ঢাকা, রবিবার   ১১ এপ্রিল ২০২১, || চৈত্র ২৮ ১৪২৭

রকিবুল হাসানের তিনটি কবিতা

রকিবুল হাসান

প্রকাশিত : ১৬:২৬, ২৯ মার্চ ২০২১ | আপডেট: ১৯:২৪, ২৯ মার্চ ২০২১

১.
উর্বরতার অনুপ্রাস

আকাশী শাড়ির ঘোমটাটানা লাল ব্লাউজের বেলিফুল রমণী এ যেনো আমার 
রূপবতী বাংলাদেশ- আমি কীভাবে বলি এসব কেবলি ছবি!
ছনের ঘরের মমতা ধরে যে নারী দাঁড়িয়ে থাকে হাসিমুখে 
                                       প্রেমিকের ফেরার অপেক্ষায়।
ভেজাচুলে যে নারী দাঁড়ায় সকালের রোদে ভালোবাসায় বুক ভরে
দেখি তাকে মুগ্ধতায় লাবণ্য যৌবনে যেনো হেসে ওঠে ফসলের মাঠ

আবার এই তুমিই যখন তোমাকে তোমার ভেতর থেকে
                                          তুলে এনে দিয়েছো আমাকে  
ছবিগুলো তখন ছবির ভেতর থেকে বের হয়ে কী সুন্দর অপরূপা হয়ে
হাজার বছরের গল্প হয়ে আমাকে জাগিয়ে রাখে 
 কাঁচাবুকে ঘ্রাণের উপমা-আমিতো দেখিনি উর্বরতার এমন অনুপ্রাস উৎসব

ছবিগুলো তো ছবি থাকে না কবিতারমণী হয়ে ঢেউআঁকা কথা কয়ে ওঠে
                                          আমার চোখের মেঘে মেঘে 

২.
তুমি কী নিজেই কবিতা

ভুল অভিমান কবিতা হয়ে রোদ্দরু বোনে রাতের গহিনে
অভিমান কী তবে ভুলের কবিতা- ফেরার ব্যাকুলতা!
শব্দে শব্দে তাকে নির্মাণ করি পাড়্রসাদের মতো।

একদিন এই শহরে পাগলা ঝড় উঠেছিল
আমার উঠতি যৌবনে গড়াই নদীর অপ্রতিরোধ্য প্রমত্ত ঢেউ
কী ভীষণ বেদনায় আছড়ে পড়তো-

তুমি শাণিত চোখে ভেসেছিলে ঢেউয়ের ফণায়
শ্যামলা চেহারা -লাউডগার মতো সতেজ সুন্দর
কী আশ্চর্য রোদমাখা হাসি ছড়িয়ে থাকতে চোখের জাঙলায়

তুমি কেমন আছো-কোথায় থাকো-এখনো কী বেণি করো
কুষ্টিয়া শহরের সব পথে পথে ছড়ানো কবিতার মতো;
অথচ তুমি কবিতা ভালোবাসতে কিনা আজো জানি না।

৩.
পলিমাটি উর্বরতার ঘ্রাণ

তুমি প্রতিদিন অচীন এক কণ্ঠনদীতে ডুবে যেতে চাও
অন্তত একবার চাওই
বেলাভাঙা মেঘে
বিকেলের নদী ফেরে শুভ্রতায় সন্ধ্যা তারায়
তুমিও কি তবে তাই বেদনায় লুকানো তৃষ্ণা
খুলে দিতে চাও সুঘ্রাণ সৌন্দর্যে

একটু ছোঁয়াই তো -একটু শিশিরভাঙা 
মনভরা কথার মরমী স্বরলিপি
ছোট ছোট ঢেউ প্রেমের কবিতার মতো কী সুন্দর
নদীর তৃষ্ণার্ত কূল ছোঁয়-কতোকালের অপেক্ষায়
কতো সযত্ন ব্যাকুল চুম্বনে সুখের ক্রন্দন
নিজেকে হারানোর আনন্দে মধ্যরাতে কাঁদে নদীতিকা নারী

রাতের অচেনা এক ঢেউ
মধুস্বরে তোমার কর্ণলতিকায় নিশুতিচাদরে
দিয়েছে গেঁথে কথার বাঁশরী সুর
বিরাণ জমি পলিমাটি যৌবনা হয়ে ওঠে বুনো বন্যায়
তোমার দুঠোঁটে ভোরের ভার্জিন রোদ শরম ভেঙে 
দুপুরের অবাধ্য যৌবন মাতাল বৈশাখ হয়ে ওঠে
                             সবুজ ফসলের নতুন গান

একটু একটু ঢেউ একদিন নদীর পাড় ভাঙে
একটু একটু কথা -একদিন কথার সমুদ্র গল্প হয়
একটু একটু ছোঁয়া একদিন স্নানের শরমসুখ হয়ে
জানালা ভেঙে উপচে পড়া ভোরের রোদের মতো
         ভেজাচুলের দারুণ কবিতা হয়ে যায় 

তুমি একটু একটু ছোঁয়া চেয়েছিলে
                    একটু একটু কথা চেয়েছিলে-

আরকে//


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি