জেলার জেলা প্রশাসক এস. এম. তরিকুল ইসলাম বলেন, এই মানুষেরা আমাদেরই আপনজন। এ ধরনের উদ্যোগ সব সময়েই জেলা প্রশাসন থেকে নেয়া হবে। এজন্য তিনি বিভিন্ন শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলোকে আরো এগিয়ে আশার আহবান জানান।

জব ফেয়ারে যুক্ত শিল্প প্রতিষ্ঠানগুলো হল মাসকো ইন্ডাস্ট্রিজ, স্ট্রিচ লিমিটেড, টিম গ্রুপ, এমএনআর গ্রুপ, বিপি ওয়্যারস লিঃ, রেডিসন গার্মেন্টস, নর্দান কর্পোরেশন লিমিটেড, মাল্টিফেবস লিমিটেড, ফার্ষ্ট লেভেল এক্সেসরিজ এবং স্যাল্ভেশন ফর দ্যা ডিসার্ভিং। অনুষ্ঠানে যুক্ত এ সকল শিল্প প্রতিষ্ঠানের প্রতিনিধিরা অনুষ্ঠানে তাদের স্ব-স্ব প্রতিষ্ঠানে প্রতিবন্ধী বা শারীরিকভাবে অক্ষমদের ইন্টারভিউ এর জন্য প্রস্তুতি গ্রহণ এবং নিয়োগ প্রদানের ব্যাপারে ইতিবাচক মনোভাব ব্যক্ত করেন।
 
এছাড়াও ইআরসিপিএইচ এবং প্রতিবন্ধীদের প্রশিক্ষণের নানা সুবিধা-অসুবিধার কথা তুলে ধরেন ইআরসিপিএইচ এর উপ-পরিচালক ফখরুল আলম এবং বারডো-এর নির্বাহী পরিচালক সাইদুল হক। গাজীপুর জেলার জেলা প্রশাসক এস. এম. তরিকুল ইসলাম অনুষ্ঠানের সমাপনী ঘোষণা করেন। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন এটুআই এর প্রোগ্রাম এসিসট্যান্ট জিল্লুর রহমান।

আরকে//


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি