ঢাকা, ২০১৯-০৬-১৭ ৯:২৯:১৮, সোমবার

Ekushey Television Ltd.

রুপপুর প্রকল্প দুর্নীতি : তদন্ত প্রতিবেদন দাখিলের নির্দেশ

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১০:০০ পিএম, ২০ মে ২০১৯ সোমবার | আপডেট: ১০:৪৯ পিএম, ২০ মে ২০১৯ সোমবার

রূপপুর পারমাণবিক বিদ্যুৎকেন্দ্রে গ্রিনসিটি আবাসন প্রকল্প নিয়ে ওঠা দুর্নীতির অভিযোগ তদন্তে গৃহায়ন ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের দুটি কমিটির তদন্ত প্রতিবেদন হাইকোর্টে দাখিলের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

সুপ্রিম কোর্টের ছুটি শেষে এক সপ্তাহের মধ্যে প্রতিবেদন দুটি দাখিলের নির্দেশ দেন হাইকোর্ট। বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি সোহরাওয়ার্দীর সমন্বয়ে গঠিত হাইকোর্ট বেঞ্চ এ আদেশ দেন।

এদিকে আদালত বলেছেন, এ সংক্রান্ত সরকারের দুটি কমিটির রিপোর্ট হাতে পাওয়ার পরই শুনানি করবেন তারা। এসময় বালিশ ও কেটলি ফ্ল্যাটে উঠানের খরচ দেখে হাসেন বিচারপতিরা। এদিকে আসবাবপত্র ক্রয় নিয়ে কিছু না বললেও প্ল্যান্টের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের বেতন ভাতা নিয়ে গণমাধ্যমের খবরকে কাল্পনিক ও অনুমান নির্ভর বলে দাবি করেছে পরমাণু শক্তি কমিশন।

রূপপুর পারমাণু বিদ্যুৎকেন্দ্রের গ্রিনসিটি প্রকল্পে ১১০টি ফ্ল্যাটের আসবাবপত্র ও প্রয়োজনীয় সামগ্রী কেনা এবং ভবনে উঠানোর কাজে অস্বাভাবিক ব্যয় নিয়ে দেশজুড়ে আলোচনা-সমালোচনা।

এরইমধ্যে অনুসন্ধানে নেমেছে দুদক। গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ও ঘটনা তদন্তে অধিদফতরের প্রধান প্রকৌশলীকে কমিটি গঠনের নির্দেশ দিয়েছেন ।

এরই প্রেক্ষিতে গত ১৯ মে গ্রিনসিটি আবাসন প্রকল্পে দুর্নীতির অভিযোগে বিচার বিভাগীয় তদন্ত চেয়ে হাইকোর্টে রিট করেন ব্যারিস্টার সৈয়দ সাইয়েদুল হক সুমন।

শুনানিতে রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ আইন কর্মকর্তা বলেন, এক সপ্তাহে সরকারের ২টি প্রতিবেদন জমা দেওয়ার কথা বলা আছে। দুই পক্ষের কথা শুনে অবকাশ ও ঈদের ছুটির পর এক সপ্তাহের মধ্যে আদালতে প্রতিবেদন দুটি জমা দেওয়ার নির্দেশ দেন হাইকোর্ট

রিটে গৃহায়ণ ও গণপূর্ত মন্ত্রণালয়ের সচিব, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি মন্ত্রণালয়ের সচিবসহ ছয়জনকে বিবাদী করা হয়েছে।

 

আই// এসএইচ/

 

ফটো গ্যালারি



© ২০১৯ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি