ঢাকা, শনিবার   ২৮ মে ২০২২, || জ্যৈষ্ঠ ১৪ ১৪২৯

মালয়েশিয়ায় মৃত্যুর ১ মাসেও পরিচয় মেলেনি বাংলাদেশীর

মালয়েশিয়া প্রতিনিধি

প্রকাশিত : ১৫:৪৫, ১২ মে ২০২২ | আপডেট: ১৫:৪৭, ১২ মে ২০২২

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ১৫ এপ্রিল মালয়েশিয়ার কুয়ালালামপুরে এক বাংলাদেশী শ্রমিকের মৃত্যু হয়। তার সাথে বৈধ পাসপোর্ট বা কোনো ডকুমেন্টস না থাকায় পূর্ণাঙ্গ পরিচয় শনাক্ত করতে পারছে না দেশটির পুলিশ।

পুলিশ ও হাসপাতাল সূত্রে জানা গেছে, গত ১৫ এপ্রিল মৃত্যুর পর থেকে প্রবাসী বাংলাদেশীর মরদেহ কুয়ালালামপুর সরকারি হাসপাতালের হিমঘরে অজ্ঞাতনামা হিসেবে পড়ে আছে। পরিবারের সম্মতি পেলে লাশটি কুয়ালালামপুরে দাফন করবে কর্তৃপক্ষ। 

তবে পরিচয় শনাক্ত না হওয়ার কারণে লাশটি দাফন করতে পারছে না হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ।

মৃত্যুকালে তার সাথে যে পাসপোর্টের ফটোকপি পাওয়া গেছে সেটি কুয়ালালামপুরস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের সার্ভারে চেক করে দেখা যায় পাসপোর্টটি সঠিক নয়। পাসপোর্টে লেখা আছে হারুনর রশীদ, বাড়ি বরিশাল। কিন্তু দূতাবাসের সার্ভারের রেকর্ডে আছে ইব্রাহিম, ঠিকানা অন্য এলাকা।

দিনকে দিন এ লাশের পরিচয় শনাক্তকরণ জটিল হয়ে পড়ছে। কারণ লাশের সাথে যে ২ জন বাংলাদেশি ছিলেন তারা ভোগান্তি থেকে বাঁচতে আত্মগোপনে চলে গেছেন।

এ প্রসঙ্গে মালয়েশিয়ায় বাংলাদেশী কমিউনিটির নেতা মো: জহিরুল ইসলাম জহির বলেন, পুলিশ ও হাসপাতালে খোঁজ-খবর নিয়ে জানতে পারি তার সাথে যে পাসপোর্টটি রয়েছে সেটি নকল পাসপোর্ট। ছবির সাথে লাশের ছবির কোনো মিল নেই, কেউ যদি মৃত ব্যক্তির পরিচয় জানেন তাহলে কুয়ালালামপুরস্থ বাংলাদেশ দূতাবাস অথবা তার সাথে যোগাযোগ করার জন্য অনুরোধ জানান তিনি।

কুয়ালালামপুরস্থ বাংলাদেশ দূতাবাসের মিনিস্টার (শ্রম) মো: নাজমুল সাদাত সেলিম বলেন, তদন্ত করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

এএইচ/


Ekushey Television Ltd.

© ২০২২ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি