ঢাকা, সোমবার   ০১ জুন ২০২০, || জ্যৈষ্ঠ ১৯ ১৪২৭

Ekushey Television Ltd.

রাখিকে ঈশ্বরের উপহার বললেন রীতেশ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ২১:১৯ ১১ অক্টোবর ২০১৯

অভিনেত্রী রাখি সাওয়ান্ত। নানা কাণ্ড করে সব সময় আলোচনায় থাকেন। কিছুদিন আগে বিয়ে করেছেন। রীতেশ নামে এক জনের সঙ্গে নাকি চারহাত এক হয়েছে রাখির। কিন্তু আদৌ কি বিয়ে করেছেন রাখি! সত্যিই কি রীতেশ নামে কেউ আছেন! এই নিয়ে মানুষের মনে ধন্দ্ব কম ছিল না।

বিতর্ক যেখানে, রাখি সাওয়ান্ত সেখানে। গুজব রটাতেও তাঁর জুড়ি মেলা ভার। তাই বিয়ের খবরেও সত্যতা কতটা তা নিয়ে যথেষ্ট সন্দেহ ছিল। কিন্তু এবার রাখি সাওয়ান্তের স্বামী রীতেশ এক সংবাদমাধ্যমের কাছে মুখ খুললেন।

রীতেশ নিজেই জানান, তাঁর অস্তিত্ব বাস্তবেই রয়েছে। তিনি ইংল্যান্ডের বসবাসকারী একজন ব্যবসায়ী। এমনকী রাখি নাকি তাঁর কাছে ঈশ্বরের উপহারের মতো। এমনও জানান রীতেশ।

রীতেশ বলছেন, আমি ওর মতো কোনও মহিলা দেখি। ও আমার থেকেও অনেক বড় মাপের। রাখির সপাটে জবাব দেওয়া ও বহির্মুখী স্বভাব আমি বদলাতে চাই না। ও খুব মন খোলা আর সেটা সত্যিই দারুণ।

অনেকেই মনে করেছিলেন, খবরে থাকার জন্যই বিয়ের কথা প্রকাশ্যে এনেছিলেন তিনি। এই বিষয়ে তিনি বলেন, লোকে আমার অস্তিত্ব নিয়ে কী ভাবছেন তা দিয়ে আমার কিছু যায় আসে না। তাঁদের ব্যাপার তাঁরা কী ভাবছেন! আমার একটা পরিবার রয়েছে। রাখিরও পরিবার রয়েছে। আমরা দুজনেই সুখী। এই বিষয়টাই বড়।

রীতেশ আরও বলেন, আমি একজন খুব সাধারণ মানুষ, যিনি সকাল ৯টায় কাজে যান এবং সন্ধে ৬টায় বাড়ি ফেরেন। আমি জানি কিছু লোক আমার অস্তিত্বতেই বিশ্বাস করেন না। কিন্তু এখন তো আমি আপনার সামনেই কথা বলছি। ক্যামেরার সামনে রাখি একজন আলাদা মানুষ। কিন্তু মন থেকে ও অসাধারণ মানুষ।

বিয়ের পরে পর্দায় সাহসী দৃশ্যে রাখি অভিনয় করবেন কি না তা নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তুলেছিলেন। এ বিষয়ে রীতেশ জানিয়েছেন, ও এখন বিবাহিত। ওর জীবনও এখন নতুন। কে নিজের বউকে পর্দায় সাহসি দৃশ্যে অভিনয় করতে দেখতে ভালোবাসে। রাখি যা যা বলেছে সব সত্যি। প্রভু চাওলার সঙ্গে ওকে যেদিন সাক্ষাৎকারে দেখেছিলাম, সেদিন থেকে আমি ওর ভক্ত। আমি ওর সব কাজ দেখেছি।

প্রসঙ্গত, অগাস্ট মাসে রাখি জানিয়েছিলেন, তিনি একজন ইংল্যান্ডের এনআরআইকে বিয়ে করেছেন। ২০ জুলাই নাকি চুপিসারে বিয়ে সেরেছিলেন দুজনে। কলকাতা ২৪

এসি

 


New Bangla Dubbing TV Series Mu
New Bangla Dubbing TV Series Mu

© ২০২০ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি