ঢাকা, রবিবার   ১১ এপ্রিল ২০২১, || চৈত্র ২৮ ১৪২৭

লকডাউনে ফাঁকা বই মেলা প্রাঙ্গণ (ভিডিও)

একুশে টেলিভিশন

প্রকাশিত : ১৫:৪৯, ৭ এপ্রিল ২০২১

লকডাউনের দ্বিতীয় দিনেও ফাঁকা ছিল বই মেলা প্রাঙ্গণ। তবে  নির্বাচিত বই সংগ্রহের জন্য কিছু পাঠক আসছেন বলে জানান বিক্রেতারা। 

অমর একুশে গ্রন্থমেলার ২০তম দিনে লকডাউনের দ্বিতীয় দিন। মেলা শুরু হয় দুপুর ১২টায়। সারাটা সময় প্রায় পাঠক শূন্য ছিল প্রাঙ্গণ। তবে কিছু স্টলে ক্রেতা এসেছেন, আগে থেকেই নির্বাচিত বই সংগ্রহ করতে। 

ভীড়শূণ্য মেলায় বই সংগ্রহের অভিজ্ঞতার কথা জানালেন পাঠকরা। 

পাঠকরা জানান, মোটামুটি ঢিলেঢালা চলছে বইমেলা। কেনার জন্য সাচ্ছন্দ্যে দেখতে পারছি, কিনতে পারছি এটা ভালই লাগছে। এছাড়া ধূলাবালি নেই।

প্রকাশকরা বলছেন, বইমেলায় এমন অলস সময় আর কখনও পার করতে হয়নি তাদের। 

প্রকাশকরা জানান, ফেসভেল্যুর কারণে দোকান খুলে রাখতে হয় সেই কারণে আমরা খুলেছি। একজন ক্রেতা এসে বই দেখলে আমাদের ভালোলাগে, নিক বা না নিক সেটা পরের বিষয়।

পাঠকের অনুপস্থিতি কখনোই কাম্য হতে পারে না, বলছেন লেখকরা। 

লেখকরা বলেন, লকডাউন রেখে বইমেলা চালু রাখাটা আমি যুক্তিগত মনে করি না।

কিছু স্টলে রয়েছে ভারতীয় বাঙালি লেখকদের বই। অনুমতি নিয়ে বিক্রি হচ্ছে বলে দাবি বিক্রেতাদের। 

বিক্রেতারা জানান, অনেক স্টলেই বিদেশি লেখকদের বই আছে এবং এটা অনুমতি নিয়েই করা হয়েছে। তবে প্রকাশক মহোদয় বলতে পারবেন কিভাবে অনুমতি নিয়েছেন, কিভাবে এটা করেছেন।

প্রকাশকরা বলছেন, অমর একুশে গ্রন্থ মেলায় কেবল বাংলাদেশের প্রকাশনী সংস্থার বই বিক্রির বিধান রয়েছে।

প্রকাশকরা জানান, পাইরেসি এবং অন্য বিদেশী লেখকের বই এই মেলায় কখনই সে উপস্থাপন করতে পারবে না। বিদেশি বই এখানে থাকা আমাদের প্রকাশনার যে মূল আদর্শ-ঐতিহ্য সেটি নষ্ট হচ্ছে।

২০তম দিনে মেলায় এসেছে ২৮টি নতুন বই। 
দেখুন ভিডিও :

এএইচ/এসএ/
 


Ekushey Television Ltd.

© ২০২১ সর্বস্বত্ব ® সংরক্ষিত। একুশে-টেলিভিশন | এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি