ঢাকা, বৃহস্পতিবার   ১২ ডিসেম্বর ২০১৯, || অগ্রাহায়ণ ২৮ ১৪২৬

Ekushey Television Ltd.

বস্তির মানুষের জন্যেও ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে: প্রধানমন্ত্রী

প্রকাশিত : ১৩:০৮ ১৫ জুলাই ২০১৯ | আপডেট: ১৬:১০ ১৫ জুলাই ২০১৯

মন্ত্রী ও সরকারি কর্মকর্তাদের জন্য আধুনিক সুযোগ-সুবিধা সম্পন্ন এক হাজার ৬৭১টি ফ্ল্যাট উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

সোমবার রাজধানীর ইস্কাটন রোডে অনুষ্ঠিত গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের অধীনে থাকা ইস্কাটন, মিরপুর ও লালমাটিয়ায় ৭টি প্রকল্পের আওতায় এসব ফ্ল্যাট উদ্বোধন করেন প্রধানমন্ত্রী।

এ সময় তিনি বলেন, বস্তির মানুষের জন্য ভাড়া ভিত্তিক ফ্ল্যাট নির্মাণ করা হবে। সবার জন্যই সুন্দর ব্যবস্থা আমরা নিচ্ছি।

ঢাকা শহরে জলাবদ্ধতা কমাতে ব্যবস্থা নেয়া হচ্ছে উল্লেখ করে শেখ হাসিনা বলেন, ঢাকা শহরে যেসব জলাশয় রয়েছে সবগুলো ভরাট করা যাবে না। এসব জলাশয় ভরাট করে ভবন বা অন্য যে কোনো স্থাপনা নির্মাণ না করতে তিনি সবাইকে অনুরোধ জানান।

এছাড়া, চট্টগ্রামে জলাবদ্ধতা কমানোর জন্য ১৩ টি খাল খননের প্রকল্প চলমান রয়েছে বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। বলেন, এখানে আরও ২৩টি খাল খননে উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। খুলনা, রাজশাহী, সিলেটসহ মহানগরীকে আধুনিক নগরী হিসেবে গড়ে তুলতে আমার মাস্টার প্লান করছি। বাংলাদেশে প্রচুর বৃষ্টিপাত হয়। ভৌগলিক কারণে এ বৃষ্টিপাত হয়। এতে জলাবদ্ধতার সৃষ্টি হয়। এ জলাবদ্ধতার কারণে জমে থাকা পানি নিষ্কাশনের জন্য যথাযথ ব্যবস্থা করা দরকার।

দেশের ৯৪ ভাগ মানুষ বিদুতের সুবিধা পাচ্ছে উল্লেখ করে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমরা যথাসাধ্য কম মূল্যে বিদুৎ দিচ্ছি। উৎপাদনের খরচের চেয়ে কম দামে দেওয়া হচ্ছে। রাষ্ট্রীয় সম্পদ ব্যবহারে আপনারা সচেতন হোন। নিজের মনে করে ব্যবহার করবেন। অপচয় করবেন না। এখন গ্যাসে সংকট রয়েছে। এ অবস্থায় মোটেও অপচয় করবেন না।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, বাংলাদেশকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান যেভাবে সাজাতে চেয়েছিলেন, তা তিনি করে যেতে পারেননি। ৯৬ সালে আওয়ামী লীগ যখন ক্ষমতায় আসে, তখন অনেক উন্নয়ন কর্মকাণ্ড হাতে নিয়েছিল। যাই হোক পরেরবার ক্ষমতায় আসতে পারিনি। পরে ২০০৮ সালের নির্বাচনে জয়ী হয়ে সরকার গঠন করি। এ দশ বছরে বাংলাদেশে যে উন্নয়ন হয়েছে, তা বিশ্বব্যাপী সমাদৃত।

© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি